You cannot copy content of this page
আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > প্রাণ > উদ্ভিদ > লতা > ব্রাহ্মী লতা গ্রাম বাংলার অতিপরিচিত ভেষজ গুণে ভরা শাক

ব্রাহ্মী লতা গ্রাম বাংলার অতিপরিচিত ভেষজ গুণে ভরা শাক

ব্রাহ্মী

ব্রাহ্মী (বৈজ্ঞানিক নাম: Bacopa monnieri, ইংরেজি: waterhyssop, thyme-leafed gratiola, water hyssop, herb of grace, Indian pennywor) এক ধরণের লতা জাতীয় উদ্ভিদ। ভিজা মাটিতে লতিয়ে লতিয়েই এ লতার বৃদ্ধি ঘটে। লতার প্রত্যেকটি গাঁট থেকে শিকড় বের হয়। কাণ্ড খুবই নরম এবং রসযুক্ত। গায়ে খুব সরু লোম থাকে, পাতা আধা ইঞ্চি বা আরও একটু বড় হতে পারে। কাণ্ডের বিপরীত দিক থেকে যুগপত্র জন্মায়। পাতার বোটা কাণ্ডের সাথে প্রায় লেগে থাকে। পাতার কিনারায় কোনো খাজ থাকে না। সামনের দিকটা গোলাকার এবং বৃন্তদেশ ডিমের মতো। পাতার শিরাগুলো অস্পষ্ট।

ফুল ফিকে নীলের আভাযুক্ত শ্বেতবর্ণ। এ লতার শিরাগুলো বেগুনী রঙের। ফুলের ওপরের পাপড়িগুলো ডিম্বাকৃতি। পুষ্পস্তবক গোলাকার ও লম্বা। বীজকোষে দু’টি আলাদা ঘর থাকে। কোষের মধ্যে অনেকগুলো বীজ থাকে। গরম বাড়ার সাথে সাথে গাছে ফুল ফোটে, পরে ফল ধরতে শুরু করে।

বিভিন্ন অসুখে ব্যবহার:  

উন্মাদ রোগে: ব্রাহ্মী লতার পাতার রস ২০ মি.লি. কুড়-চূর্ণ ২ গ্রাম এবং মধু ২ চামচ এ তিনটি একসাথে মিশিয়ে দিনে একবার সকালের দিকে খাওয়ালে উন্মাদ রোগ প্রশমিত হয়।

স্বরভঙ্গ অথবা গলাভাঙ্গায়:  ব্রাহ্মীর শুকনা লতা ও পাতা, বট, হরীতকী, বাসকের শিকড় এবং পিপুল এ কয়টি এক থেকে দেড় গ্রাম পরিমাণ নিয়ে একসাথে গুড়া করে তিন থেকে চার চামচ মধুর সাথে খেলে অবশ্যই নিরাময় হয়। সারা দিনে মাত্র দু’বার খেলেই গলার স্বর অনেকটা স্বাভাবিক হবে। যদি না হয়, তবে পরের দিন একইভাবে ওষুধ তৈরি করে আর একবার খেলেই স্বর স্বাভাবিক হবে।

বসন্তরোগে: গায়ে গুটি বের হলেই ব্রাহ্মী লতার পাতা ও কচি ডাটা বেটে তার। রস ৬ চামচ মধুর সাথে খেলে খুব তাড়াতাড়ি সেরে যায়।

স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধিতে:  ব্রাহ্মী লতার পাতা ও ডালের রস ৩০ মিলিলিটার এবং দেড় চামচ চিনি মিশিয়ে রোজ সকালে খেলে স্মৃতিশক্তি যথেষ্ট বেড়ে যায়। হাঁপানির টান উঠলে ও ব্রাহ্মী লতার শুকনা পাতা ও কাণ্ডের রস ৩০ মি.লি. তিন চামচ মধুর সাথে খাওয়ালে রোগীর শ্বাসকষ্ট অনেক কমে।

আরো পড়ুন:  নোয়ালতা বাংলাদেশের সংরক্ষণ নির্ভর ঔষধি লতা

পিত্ত বেশি হলে: ব্রাহ্মীর মূল দেড় থেকে দু’গ্রাম পরিমাণ সামান্য পানির সাথে খালিপেটে খেলে শরীরের অতিরিক্ত পিত্ত নাশ করে।

শিশুদের কফ ও কাশিতে:   ব্রাহ্মী লতার কচি ডাল ও পাতা বেটে সেটা সামান্য গরম করে শিশুদের বুকে প্রলেপ দিলে কাশি কমে যায় এবং বুকে জমে থাকা কফ বের হয়ে যায়।

বাত রোগে: ব্রাহ্মী পাতার রস চার চামচ এবং তার অর্ধেক (দু’চামচ) তারপিন তেল একসাথে মিশিয়ে মালিশ করলে উপকার হয় ।

ছোটদের সর্দি ও বুকে শ্লেম্মা বসে গেলে: ছোট ছেলে মেয়েদের বুকে সর্দি গেলে এবং নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হলে, এক চামচ ব্রাহ্মী লতার রস খাওয়ালে সামান্য বমির সাথে সর্দি ও বুকের কষ্টকর শ্লেষ্ম সহজেই বের হয়ে যাবে।

সতর্কীকরণ: ঘরে প্রস্তুতকৃত যে কোনো ভেষজ ওষুধ নিজ দায়িত্বে ব্যবহার করুন।

তত্থ্যসূত্র:   

১. আঃ খালেক মোল্লা সম্পাদিত;লোকমান হেকিমের কবিরাজী চিকিৎসা; মণিহার বুক ডিপো, ঢাকা, অক্টোবর ২০০৯; পৃষ্ঠা ১২৮-১২৯।

Dolon Prova
জন্ম ৮ জানুয়ারি ১৯৮৯। বাংলাদেশের ময়মনসিংহে আনন্দমোহন কলেজ থেকে বিএ সম্মান ও এমএ পাশ করেছেন। তাঁর প্রকাশিত প্রথম কবিতাগ্রন্থ “স্বপ্নের পাখিরা ওড়ে যৌথ খামারে”। বিভিন্ন সাময়িকীতে তাঁর কবিতা প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়া শিক্ষা জীবনের বিভিন্ন সময় রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক কাজের সাথে যুক্ত ছিলেন। বর্তমানে রোদ্দুরে ডট কমের সম্পাদক।

Leave a Reply

Top