You are here
Home > জ্ঞানকোষ > মার্কসবাদকোষ

সাম্রাজ্যবাদ প্রসঙ্গে

সাধারণ দৃষ্টিতে সাম্রাজ্যবাদ (ইংরেজি: Imperialism) হচ্ছে একটি দেশ কর্তৃক অপর একটি দেশের উপর প্রভুত্ব ও শাসন কায়েম করা। মানবসভ্যতার গোড়া থেকেই মিশর, মেসোপটেমিয়া, আসিরিয়া, পার্সিয়াতে সাম্রাজ্য দেখা যায়। প্রাচীন ও মধ্যযুগে রোমান, বাইজানটাইন, অটোমান, মোগল সাম্রাজ্য ছিল। বর্তমানকালে ইউরোপে শিল্পোন্নয়নের পর আধুনিক নেশন-স্টেটের উদ্ভব ঘটে। সেগুলির বাণিজ্যিক প্রয়োজনে সারা পৃথিবীতে

উপনিবেশবাদ প্রসঙ্গে

উপনিবেশবাদ বা ঔপনিবেশিকতাবাদ (ইংরেজি: Colonialism) শব্দটি দ্বিতীয় সাম্রাজ্যবাদী মহাযুদ্ধোত্তরকালে বিশেষ করে বিশ শতকের দ্বিতীয়ার্ধে সাম্রাজ্যবাদ শব্দটির সমার্থে ব্যবহারবহুল হয়েছে। শব্দটির আভিধানিক অর্থ হলো যে সব অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও সামাজিক কর্মপন্থার সাহায্যে একটি সাম্রাজ্যশক্তি অন্যান্য দেশ কিংবা অধিবাসীদের উপর নিয়ন্ত্রণ, সম্প্রসারণ অথবা বিস্তার বজায় রাখে। শব্দটির অর্থ সাম্রাজ্যবাদের সমতুল্য। দ্বিতীয় সাম্রাজ্যবাদী

সামরিক শিল্পই সাম্রাজ্যবাদের প্রধান শক্তি

সমর শিল্প বা Arms Industry’র একত্রীকরণ হচ্ছে বৃহত সামরিক শিল্পের অগ্রাধিকার ও সাম্রাজ্যবাদি রাষ্ট্রগুলোর রাষ্ট্রযন্ত্রের সামরিক চক্রগুলোর মিলন, যারা একচেটিয়া বুর্জোয়ার শ্রেণিগত আধিপত্য সুদৃঢ়করণ ও তা বিস্তারের স্বার্থে সামরিক শক্তির অবিরত বিকাশের পক্ষপাতী। সামরিক শিল্প মালিকরা হচ্ছে রাষ্ট্রীয় একচেটিয়া পুঁজিবাদি ব্যবস্থার সবচেয়ে প্রতিক্রিয়াশীল ও আক্রমণাত্মক অংশ। সমর শিল্প অস্ত্র এবং সামরিক

মার্কসের প্রাচ্য স্বৈরতন্ত্র এবং বাংলাদেশে স্বৈরতন্ত্রের ভিত্তি প্রসঙ্গে

সরকারের একচ্ছত্র শাসন, যথেচ্ছাচারী ক্ষমতা; বিশেষ করে যে সরকার কার্যত কোনো আইন, বিরোধী-পক্ষ অথবা প্রথা দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয় না; এবং ক্ষমতাসীনেরা যখন ও যেখানে ইচ্ছা অপরের অধিকার খর্ব করতে পারে এমন শাসনকে যদি স্বৈরতন্ত্র বলি[১] তবে ভারতীয়, অটোমান এবং চীনা সাম্রাজ্যে প্রাচ্য স্বৈরতন্ত্রের গণবিরোধী ভূমিকা বিশাল। স্বৈরতন্ত্র বঙ্গে বা ভারতে

পিয়েরে জোসেফ প্রুধোঁ নৈরাজ্যবাদ ও ফরাসী সিন্ডিক্যালবাদের তাত্ত্বিক

পিয়েরে জোসেফ প্রুধোঁ, ইংরেজিতে Pierre-Joseph Proudhon, (১৫ জানুয়ারি, ১৮০৯-১৯ জানুয়ারি, ১৮৬৫) ফরাসী প্রাবন্ধিক, অর্থনীতিবিদ ও সমাজতাত্ত্বিক। তিনি ছিলেন ক্ষুদে বুর্জোয়ার তত্ত্বপ্রবক্তা ও নৈরাজ্যবাদের আদি তাত্ত্বিকদের একজন।১ তিনিই প্রথম নৈরাজ্যবাদ ও ফরাসী সিন্ডিক্যালবাদের তত্ত্ব রচনা করেন। তিনি বলেন সরকারের অবলুপ্তি আর শোষণের অবলুপ্তি একই সাথে চলবে। দুটি একই, অভিন্ন কাজ। তার

