আপনি যা পড়ছেন

বসন্ত মঞ্জরী বা গ্লিরিসিডিয়া বাগান ও রাস্তার ধারে শোভাবর্ধক উদ্ভিদ

বসন্ত-মঞ্জরী

বাগান ও রাস্তার ধারে শোভাবর্ধক উদ্ভিদ হিসেবে রোপণ করা হয়। কাঠ জ্বালানী হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এই গাছ বেড়া বানানো, ছায়া প্রদানকারী, সবুজ সার ও পশুখাদ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়। মূল, বাকল ও বীজ বিষাক্ত। পাতা মানুষের জন্য বিষাক্ত যদিও গ্রীষ্মমণ্ডলীয় অঞ্চলের কতিপয় এলাকায় তা খাওয়া হয়। আরো পড়ুন

যুদ্ধবিরোধী আন্দোলন হচ্ছে দেশের সশস্ত্র সংঘাত শুরু করা বা চালিয়ে যাওয়ার বিরোধিতা

একটি যুদ্ধবিরোধী আন্দোলন (ইংরেজি: Antiwar movement) হচ্ছে এমন একটি সামাজিক আন্দোলন, যাতে হয়তোবা যুদ্ধের যথাযথ শর্তহীন কারণ বিদ্যমান থাকা সত্ত্বেও সাধারণত কোনও নির্দিষ্ট দেশের সশস্ত্র সংঘাত শুরু করার বা চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করা হয়। যুদ্ধবিরোধী শব্দটি শান্তিবাদকেও বোঝাতে পারে, যা বিরোধের সময় সামরিক শক্তির সমস্ত রকমের ব্যবহারের বিরোধিতা অথবা

হৃদয় বিদ্যা

বাসন্তী নিশ্চই এই মধ্য রাতে ঘুমাচ্ছে কিংবা রাত্রির অন্ধকারে খোয়াচ্ছে যৌবন, আর আমি উদ্ভিদের নাম মুখস্ত করতে করতে উদ্ভিদ একজন… ‘হিবিসকাসরোসা সাইনেনসিস, নিলাম্বু নিউসিফেরা, ধুতুরা মেটেল, ম্যাংগিফেরা ইন্ডিকা…।’ আরো পড়ুন

কলাবতী জলাশয়ের পাশে জন্মানো অলংকারিক কন্দজাতীয় বিরুৎ

কলাবতী

কলাবতী ক্রান্তীয় আমেরিকা ও এশিয়ার প্রজাতি। এটি কন্দজ উদ্ভিদ হওয়ায় বংশ বিস্তার হয় মূলাকার কান্ড ও বীজের মাধ্যমে। বীজ থেকে জন্মানো গাছে ৩ বছর পর ফুল ধরে। কান্ডের আগায় লম্বা ডাঁটায় ফুল ফোটে। ফুল বেশ বড় হয়। ফুলের রং হলুদ, লাল, গোলাপী, কমলা, পাটকিলে, দাগযুক্ত ইত্যাদি হয়ে থাকে। ফুল ও ফল ধারণ এপ্রিল-নভেম্বর মাস পর্যন্ত। বুনো গাছ জলাভূমিতে ভাল জন্মে। জুন মাসে কান্দগুলি তুলে জুলাই মাসে লাগানোর আগে কিছুদিন ফেলে রাখা ভালো। গাছে বেশি সার প্রয়োগ করা ক্ষতি।[৩] আরো পড়ুন

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের রণক্ষেত্র এবং প্রচারণাগুলো হচ্ছে যুদ্ধের ধরন, রণক্ষেত্র এবং প্রচারণার রূপ

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের রণরঙ্গ

বহুবিধ ঘটন-অঘটনের দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের রণক্ষেত্র এবং প্রচারণাগুলি (ইংরেজি: Theaters and campaigns of World War II) দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সামরিক অভিযান ও যুদ্ধের ধরন অনুসারে সমসাময়িক যুদ্ধগুলিকে, তারপরে রণক্ষেত্র এবং তারপরে প্রচারণা পদ্ধতি অনুসারে উপ-ভাগে বিভক্ত করে। ব্যাটল অব আল আমিন  দুই ফিল্ড মার্শালের দ্বৈরথ নাকি ব্রিটিশ-জার্মান সংঘাত কি বলে বিবরণ দিলে সবচেয়ে উপযুক্ত

