আপনি যা পড়ছেন

ইন্দুসুধা ঘোষ যুগান্তর দলের বিপ্লবী

ইন্দুসুধা ঘোষ জন্মগ্রহণ করেছিলেন ১৯০৫ সালে ময়মনসিংহে। বাবার বাড়ি ঢাকা জেলার বজ্রযোগিনীতে। তার পিতা সতীশচন্দ্র ঘোষ ও মাতা প্রিয়কুমারী দেবী।  তাঁর বাবা পেশায় সরকারি কর্মচারী ছিলেন। ছোটবেলা থেকেই ছবি আঁকতেন তিনি। ময়মনসিংহ বিদ্যাময়ী স্কুলে পড়তেন। ময়মনসিংহ বিদ্যাময়ী স্কুল থেকে তিনি ম্যাট্রিক পাস করেন।  সেখানে আঁকা ও সেলাইতে নিয়মিত পুরস্কার পেতেন। সোনার

স্পেনের গৃহযুদ্ধ প্রসঙ্গ এবং প্রাসঙ্গিক ইতিহাস

স্পেনে ১৯৩১ সালে রাজতন্ত্রের পরিবর্তে প্রজাতন্ত্র স্থাপিত হয়। ১৯৩১ এবং ১৯৩৩ সালের নির্বাচনে ডানপন্থী ও মধ্যপন্থিরা জয়লাভ করে। নতুন সরকার অভিজাত শ্রেণির ক্ষমতা ও প্রতিপত্তি খর্ব করে বিভিন্ন আইন প্রণয়নের চেষ্টা করে। স্পেনে শক্তিশালী মধ্যবিত্ত শ্রেণি না থাকায় এই নতুন গণতান্ত্রিক সরকারের ভিত্তি অত্যন্ত দুর্বল হয়ে পড়ে। বামপন্থী এবং দক্ষিণপন্থী

নিম চিরহরিৎ ঔষধি বৃক্ষ

ভূমিকা: নিম বা নিম্ব মেলিয়াসি পরিবারের এযারিডাক্টা গণের একটি সপুষ্পক উদ্ভিদের প্রজাতি। এরা মাঝারি থেকে বৃহদাকার চিরহরিৎ থেকে অর্ধ পত্রঝরা বৃক্ষ। বিবরণ: নিম গাছ ৩০ মিটার পর্যন্ত উঁচু হয়।  অল্প বয়স্ক বাকল মসৃণ, বয়ষ্ক কান্ডের বাকল বিদীর্ণ এবং স্তরে স্তরে সজ্জিত, পাটল বর্ণ বাদামী বা ধূসর, ভেতরের বাকল কমলা থেকে

চারুশীলা দেবী ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের বিপ্লবী নেত্রী

চারুশীলা দেবী ১৮৮৩ সালে মেদিনীপুরে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।  তিনি মেদিনীপুর স্থানীয় ছিলেন। পিতার নাম রাখালচন্দ্র অধিকারী, মা কুমুদিনী দেবী। চারুশীলা দেবী ছিলেন ভূদেব মুখখাপাধ্যায়ের প্রথম ছাত্রী। শিশু বয়স থেকেই তিনি ছিলেন পাঠপ্রিয় এবং স্বাতন্ত্র্যপ্রিয়। বারোবছর বয়সে তার বিবাহ হয়েছিলে মেদিনীপুরের বীরেন্দ্রকুমার গোস্বামীর সঙ্গে। শৈশবে পিতৃ মাতৃহীন অগ্নিশিশু ক্ষুদিরাম থাকতেন মেদিনীপুর শহরের উপকণ্ঠে হবিবপুরে

ইন্দুমতী সিংহ চট্টগ্রাম যুব বিদ্রোহের নেত্রী

চট্টগ্রাম অস্ত্রাগার লুণ্ঠনের অন্যতম বিপ্লবী নেতা অনন্ত সিংহের বড় বোন ইন্দুমতী সিংহ। তিনি জন্মগ্রহণ করেছিলেন ১৮৯৮ সালে। তাদের পিতা গোলাপ সিংহ। তাঁদের পূর্বপুরুষরা রাজপুত ছিলেন কিন্তু ইন্দুমতী মধ্যে বংশের কোনো অহংকার ছিলো না। চট্টগ্রামের বিপ্লবী অধিনায়ক সূর্য সেনের বিপ্লবীদলের কর্মী ছিলেন ইন্দুমতী সিংহ। ভাই অনন্ত সিংহ যখন অস্ত্রাগারে লুণ্ঠনের পর পলাতক

