আপনি যা পড়ছেন

পর্তুগাল ইউরোপের সাম্রাজ্যবাদী দেশ

আইবেরীয় উপদ্বীপের আটলান্টিক তীরবর্তী পশ্চিম ভাগে অবস্থিত পোর্তুগাল অপেক্ষাকৃত ক্ষুদ্র দেশ। তার আয়তন ১০ হাজারের বর্গকিলোমিটারের সামান্য বেশি, জনসংখ্যা প্রায় এক কোটি। অর্ধশতক ধরে এটি প্রতিক্রিয়াশীল বুর্জোয়া চক্র, বড় জমিদার ও সামরিক আমলাতান্ত্রিক চক্র দ্বারা সমর্থিত ফাশিস্ট একনায়কত্বের শাসন সহ্য করেছে। ১৯৭৪ সালে জনসাধারণের সমর্থনে সৈন্যবাহিনীর আন্দোলন ফাশিস্ট শাসক গোষ্ঠীকে উৎখাত করে। পর্তুগালের বিপ্লব দেশে রাষ্ট্রীয় একচেটিয়ার বিলোপ ঘটিয়েছে, একচেটিয়া পুঁজির উপর প্রবল আঘাত হেনেছে, কল-কারখানা মেহনতিদের নিয়ন্ত্রণে এনেছে এবং কৃষিসংস্কারের সচনা করেছে। আরো পড়ুন

স্পেন ইউরোপের সাম্রাজ্যবাদী দেশ

দক্ষিণ-পশ্চিম ইউরোপের আইবেরীয় উপদ্বীপের চার-পঞ্চমাংশের বেশি এলাকাই স্পেনের অন্তর্ভুক্ত। এই বিশাল দেশটি লোহা, তামা, সীসা, দস্তা, টাংস্টেন, ইউরেনিয়াম ও অন্যান্য আকরিকসমৃদ্ধ। তার পারদ মজুদের পরিমাণ পুজিবাদী বিশ্বের মধ্যে বহত্তম। আরো পড়ুন

জাতীয় মুক্তি কাউন্সিলের সংগ্রামের বিকলাঙ্গ রূপ

জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল বা সংক্ষেপে জামুকা হচ্ছে কমরেড বদরুদ্দীন উমরের সভাপতিত্বে পরিচালিত কয়েকটি সংগঠনের সমাহার। সংগঠনটি তার ঘোষণায় আশু কর্মসূচি এবং সরকার ও সংবিধান উল্লেখ করেছে যাতে ১৮ দফা কর্মসূচি ঘোষিত হয়েছে। তাঁদের মতে এই ১৮ দফা কর্মসূচি বাস্তবায়ন সম্ভব হবে সেই জনগণ দ্বারা যারা “শাসক শ্রেণীর বিরুদ্ধে সারা দেশে সব রকম কার্যকর পদ্ধতিতে গণতান্ত্রিক সংগ্রাম পরিচালনা করে চলবে এবং এই সংগ্রামের শীর্ষ পর্যায়ে গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে রাজনৈতিক ক্ষমতা অর্জন করবে।”[১] আরো পড়ুন

অস্ট্রিয়া ইউরোপের ক্ষুদ্র পার্বত্য দেশ

অস্ট্রিয়া প্রতিবেশী সুইজারল্যান্ডের মতোই একটি ক্ষুদ্র পার্বত্য দেশ। এটি পুর্ব আলপসের অন্তর্গত এবং ডানিয়ুব নদীর উচ্চ অববাহিকায় অবস্থিত। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নাৎসি জার্মানির পতনের ফলে জার্মানির অঙ্গ-রাজ্য থেকে অস্ট্রিয়া মুক্তিলাভ করে এবং তার পুনঃপ্রতিষ্ঠা ঘটে। ১৯৫৫ সাল থেকেই অস্ট্রিয়া স্থায়ী নিরপেক্ষতার নীতি অনুসরণ করছে এবং এটি তার জাতীয় অর্থনীতি ও সংস্কৃতির বিকাশ নিশ্চিত করেছে। আরো পড়ুন

সুইজারল্যান্ড ইউরোপীয় পুঁজিবাদী দেশ

সুইজারল্যান্ড স্থায়ী নিরপেক্ষ দেশ ঘোষিত হওয়ার পর দেড় শতাধিক বছর অতিক্রান্ত হয়েছে। এই নীতিপালন আলপস পর্বতবর্তী এই দেশের অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক উন্নয়নের পক্ষে বহুলাংশে সহায়ক ছিল। ট্রান্স-আলপসীয় রেলপথ ও সড়ক এবং রাইন নদীর মাধ্যমে সুইজারল্যাণ্ড পশ্চিম ইউরোপীয় দেশগুলির সঙ্গে যুক্ত। আরো পড়ুন

লেনিনবাদী সংগ্রামের রূপ প্রসঙ্গে

বিশ্ব সাম্যবাদী আন্দোলনের মহান বিপ্লবী ভ্লাদিমির ইলিচ লেনিন সাম্যবাদীদের সংগ্রামের রূপ প্রসঙ্গে বিভিন্ন কথা লিখেছেন যা বর্তমানে লেনিনবাদী সংগ্রামের রূপ অর্থে পরিচিত। সাম্যবাদী পার্টিগুলোর কাজ করার পদ্ধতি কিরূপ হবে তা নিয়ে লেনিন মানবজাতির সমস্ত লড়াই সংগ্রামের সারমর্ম উপস্থাপন করেছেন। পার্টি গঠনের আরম্ভকালীন সময় থেকে জীবনের শেষদিন পর্যন্ত তিনি সংগ্রামের বহুমুখী

লুক্সেমবুর্গ ইউরোপের ক্ষুদ্র দেশ

লুক্সেমবুর্গ একটি ক্ষুদ্র মধ্য ইউরোপীয় দেশ। এর আয়তন ২৬০০ বর্গকিলোমিটার, জনসংখ্যা ৩ লক্ষ ৬০ হাজার এবং তন্মধ্যে ৮০ হাজারই রাজধানী লুক্সেমবুর্গের বাসিন্দা। লুক্সেমবুর্গ ইউরো অঞ্চল ভুক্ত একটি দেশ; তাই এখানকার প্রচলিত মুদ্রা নাম হলো ইউরো। । তবে এই দেশের মাথাপিছু জাতীয় আয়ের হিসেবে এটি পৃথিবীর অন্যতম ধনী একটি দেশ: লুক্সেমবুর্গের মাথাপিছু আয় বাৎসরিক প্রায় ৮৮ হাজার মার্কিন ডলার। আরো পড়ুন

Top