সমাজ গণতন্ত্র হচ্ছে একটি সংস্কারবাদী বিপ্লববিরোধী মতবাদ

সমাজ গণতন্ত্র হচ্ছে এমন একটি রাজনৈতিক মতবাদ যা সংস্কারবাদী এবং ধারাবাহিকতাবাদী প্রক্রিয়ার মাধ্যমে গণতান্ত্রিক সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে রীতিমাফিক কাজ করে।[১] আলাদাভাবে বললে সমাজ-গণতন্ত্রের সংজ্ঞা হচ্ছে এমন এক নীতির প্রশাসনপদ্ধতি যা পুঁজিবাদী অর্থনীতির কাঠামোর ভেতরে একটি বৈশ্বিক কল্যাণ রাষ্ট্র এবং যৌথ দরকষাকষির বিন্যাস। এটাকে প্রায় ব্যবহার করা হয় সেই ঢঙকে নির্দেশ

মিখাইল বাকুনিন একজন নৈরাজ্যবাদী বিপ্লবী

মিখাইল আলেকজান্দ্রোভিচ বাকুনিন (ইংরেজি: Mikhail Alexandrovich Bakunin) ছিলেন (১৮১৪-১৮৭৬) রাশিয়ার এক অভিজাত পরিবারের সন্তান। তার চিন্তার ভেতরে ছিলো একজন পেটিবুর্জোয়া বা মধ্যবিত্ত চরিত্রের রুশ বিপ্লবীপনা। নৈরাজ্যবাদ বা এ্যানার্কিজম মতবাদের প্রচারকারী হিসাবেই বাকুনিন বিখ্যাত হয়েছিলেন। বাকুনিনের মতাদর্শে বিভিন্ন দার্শনিক এবং রাষ্ট্রনৈতিক চিন্তাবিদদের প্রভাব পরিলক্ষিত হয়। গোড়ার দিকে তিনি জার্মান দার্শনিক ফিকটের চিন্তাধারায

অতি আশ্চর্য রকমের আবর্জনা সৃষ্টিকারী আন্তোনিও গ্রামসি

আন্তোনিও গ্রামসি (১৮৯১ -১৯৩৭) কে প্রগতিশীল বলা যায়। কিন্তু গ্রামসি কোনোভাবেই মার্কসবাদী নন, লেনিনবাদী হবার তো প্রশ্নই আসে না। গ্রামসিকে বিপ্লবী বলা যায় সেই অর্থে, ঠিক যে অর্থে এরিস্টটল বিপ্লবকে একই শ্রেণির বা বিভিন্ন শ্রেণির ক্ষমতার হস্তান্তর ও পরিবর্তনকে বুঝিয়েছেন। অর্থাৎ বিপ্লবকে আমরা যদি সমাজবিপ্লব পর্যন্ত প্রসারিত না করি, সেরকম

ক্লারা জেটকিন এক মহান জার্মান সাম্যবাদী বিপ্লবী

কমরেড ক্লারা জেটকিন (৫ জুলাই, ১৮৫৭ – ২০ জুন ১৯৩৩) জার্মান ছিলেন কমিউনিস্ট পার্টির অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা, মার্কসবাদী তাত্ত্বিক এবং ‘নারী অধিকার’ আন্দোলনের বিশিষ্ট কমিউনিস্ট নেত্রী। জার্মানির কমিউনিস্ট পার্টির এই নারী নেত্রী সমাজতান্ত্রিক নারীবাদী হিসেবেও পরিচিত। তিনি বিশ্বাস করতেন, সমাজতন্ত্রই একমাত্র নারীকে মুক্তি দিতে পারে। তিনি বুর্জোয়া পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন এবং

লুই অগ্যুস্ত ব্লাঁকি ফরাসি কল্পলৌকিক সাম্যবাদের বিশিষ্ট প্রবক্তা

লুই অগ্যুস্ত ব্লাঁকি (ফরাসি: Louis Auguste Blanqui) (১ ফেব্রুয়ারি, ১৮০৫- ১ জানুয়ারি, ১৮৮১) ছিলেন ফরাসি সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনে বিখ্যাত বিপ্লবী, ফরাসি কল্পলৌকিক সাম্যবাদের বিশিষ্ট প্রবক্তা। তাঁর প্রতিষ্ঠিত মতবাদ ব্লাঁকিবাদ নামে পরিচিত। ফ্রান্সের আল্প-মেরিটিমের পুগেত তেনেরিতে ব্লাঁকির জন্ম হয়। তাঁর পিতা কঁভঁসিয়ঁর সদস্য ছিলেন। ব্লাঁকি আইন ও চিকিৎসাবিদ্যায় শিক্ষালাভ করেন। কিন্তু এই দুই

Top