Main Menu

গোরা লেবু এশিয়ার জনপ্রিয় ফল

বৈজ্ঞানিক নাম: Citrus limon (L.) Burm. f., Fl. Ind.: 173 (1768). সমনাম: Citrus medica L. var. limon L. (1753), Citrus linonun Risso (1813), Citrus medica L. subsp. limonia Hook. f. ex Engl. (1897). ইংরেজি নাম: Lemon. স্থানীয় নাম: করনা লেবু, গোরা লেবু। জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস জগৎ/রাজ্য: Plantae বিভাগ: Angiosperms অবিন্যাসিত: Eudicots অবিন্যাসিত: Rosids বর্গ: Sapindales পরিবার: Rutaceae গণ: Citrus প্রজাতির নাম: Citrus limon

ভূমিকা: গোরা লেবু বা গুড়া লেবু (বৈজ্ঞানিক নাম: Citrus limon ইংরেজি নাম: Lemon) হচ্ছে রুটেসি পরিবারের সাইট্রাস গণের সপুষ্পক একটি উদ্ভিদ। এই লেবু বাংলাদেশ ভারতে খুব জনপ্রিয়, রসালো এবং সহজলভ্য।

বর্ণনা: গোরা লেবু হচ্ছে বৃক্ষ, ৩-৬ মিটার উঁচু, বলিষ্ঠ দৃঢ় কন্টকযুক্ত। পত্র একপত্রক, বৃন্তক, বৃন্ত দাগযুক্ত বা সরু উপাঙ্গযুক্ত, শীর্ষ সন্ধিযুক্ত পত্রফলকের গোড়ায়, পত্রফলক আয়তাকার থেকে উপবৃত্তাকার-ডিম্বাকার, ৬.০-১২.৫ x ৩-৬ সেমি, গোড়া স্থূলা থেকে গোলাকার, শীর্ষ অর্ধসূক্ষ্মাগ্র বা স্থূলা, প্রান্ত বরাবর গ্রন্থিল-করাতদস্তুর।

পুষ্পবিন্যাস কাক্ষিক ঘন রেসিম, প্রায় ৫-৭ পুষ্পক। পুষ্প উভলিঙ্গ বা পুংপুষ্পক, ৫অংশক, কুঁড়িতে রক্ত-বেগুনি। বৃতি কলসাকার, বৃত্যংশ অর্ধবর্তুলাকার, ক্ষুদ্র। পাপড়ি ডিম্বাকার-আয়তাকার, স্থূলা, ১৫-২০ x ৩-৫ মিমি, চর্মবৎ, অক্ষাবিমুখে রক্ত-বেগুনি দাগযুক্ত, অক্ষমুখে সবুজাভ-সাদা।

পুংকেশর ৩০-৪০টি, পুংদন্ড গোড়ায় একগুচ্ছী বা অনিয়তভাবে বহুগুচ্ছীয়, উপরিভাগ মুক্ত, পরাগধানী আয়তাকার, খাটো তীক্ষ্মাগ্র, সবুজাভ-হলুদ। গর্ভাশয় অর্ধবেলনাকার, সবুজাভ, গর্ভদন্ড স্থূল, প্রায় ৪ মিমি লম্বা, আশুপাতী, গর্ভদন্ড গোলাকার।

ফল ডিম্বাকার-আয়তাকার, প্রায় ৬ সেমি পর্যন্ত চওড়া, ৮-১২ প্রকোষ্ঠী, বাকল স্থূল, খাঁজযুক্ত, পাকলে হলুদাভ, রসালো ভ্যাসিকল ফিকে সবুজ থেকে হলুদাভ, রস অপর্যাপ্ত বা প্রচুর, টক, অশ্লীয়। বীজ ডিম্বাকার, সূক্ষ্মাগ্র, কাটলে অভ্যন্ত রে সাদা। ফুল ও ফল ধারণ ঘটে মার্চ থেকে নভেম্বর মাসে।

ক্রোমোসোম সংখ্যা : 2n = ১৮, ৩৬ (Kumar and Subramaniam, 1986).

আবাসস্থল ও চাষাবাদ: বাগানে লাগানো হয়। বীজ এবং জোড় কলম দ্বারা।

বিস্তৃতি: লেমন সম্ভবত এশিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে স্বদেশী, বর্তমানে অর্ধগ্রীষ্মমন্ডলে ব্যাপকভাবে আবাদী এবং কদাচিৎ গ্রীষ্মমন্ডলে। বাংলাদেশের সর্বত্র ব্যাপকভাবে আবাদ করা হয়।

ঔষধি ব্যবহার: ফল লেবুর শরবত তৈরীতে ব্যবহৃত, সুগন্ধি এবং ভোজনপত্রে সাজানোর জন্য রন্ধনকার্যে এবং বিভিন্ন কাজে ব্যবহৃত। ফলের রস পর্যাপ্ত ভিটামিন-সি সমৃদ্ধ যা পচনরোধী যা ঠান্ডা ও জ্বরের বিরুদ্ধে কার্যকর, স্কার্ভি, সংবহনতন্ত্র সমস্যা,ধমনীর ফ্লেরোসিসে প্রতিষেধক। এটি পচনরোধী, বাতজ্বররোধী, অণুজীবরোধী এবং বিরোধী। উদ্বায়ী তেল অণুজীবরোধী বৈশিষ্ট্য বহন করে। ফলের রস জনপ্রিয়ভাবে ব্যবহৃত হয় ক্ষুধাবর্ধক এবং অরুচি ও বমির চিকিৎসায় । ফলের রস চামড়ার প্রসাধনী তৈরীতে ব্যবহৃত (Ghani, 2003).

অন্যান্য তথ্য: বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষের খণ্ডে ১০ম খণ্ডে (আগস্ট ২০১০)  গোরা লেবু প্রজাতিটির সম্পর্কে বলা হয়েছে যে, এদের শীঘ্র কোনো সংকটের কারণ দেখা যায় না এবং বাংলাদেশে এটি আশঙ্কামুক্ত হিসেবে বিবেচিত। বাংলাদেশে গোরা লেবু সংরক্ষণের জন্য কোনো পদক্ষেপ গৃহীত হয়নি। প্রজাতিটি সম্পর্কে প্রস্তাব করা হয়েছে এটি সংরক্ষণের তেমন প্রযোজন নেই।[১]

তথ্যসূত্র:      

১.  এম. আমান উল্লাহ  (আগস্ট ২০১০)। “অ্যানজিওস্পার্মস ডাইকটিলিডনস”  আহমেদ, জিয়া উদ্দিন; হাসান, মো আবুল; বেগম, জেড এন তাহমিদা; খন্দকার মনিরুজ্জামান। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ ১০ (১ সংস্করণ)। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। পৃষ্ঠা ১৬৮-১৬৯। আইএসবিএন 984-30000-0286-0

আরো পড়ুন






Related News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *