You cannot copy content of this page
আপনি যা পড়ছেন

বাংলাদেশ পুঁজিবাদ অনুসারী সাম্রাজ্যবাদ দ্বারা নিপীড়িত শোষণমূলক দেশ

বাংলাদেশ বা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ (ইংরেজি: People’s Republic of Bangladesh) পুঁজিবাদ অনুসারী এবং সাম্রাজ্যবাদ দ্বারা নিপীড়িত দক্ষিণ এশিয়ার একটি দেশ। ১৯৭১ সালে পূর্ব বাংলার জনগণের জাতীয় মুক্তিসংগ্রাম সফল হলে দেশটি পাকিস্তান থেকে বিচ্ছিন্ন হয় এবং দক্ষিণ এশিয়ার রাজনৈতিক মানচিত্রে সার্বভৌম স্বাধীন দেশ হিসেবে এর অভ্যুদয় ঘটে। আরো পড়ুন

ইংল্যান্ড মানব ইতিহাসের বর্বরতম গনহত্যাকারী সাম্রাজ্যবাদী সামরিক দেশ

যুক্তরাজ্য একটি প্রধান সাম্রাজ্যবাদী দেশ। ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদ এখনো একটি প্রবল অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও সামরিক শক্তি। কিন্তু সাম্প্রতিক বছরগুলিতে ব্রিটেন তার প্রাক্তন অবস্থানগুলি সহ প্রাক্তন ক্ষমতার অনেকটাই হারিয়েছে। ব্রিটেন পুঁজিবাদী বিকাশের পথবতী প্রথম ইউরোপীয় দেশ। উনিশ শতকের মাঝামাঝি বহুবিধ কারণে সে ‘বিশ্বের কারখানা ও পৃথিবীর প্রধান বাণিজ্যিক শক্তির দাবিদার হয়ে ওঠে। বিশ শতকের গোড়ার দিকে বিশ্বের এক-চতুর্থাংশ ভূমি ও জনসংখ্যা তার উপনিবেশভুক্ত হয়। উপনিবেশ দখল ও লুণ্ঠন ছিল তার সম্পদ ও শক্তির একটি প্রধান উৎস। এক্ষেত্রে ব্রিটিশ ঔপনিবেশিকরা অবশ্যই তুলনাহীন। আরো পড়ুন

মায়ানমার জাতিদম্ভী পুঁজিবাদ অনুসারী শোষণমূলক রাষ্ট্র

মায়ানমার বা মিয়ানমার বা মায়ানমার ইউনিয়ন প্রজাতন্ত্র (ইংরেজি: Republic of the Union of Myanmar, পূর্বনাম: বর্মা ইউনিয়ন সমাজতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র) হচ্ছে ইন্দোচীন উপদ্বীপের উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত জাতিদম্ভী পুঁজিবাদ অনুসারী শোষণমূলক রাষ্ট্র। দেশটির মূল ভূভাগ থাইল্যাণ্ড, লাওস, চীন, ভারতবাংলাদেশের সীমান্তের সঙ্গে যুক্ত। এদেশ নদীর উপত্যকাকীর্ণ পর্বত ও মালভূমির দেশ, উষ্ণমণ্ডলীয় অরণ্যের দেশ। আরো পড়ুন

কম্বোডিয়া দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার একটি পুঁজিবাদ অনুসারী দেশ

কম্বোডিয়া বা কম্বোডিয়া রাজতন্ত্র বা কম্পুচিয়া (ইংরেজি: Kingdom of Cambodia) দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার একটি পুঁজিবাদ অনুসারী দেশ। ইন্দোচীন উপদ্বীপে অবস্থিত অন্যান্য দেশের মতাে কম্বােডিয়া দীর্ঘকাল বৈদেশিক উপনিবেশবাদীদের কবলে ছিল। প্রথমত দেশটিকে ফরাসীরা দখল করে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় এখানে জাপানীদের এবং যুদ্ধোত্তর কালে আবার ফরাসীদের দখল কায়েম হয়। মুক্তি ও স্বাধীনতার জন্য

