You cannot copy content of this page
আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > প্রাণ > প্রাণী > সাপ > দাগিলেজা সবুজ বোরা বাংলাদেশের বিপন্ন প্রজাতির সাপ

দাগিলেজা সবুজ বোরা বাংলাদেশের বিপন্ন প্রজাতির সাপ

বৈজ্ঞানিক নাম: Trimeresurus erythrurus (Cantor, 1839) প্রতিনাম: Trigonodactylus erythrurus Cantor, 1839; Trimeresurus bicolor Gray, 1853. Trimeresurus erythrurus Günther, 1864. ইংরেজি নাম: Spot-tailed Pit Viper স্থানীয় নাম: দাগিলেজা সবুজ বোরা। জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস জগৎ/রাজ্য: Animalia বিভাগ: Chordata অবিন্যাসিত: Reptilia বর্গ: Squamata পরিবার: Viperidae গণ: Trimeresurus প্রজাতি: Trimeresurus erythrurus

ভুমিকা: দাগিলেজা সবুজ বোরা Viperidae  পরিবারের Trimeresurus গণের সবুজ বর্ণের আঁইশযুক্ত সরীসৃপ প্রাণী।

বর্ণনা: পুরুষ সবুজ বোরা সাপের দৈর্ঘ্য ৫৭.৫ সেমি, লেজের দৈর্ঘ্য ১২ সেমি; স্ত্রী সাপের দৈর্ঘ্য প্রায় ১০০ সেমি; লেজের দৈর্ঘ্য ১৬ সেমি (Smith, 1943; Leviton, et al., 2003)। সদ্য পরিস্ফুটিত সাপের দৈর্ঘ্য ২৩-২৬ সেমি (Whitaker and Captain, 2004)।

মাথা ও দেহের দৈর্ঘ্য পিছনের অংশ উজ্জ্বল সবুজ রঙের, পার্শ্বীয়ভাগ ও নিচের দিকের অংশ ঈষৎ থেকে হলদে সবুজ রঙের । চোখের পিছন থেকে লেজ পর্যন্ত দেহের পার্শ্বে সাদা অঙ্কীয়-পার্শ্বীয় ব্যান্ড থাকে, স্ত্রী সাপের ক্ষেত্রে এই ধরনের ব্যান্ড অস্পষ্ট বা অনুপস্থিত। দেহের অঙ্কীয়ভাগ ঈষৎ বা হলদে-সবুজ রঙের। লেজ ছোট, আঁকড়ে ধরার ক্ষমতা রয়েছে, ছোট ছোট দাগ থাকে বা বাদামী রঙের ফোঁটা থাকে (Whitaker and Captain, 2004) ।

আঁইশের বিন্যাস: পৃষ্ঠীয় আঁইশ সুস্পষ্ট শিরযুক্ত এবং ২৩/২৫: ২৩/২৫ : ১৭/১৯ সারিতে সাজানো থাকে; পুরুষ সাপের অঙ্কীয় আঁইশের সংখ্যা ১৫৬-১৬৫টি এবং ১৫১-১৭৪টি; পায়ুর আঁইশ; সুপ্রাঅকুলার অবিভক্ত বা কখনো বিভক্ত; টেম্পোরাল আঁইশ অবিভক্ত এবং শিরযুক্ত Whitaker and Captain, 2004)।

স্বভাব ও বাসস্থান: T. erythrurus গাছে, ঝোপ-জঙ্গলে এবং জলাধারে নিকটবর্তী এলাকায় বাস করে। এরা নিশাচর এবং গেছো স্বভাবের, এরা সাধারণত বাঁশ ঝোপে, ভূমি হতে কয়েক ফুট উঁচু ঝোপ-জঙ্গলে বাস করে। এই প্রজাতির সাপের দেহের রঙ গাছের পাতার মতো হওয়ার কারণে এদেরকে শনাক্ত করা কঠিন ব্যাপার। এরা খাদ্য হিসেবে ছোট স্তন্যপায়ী প্রাণী, পাখি, টিকটিকি এবং ব্যাঙ গ্রহণ করে। এরা বেশ লাজুক প্রকৃতির সাপ এবং এদের বেশ সন্নিকটে যাওয়া যায় তবে কোনো প্রকার যান্ত্রিক অসুবিধার সম্মুখীন হলে এরা দ্রুত কামড়ায়।

বিস্তার: এই প্রজাতির সাপ বাংলাদেশে সচরাচর নয় এবং কখনো সিলেট, চট্টগ্রাম ও সুন্দরবনের ঝোপ-জঙ্গলে পাওয়া যায়। এছাড়াও এই প্রজাতির সাপ ভারত ও মিয়ানমার এ পাওয়া যায়।

বাংলাদেশে এর অবস্থান: এই প্রজাতির সাপ বাংলাদেশে বিপন্ন (IUCNBangladesh, 2000)

তথ্যসূত্র:

১. সুপ্রিয় চাকমা (সম্পা.), বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ: উভচর প্রাণী ও সরীসৃপ, খণ্ড: ২৫ (ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি, ২০০৯), পৃ. ১৯২-১৯৩।

আরো পড়ুন:  সাদাঠোটি সবুজ বোরা সাপ এশিয়ার পাহাড়ি বিষধর সাপ
Dolon Prova
জন্ম ৮ জানুয়ারি ১৯৮৯। বাংলাদেশের ময়মনসিংহে আনন্দমোহন কলেজ থেকে বিএ সম্মান ও এমএ পাশ করেছেন। তাঁর প্রকাশিত প্রথম কবিতাগ্রন্থ “স্বপ্নের পাখিরা ওড়ে যৌথ খামারে”। বিভিন্ন সাময়িকীতে তাঁর কবিতা প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়া শিক্ষা জীবনের বিভিন্ন সময় রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক কাজের সাথে যুক্ত ছিলেন। বর্তমানে রোদ্দুরে ডট কমের সম্পাদক।

Leave a Reply

Top