আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > Author: Anup Sadi

রুটেসি হচ্ছে সপুষ্পক উদ্ভিদের সাপিনডালেস বর্গের একটি পরিবার

ভূমিকা: রুটেসি (Rutaceae) হলো সপুষ্পক উদ্ভিদের মধ্যে সাপিনডালিস (ইংরেজি: Sapindales) বর্গের একটি পরিবার। এই পরিবারে আনুমানিক ১৬০টির মতো গণ রয়েছে এবং প্রজাতি আছে প্রায় ১৬০০টি।  রুটেসি পরিবারের গণগুলোর ভেতরে  সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ গণ হলো সাইট্রাস বা লেবু-কমলা জাতীয় ফল। এই পরিবারের সব ফলেই ফুল হয় এবং ফুল সুগদন্ধযুক্ত। আকার ও গঠনের দিক

সিবা হচ্ছে বোম্বাসি পরিবারের সপুষ্পক উদ্ভিদের গণ

সিবা হচ্ছে বোম্বাসি পরিবারের সপুষ্পক উদ্ভিদের একটি গনের নাম। এই গণের প্রজাতির গাছগুলো বৃহৎ আকারের বৃক্ষ এবং ফুল বিভিন্ন রঙের হতে পারে। বাংলাদেশের এই গণের ১টি প্রজাতি আছে যার নাম শ্বেত শিমুল বা সাদা শিমুল। সিবা গণের উদ্ভিদগুলো মধ্যমাকৃতির বৃক্ষ। এদের পত্র আঙ্গুলাকৃতি, যৌগিক, উপপত্র আশুপাতী। আরো পড়ুন

পাহাড়ী শিমুল দক্ষিণ ও দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার বৃহৎ সপুষ্পক বৃক্ষ

বন শিমুল, পাহাড়ী শিমুল, শিমেন গাছ (ইংরেজি: Showy Silk Cotton Tree, Silk Cotton Tree) বোম্বাসি পরিবারের বোম্বাক্স গণের বড় আকারের পাতাঝরা সপুষ্পক উদ্ভিদ। পাহাড়ি শিমুল বৃহৎ বৃক্ষ, প্রায় ৩০ মিটার উঁচু, ছাল সাদাটে, কখনও শক্ত গাত্র কন্টক যুক্ত, কখনও কন্টক অনুপস্থিত। আরো পড়ুন

জনতা কাকে বলে?

জনগণ শব্দটির সমার্থক জনতা (ইংরেজি: Masses বা Crowd) শব্দটিকে অনেক সময় ভিন্নভাবে ব্যবহার করা। হয়। ইংরেজি mob (ইংরেজি: উন্মত্ত জনসাধারণ) কথাটির প্রতিশব্দ হিসেবে জনতা শব্দটির ব্যবহার দেখা যায়। সেই নিরিখে জনতা হলো এমন এক জনসমষ্টি যারা চিন্তাভাবনার পরিবর্তে, সাময়িক উত্তেজনার বশে উচ্ছৃঙ্খল এবং অনেক সময় হিংসাত্মক আচরণে লিপ্ত হয়। আরো পড়ুন

জনগণতন্ত্র কাকে বলে

জনগণতন্ত্র (ইংরেজি: People’s Democracy) হচ্ছে দ্বিতীয় বিশ্ব-মহাযুদ্ধের পর পূর্ব ইউরােপ ও এশিয়ার বিভিন্ন দেশে কমিউনিস্টদের প্রভাবে গঠিত নতুন ধরনের রাষ্ট্রব্যবস্থা। সােভিয়েত রাষ্ট্রতাত্ত্বিকেরা জনগণতান্ত্রিক অর্থাৎ পিপলস ডেমােক্রেসি নামে সেগুলিকে অভিহিত করেন। মতাদর্শের বিচারে সেগুলির অবস্থান সােভিয়েত ইউনিয়নের গণতান্ত্রিক সমাজতন্ত্রের নিচে। আরো পড়ুন