দক্ষিণ এশিয়া হলো পাশ্চাত্যের দ্বারা নিপীড়িত অঞ্চল

দক্ষিণ এশিয়া হলো পাশ্চাত্যের দ্বারা নিপীড়িত অঞ্চল। এই অঞ্চল নেপাল, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, ভারত, ভুটান, মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কা রাষ্ট্রগুলো নিয়ে গঠিত। এছাড়াও জাতিসংঘ ঘোষিত দক্ষিণাঞ্চলীয় এশিয়া নামের উপ-অঞ্চলে উপরের দেশগুলো ছাড়াও আফগানিস্তান অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এই অঞ্চলের বৃহত্তম দেশ অবিভক্ত ভারতের শাসক ছিল ব্রিটিশ। লেনিন ব্রিটিশ ঔপনিবেশিকদের ‘বিশুদ্ধ চেঙ্গিস খাঁ’ নামে চিহ্নিত করেছিলেন।

পশ্চিম ইউরোপের পুঁজিবাদী দেশসমূহ

CIA- এর মতে বেলজিয়াম, ফ্রান্স, আয়ারল্যান্ড, লুক্রেমবুর্গ, নেদারল্যান্ড, মোনাকো, যুক্তরাজ্য এই ৭টি দেশ নিয়ে পশ্চিম ইউরোপ গঠিত হয়েছে। এছারাও পুর্তগাল, স্পেন, এন্ডরা দক্ষিণ-পশ্চিম ইউরোপের অন্তর্ভুক্ত দেশ যা পশ্চিম ইউরোপের দেশ হিসাবে আমারা মনে করতে পারি। আরো পড়ুন

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া হলো পাশ্চাত্যের দ্বারা নিপীড়িত অঞ্চল

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া উন্নয়নশীল বিশ্বের এক বিস্তৃত জনবহুল অঞ্চল। প্রায় ১০ লক্ষ বর্গকিলােমিটার বিস্তৃত এই অঞ্চলের জনসংখ্যা আফ্রিকা ও এশিয়ার মােট জনসংখ্যার প্রায় ৬০ ভাগ। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া দুইটি ভৌগোলিক অঞ্চলের সমষ্টি: এশীয় মূল ভূখণ্ডে অবস্থিত অংশ, এবং এর পূর্বে ও দক্ষিণ-পূর্বে সমুদ্রে অবস্থিত বিভিন্ন দ্বীপপুঞ্জ ও বৃত্তচাপাকৃতি দ্বীপপুঞ্জ। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার মূল

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঞ্চলের অর্থনৈতিক ব্যবস্থা

লেনিন লিখেছিলেন : “সারা ইউরোপ থেকে সামান্য ছোট মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিশাল এলাকা এবং দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের অর্থব্যবস্থার ব্যাপক বৈচিত্র্য প্রধান বিভাগগুলির পৃথক পর্যালোচনাকে একান্তই অপরিহার্য করে তোলে। লেনিনের মতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তিনটি প্রধান অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিভক্ত: শিল্পপ্রধান উত্তর, প্রাক্তন দাসপ্রথাধীন দক্ষিণ এবং নতুন বসতাঞ্চল পশ্চিম। আরো পড়ুন

লাতিন আমেরিকা প্রসঙ্গে

লাতিন আমেরিকা বলতে উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশের এমন অঞ্চলগুলোকে বোঝায় যেখানকার জনগণ মূলত স্পেনীয় এবং পর্তুগিজ ভাষায় কথা বলে। রাষ্ট্র বলতে সাধারণত ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, কিউবা, বলিভিয়া, চিলি, কলম্বিয়া, ইকুয়েডর, প্যারাগুয়ে, পেরু, ভেনেজুয়েলা, নিকারাগুয়া, মেক্সিকোসহ আরো কয়েকটি দেশকে বোঝানো হয়। লাতিন আমেরিকার দেশগুলি প্রাকৃতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক বৈশিষ্ট্যে সুচিহ্নিত। তাসত্ত্বেও

চিলি দক্ষিণ আমেরিকার পুঁজিবাদ অভিমুখী শোষণমূলক নিপীড়িত দেশ

চিলি (ইংরেজি: Chile) দক্ষিণ আমেরিকার পুঁজিবাদ অভিমুখী শোষণমূলক এবং সাম্রাজ্যবাদ দ্বারা নিপীড়িত একটি দেশ। গণপ্রজাতন্ত্রী এই রাষ্ট্রটি দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূল বরাবর ৪ হাজার মাইলেরও বেশি দীর্ঘ। রাজধানী সান্তিয়াগাে (জনসংখ্যা ৪০ লক্ষ) দেশের প্রায় কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত। আরো পড়ুন

Top