আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > আমেরিকা

আমেরিকার দর্শন প্রসঙ্গে

আমেরিকার দর্শন (ইংরেজি: American Philosophy) হচ্ছে সাম্প্রতিককালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দার্শনিক চিন্তাধারাকে চিহ্নিত করার একটি চেষ্টা। আমেরিকা বলতে কেবল মার্কিন-যুক্তরাষ্ট্র বুঝায় না। সে কারণে কেবল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দর্শনের বৈশিষ্ট্য চিহ্নিত করার জন্য আমেরিকার দর্শন কথাটি উপযুক্ত নয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রধানত ইউরোপ মহাদেশ থেকে আগত অধিবাসীদের দ্বারা গঠিত হয়েছে। এ জন্য সামাজিক, রাজনৈতিক

আমেরিকার সভ্যতা প্রসঙ্গে

আমেরিকার সভ্যতা (ইংরেজি: American Civilization) বলতে কি বুঝায়? এশীয় সভ্যতা, ইউরোপীয় সভ্যতা এবং আফ্রিকার সভ্যতা—কথাগুলির একটি স্বাভাবিক অর্থ আছে। মহাদেশ হিসাবে বিভক্ত এই সমস্ত অঞ্চলের সভ্যতা বলতে প্রাচীনকাল থেকে এই সমস্ত অঞ্চলের অধিবাসীগণ যে সমাজ ও রাষ্ট্রব্যবস্থা গঠন করে এসেছে তাকেই এই সমস্ত অঞ্চলের সভ্যতা বলে নির্দিষ্ট করা হয়। কিন্তু

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা যুদ্ধ প্রসঙ্গে

আমেরিকার স্বাধীনতা যুদ্ধ বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা যুদ্ধ (১৭৭৬-১৭৮১) (ইংরেজি: American War of Independence) হচ্ছে আধুনিক ইউরোপের ইতিহাসে অষ্টাদশ শতাব্দীতে দুটি গুরুত্বপূর্ণ ঘটনার একটি। অন্য ঘটনাটি হচ্ছে ফরাসি বিপ্লব যা ১৭৮৯ সালে ঘটে। আমেরিকার স্বাধীনতা যুদ্ধকে আমেরিকার বিপ্লব বলেও অভিহিত করা হয়। আমেরিকার স্বাধীনতা যুদ্ধ ইংল্যাণ্ডের অর্থনৈতিক বিকাশের একটি পর্যায়ের স্মারক।

নিকারাগুয়ায় সমাজতান্ত্রিক আন্দোলন এবং বিপ্লবের পরাজয়

নিকারাগুয়া মধ্য আমেরিকার একটি ক্ষুদ্র দেশ। এই অঞ্চলের অন্যান্য দেশের মত নিকারাগুয়াও স্প্যানিশ সাম্রাজ্যবাদের দ্বারা নিপীড়িত দেশ ছিল এবং ১৮২১ সালে নিকারাগুয়া জাতীয় স্বাধীনতা লাভ করে। জাতীয় স্বাধীনতা লাভ করলেও নিকারাগুয়ার অর্থনীতিতে মার্কিন কর্তৃত্ব স্থাপিত হয় এবং দেশের রেলওয়ে, ব্যাংক, খনিজ সম্পদ সব কিছুই মার্কিন পুঁজি ও মার্কিন| কোম্পানী দ্বারা

কিউবার সমাজতান্ত্রিক আন্দোলন ও ক্যাস্ত্রো প্রসঙ্গে

কিউবা (Cuba ) বর্তমান পৃথিবীর একটি অন্যতম সমাজতন্ত্র অভিমুখী দেশ এবং মধ্য ও দক্ষিণ আমেরিকার সমাজতান্ত্রিক আন্দোলন কিউবার সাফল্য দ্বারা বিশেষ ভাবে অনুপ্রাণিত। দীর্ঘকাল কিউবা ছিলো সাম্রাজ্যবাদী স্পেন দ্বারা নিপীড়িত একটি ক্ষুদ্র দেশ। ১৮৬৮ সালের স্পেনের বিরুদ্ধে কিউবার বিদ্রোহ দশ বৎসর কাল স্থায়ী হলেও শেষ পর্যন্ত তা ব্যর্থতায় পর্যবসিত হয়। ১৮৯৫

মার্কিন মানবাধিকার নিয়ে চিনের প্রতিবেদন

চীন কয়েক বছর ধরেই গণহত্যাকারী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ‘ভয়াবহ মানবাধিকার সংকটের’ কঠোর সমালোচনা করে আসছে। মার্কিন অভিবাসন নীতিসহ সংখ্যালঘুদের প্রতি সহিংসতা থেকে শুরু করে বিভিন্ন ইস্যুতে ওয়াশিংটনের সমালোচনায় মুখর রয়েছে বেইজিং। ২০১৭ সালের মার্চের প্রথম সপ্তাহে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তর বিশ্বের প্রায় ২০০ দেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে নিজেদের প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। সেই

Top