জনগণ কাকে বলে

সাধারণ দৃষ্টিতে জনগণ (ইংরেজি: People) শব্দটির অর্থ হলো যে নির্দিষ্ট কোনও ভূখণ্ডের অধিবাসী যাদের ভাষা ও সাহিত্য একই এবং বিশেষ এক ঐতিহাসিক ধারাবাহিকতা থাকে ও আচার ব্যবহার, বেশভূষা, মূল্যবােধ ও সংস্কৃতি প্রায় অভিন্ন, তারা সমাষ্টগতভাবে সেখানকার জনগণ হিসাবে পবিচিত। সমষ্টিগতভাবে এই বৈশিষ্ট্যগুলি সমাজবন্ধনের প্রকৃত সূত্র, জাতি গঠনের প্রধান উপাদান। আরো পড়ুন

জওহরলাল নেহরু ছিলো ভারতের জনগণ গণতন্ত্র ও স্বাধীনতার শত্রু

জওহরলাল নেহেরু (১৮৮৯-১৯৬৪, Jawaharlal Nehru) ছিলো ভারতের জাতীয় কংগ্রেসের তিনবারের সভাপতি, ভারতের অবৈধ প্রথম প্রধানমন্ত্রী, ভারতের সামন্তবাদ-জমিদার শ্রেণির মিত্র, ব্রিটিশ সাম্রাজ্যবাদের প্রতিনিধি, হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা ও সাম্প্রদায়িকতার ঝান্ডাধারী, সাম্যবাদ ও সমাজতন্ত্রের বিরোধীতাকারী, ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের শত্রু, কৃষক ও শ্রমিকের আরো পড়ুন

ছন্নছাড়া সর্বহারা কাকে বলে

বুর্জোয়া শ্রেণি থেকে বিচ্ছিন্ন এবং সর্বহারার হঠকারী ও ছন্নছাড়া অংশটি ছন্নছাড়া সর্বহারা বা ছন্নছাড়া প্রলেতারিয়েত (ইংরেজি: Lumpen-proletariat) নামে পরিচিত। লুম্পেন শব্দটি জার্মান। মার্কস তাঁর ‘এইটিন্থ ব্রুমেয়র’ গ্রন্থের পঞ্চম অধ্যায়ে এক ধরনের ব্যক্তির কথা বলেছেন যারা সব শ্রেণির কাছেই জঞ্জাল-বিশেষ। উচ্ছৃঙ্খল এই জনসম্প্রদায়ভুক্ত লােকেরা বুর্জোয়া শ্রেণি থেকে বিচ্ছিন্ন, হঠকারী ও ছন্নছাড়া। আরো পড়ুন

চুক্তি কাকে বলে

বিভিন্ন রাষ্ট্রের মধ্যে সম্পাদিত সম্মতিবা সংবিদা (agreement) কথাটির নানা সমার্থক শব্দ আছে: সন্ধি, প্রচল, অঙ্গীকার, বিধি, ঘােষণা, পররাষ্ট্রীয় আচরণবিধি। এই সব শব্দের কোনও বাঁধাধরা অর্থ নেই। কিন্তু চুক্তি শব্দটির মধ্যে দিয়ে একটি আনুষ্ঠানিকভাবে সম্পাদিত সংবিদা প্রকাশ পায়। অন্য শব্দগুলি সে তুলনায় কম অথবা সীমিত আনুষ্ঠানিকতা জ্ঞাপন করে। আরো পড়ুন

চিরস্থায়ী বিপ্লব কাকে বলে

চিরস্থায়ী বিপ্লব (ইংরেজি: Permanent Revolution) কথাটি প্রথম ব্যবহার করেছিলেন কার্ল মার্কসফ্রিডরিখ এঙ্গেলস; ১৮৫০ খ্রিস্টাব্দে অনুষ্ঠিত কমিউনিস্ট লিগের সাধারণ সংসদে এই অর্থে যে বুর্জোয়া শ্রেণি যত শীঘ্র সম্ভব বিপ্লবের সমাপ্তি ঘটাতে চাইবে, ততই আমাদের কাজ হবে সেটাকে চিরস্থায়ী করা, যত দিন না পৃথিবীর প্রধান দেশগুলিতে সর্বহারা শ্রেণি রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করছে! আরো পড়ুন

Top