You cannot copy content of this page
আপনি যা পড়ছেন

ময়মনসিংহে অবরুদ্ধ সময়ের কবিতা পাঠের অনুষ্ঠানে পঠিত বিবৃতি

ভারতের শ্রমিক কৃষক নিপীড়িত জাতিসত্তাসহ শোষিত নির্যাতিত অপমানিত বঞ্চিত মানুষের সার্বিক মুক্তির সংগ্রামে যে সকল কবি লেখক আইনজীবী, মানবাধিকার কর্মী, বুদ্ধিজীবী, সাংবাদিকরা নিরলস সংগ্রাম ও সংগঠন করে আসছেন—বর্তমান ভারতের ক্ষমতাসীন উগ্র হিন্দুত্ববাদী নরেন্দ্র মোদী সরকার তাদের দমনে এক রাষ্ট্রীয় অভিযানে নেমেছে। গত ২৮ আগস্ট ভারতের হায়দ্রাবাদ, মুম্বাই, পুনা, দিল্লিসহ বিভিন্ন শহরে আরো পড়ুন

খুলনায় অবরুদ্ধ সময়ের কবিতা পাঠের অনুষ্ঠানে পঠিত বিবৃতি

আমরা অবরুদ্ধ সময়ের কবিতা সাম্প্রতিক সময়কে ধারণ করে আগামীকে নির্মাণ করার লড়াই করছি। বাংলাদেশে বর্তমানে চকবাজার, বনানীসহ বিভিন্ন স্থানে অগ্নিকাণ্ডে মানুষের মৃত্যুকে আমরা রাষ্ট্রের গণহত্যা হিসাবে দেখতে চাই। অপরিকল্পনা এবং অব্যবস্থাপনার বিপক্ষে আমাদের সংগ্রাম অব্যাহত আছে। দেশে দেশে গণতন্ত্রের সংকট, ভিন্নমত দমন, বাক স্বাধীনতার উপর হস্তক্ষেপ এখন নিত্যনৈমিত্তিক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। আরো পড়ুন

সুবোধ ঘোষ একজন বাংলা কথাসাহিত্যিক

সুবোধ ঘোষ (জন্ম: ১৯০৯ – মৃত্যু: ১০ মার্চ, ১৯৮০) একজন বাংলা কথাসাহিত্যিক। বাংলাভাষী পাঠকসমাজে সুবোধ ঘোষ এখনও অনেক প্রাসঙ্গিক। বিশেষ করে তার সৃষ্ট ‘অযান্ত্রিক’ এবং ‘ফসিল’-এর মতো দুটি গল্পের জন্য বাংলা সাহিত্যের যুগান্তকারী স্থান অধিকার করে আছেন। সুবোধ ঘোষের জন্ম বিহারের (বর্তমান ঝাড়খণ্ডের) হাজারিবাগের এক নিম্নমধ্যবিত্ত কায়স্থ পরিবারে, ১৯০৯ সালের ১৪ সেপ্টেম্বর। চার পুরুষের বসতি তৎকালীন ঢাকা জেলার বিক্রমপুরে হলেও তার বাবা ছেলেকে আশৈশব বড়ো করে তুলেছিলেন হাজারিবাগে। জেলখানার অধস্তন চাকুরে শ্রী সতীশচন্দ্র ঘোষ ও শ্রীমতী কনকলতাদেবীর সাত সন্তানের মধ্যে সুবোধ ঘোষ দ্বিতীয়। আরো পড়ুন

Top