পৃথিবী এখন

পৃথিবী এখন কাঁদছে এই বিষণ্ণ রাত্রিতে, মেঘে ঢাকা মহাশূন্যে তমিস্রার আঁধার, সচেতন বিশ্বাসে জেগে উঠে ধূ ধূ বালুচর, জলের আত্মজ ওরা আপন মহিমায়, পলির মূল্য শোধে বিভীষিকা হয়ে আরো পড়ুন

বেনিতো মুসোলিনি ছিলেন ইতালীয় জাতীয় ফ্যাসিবাদী দলের নেতা ও সাংবাদিক

বেনিতো এমিলকেয়ার আন্দ্রেয়া মুসোলিনি (ইংরেজি: Benito Amilcare Andrea Mussolini, ২৯ জুলাই ১৮৮৩ - ২৮ এপ্রিল ১৯৪৫) ছিলেন একজন ইতালীয় রাজনীতিবিদ এবং সাংবাদিক যিনি জাতীয় ফ্যাসিবাদী পার্টির নেতা ছিলেন। তিনি ১৯২২ থেকে ১৯৪৩ সাল পর্যন্ত ইতালির প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শাসন করেছিলেন; তিনি গণতন্ত্রের ভান ছেড়ে দিয়ে স্বৈরশাসন প্রতিষ্ঠা করার পরে ১৯২৫ সাল

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের কারণ সাম্রাজ্যবাদ, নাৎসি পার্টির ক্ষমতা দখল এবং ইতালি-জাপানের সমরবাদ

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শীর্ষস্থানীয় কারণগুলির মধ্যে আছে অ্যাডলফ হিটলারের ১৯৩৩ সালে জার্মানির ক্ষমতা দখল এবং নাৎসি পার্টির রাজনৈতিক কর্তৃত্ব গ্রহণ, যারা ১৯১৯ সালের ভার্সাই চুক্তি লঙ্ঘন করে আগ্রাসী বিদেশী নীতি নির্মমভাবে প্রচার করেছিল, চীনের বিরুদ্ধে জাপানী সামরিকবাদ, ইথিওপিয়ার বিরুদ্ধে ইতালির আগ্রাসন। আরো পড়ুন

মহামন্দা ছিল একটি বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক মন্দা যা ১৯৩০-এর দশকে যুক্তরাষ্ট্রে শুরু হয়

জ্ঞান অনুসরণ

মহামন্দা (ইংরেজি: The Great Depression) ছিল একটি বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক মন্দা যা বেশিরভাগ ১৯৩০-এর দশকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে শুরু হয়েছিল। মহামন্দার সময় বিভিন্ন দেশ জুড়ে ভিন্নভাবে চোখে পড়ে; বেশিরভাগ দেশগুলিতে এটি ১৯২৯ সালে শুরু হয়েছিল এবং ১৯৩০-এর দশকের শেষভাগ পর্যন্ত স্থায়ী হয়েছিল। এটি ছিল বিংশ শতাব্দীর দীর্ঘতম, গভীরতম এবং সবচেয়ে বিস্তৃত মন্দা।[১] বিশ্ব অর্থনীতি কত দ্রুত হ্রাস পেতে পারে তার উদাহরণ হিসাবে সাধারণত মহামন্দা শব্দটি ব্যবহৃত হয়।[২] আরো পড়ুন

হাওর

হাওর

জলজ বিস্তারে কেঁপে উঠে হাওর পাহাড়ী ঢলের তোরে ধুয়ে যায় বিচ্ছিন্ন দ্বীপের মতো খাসিকোণা গ্রাম। প্রবল ঢেউয়ের মাঝে দোলে, সংগ্রামী কেরায়ার দেহ, বিল থেকে উঠে আসে ইজারার মাছ, ইজারার হাতগুলো ছিনিয়ে আনে অপুষ্ট শরীরগুলোর গ্রাস। এখানে হানা দেয় বন্যা ও মহামারী আরো পড়ুন

Top
You cannot copy content of this page