কলকে এপোসিনাসি পরিবারের একটি আলংকারিক ফুল

ভূমিকা: কলকে (বৈজ্ঞানিক নাম: Cascabela thevetia) এপোসিনাসি পরিবারের কাসকাবেলা গণের একটি সপুষ্পক উদ্ভিদের প্রজাতি। এরা আকারে বৃহৎ গুল্ম বা ক্ষুদ্র বৃক্ষ হতে পারে। বিবরণ: কলকে গাছের কাণ্ড ও শাখা মসৃণ, কর্কবৎ, তরুক্ষীরবাহী। পত্র সমাকীর্ণ, সর্পিল বা একান্তর, অর্ধবৃন্তক, পত্রফলক ৮-১৫ x ১ সেমি, রৈখিক-বল্লমাকার, সূক্ষ্মাগ্র বা খাটোভাবে দীর্ঘা, নিম্নাংশ ক্রমান্বয়ে

সারবেরা হচ্ছে উদ্ভিদের এপোসিনাসি পরিবারের একটি গণ

বিবরণ: সারবেরা হচ্ছে এপোসিনাসি পরিবারের একটি গণের নাম। এরা ক্ষুদ্র, স্থূলাকার শাখাবিশিষ্ট মসৃণ বৃক্ষ। পত্র একান্তর, দীর্ঘ, বিডিম্বাকার-বল্লমাকার, শিরাসমূহ সরু, আনুভূমিক ও সমান্তরাল। সারবেরা গণের উদ্ভিদের পুষ্প শিথিল, এক পার্শ্বীয়ভাবে শাখায়িত, দীর্ঘ-পুষ্পদণ্ডী, প্রান্তীয় পুষ্পবিন্যাসে অবস্থিত। বৃতি অগ্রন্থিল, পশ্চাদমুখী বক্র, বল্লমাকার, নিম্নাংশে সংকীর্ণ, সূক্ষ্মাগ্র, পর্ণমোচী। দলমণ্ডল হলুদ গলদেশ বিশিষ্ট নিখাদ শুভ্র, অভ্যন্তর

নয়নতারা এপোসিনাসি পরিবারের একটি আলংকারিক ফুল

বিবরণ: নয়নতারা (বৈজ্ঞানিক নাম: Catharanthus roseus ইংরেজি নাম: Madagascar periwinkle, rose periwinkle, or rosy periwinkle) এপোসিনাসি পরিবারের ক্যাথারান্থুস গণের একটি বহুবর্ষজীবী বীরুৎ বা উপ-গুল্ম। এদেরকে সাধারণত বাগানের আলংকারিক উদ্ভিদ হিসেবে টবে বা বাগানে রোপণ করা হয়। বর্ণনা: নয়নতারার পত্র মসৃণ, গ্রন্থিবিহীন, পত্রবৃন্ত ০.৮-১.৩ সেমি লম্বা, কাক্ষিক গ্রন্থি বিশিষ্ট, পত্রফলক ৫.০-৬.৫ X

ক্যাথারান্থুস হচ্ছে উদ্ভিদের এপোসিনাসি পরিবারের একটি গণ

বিবরণ: ক্যাথারান্থুস হচ্ছে এপোসিনাসি পরিবারের একটি গণের নাম। এরা খাড়া, বহুবর্ষজীবী বীরুৎ বা উপ-গুল্ম, কখনও কখনও কিছুটা সরস, মসৃণ বা অণুরোমশ কাণ্ড ও পত্রবিশিষ্ট। পত্র প্রতিমুখ, বিডিম্বাকার বা সংকীর্ণভাবে বল্লমাকার, গ্রন্থিবিহীন, অনুপপত্রী, কক্ষে গ্রন্থিবিশিষ্ট সবৃন্তক। পুষ্পবিন্যাস কাক্ষিক সাইম, একল বা জোড়াবদ্ধ। ক্যাথারান্থুস গণের উদ্ভিদগুলোর ফুল পুষ্প সাদা বা গোলাপি। বৃতি ৫-খন্ডিত,

করমচা এশিয়ার অপ্রচলিত টক ফল

বিবরণ: করমচা (বৈজ্ঞানিক নাম: Carissa carandas) এপোসিনাসি পরিবারের কেরিসা গণের একটি কন্টকযুক্ত, ঝোপালো গুল্ম বা ছোট বৃক্ষ। এরা দুগ্ধবত তরুক্ষীর বিশিষ্ট, কাঁটা সাধারণত সরল, ১.০-২.৫ সেমি লম্বা। পত্র অর্ধ-বৃন্তক, পত্রফলক ৩.৫-৬.৫ x ২.৫-৩.০ সেমি, বিডিম্বাকার, উপবৃত্তাকার বা আয়তাকার, অধিকাংশ ক্ষেত্রে উপরে প্রশস্ততম, নিম্নাংশে কীলকাকার, শীর্ষ স্থূলাগ্র। এদের পুষ্পদণ্ড ১.৫-২.০ সেমি লম্বা।

Top