You cannot copy content of this page
আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > Posts tagged "তালিকা"

বাংলাদেশের স্বাদুপানির মাছের তালিকা

বাংলাদেশে স্বাদু পানির মৎস্য প্রজাতিসমূহের বিজ্ঞানভিত্তিক গবেষণা শুরু হয় ১৮২২ সালে। ২০০৫ সালে এ. কে. আতাউর রহমান বাংলাদেশের স্বাদুপানির মাছকে ৫৫টি পরিবারের অধীনে ১৫৪ গণের ২৬৫টি প্রজাতিকে তালিকাভুক্ত করেছিলেন যার ভেতরে কয়েক প্রজাতির সামুদ্রিক মাছও ছিলো। সর্বশেষ বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি কর্তৃক প্রকাশিত ''বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ''-এর ২৩ নং খণ্ডে

বাংলাদেশের বন্যপ্রাণীর তালিকা

সুজলা সুফলা শস্য শ্যামলা আমাদের এই বাংলাদেশ। আমাদের এই বাংলাদেশে রয়েছে হাজারো প্রাণীর বাস। আমরা কী জানি আমাদের পরিবেশের অবিচ্ছেদ্য অংশ আমাদের এই বন্যপ্রাণীরা কেমন আছে। বাংলাদেশের বন্যপ্রাণীর একটি তালিকা ওয়েবে পাওয়া যাবে এরকম ইচ্ছা ছিলো আমার অনেক দিনের। এখানে এরকম একটি তালিকা দেয়া হলো। দেয়ার একটিই উদ্দেশ্য বাংলাদেশ থেকে আর একটি বন্যপ্রাণীও যাতে বিলুপ্ত না হয়। আরো পড়ুন

বাংলাদেশের স্তন্যপায়ী প্রাণীর তালিকা

বাংলাদেশে ১৩৮ প্রজাতির স্তন্যপায়ী প্রাণীকে আইইউসিএন ২০১৫ সালে মূল্যায়ন করে। সেই হিসেবে বাংলাদেশে ১৩৮ প্রজাতির স্তন্যপায়ী প্রাণী গত ২০০ বছরে দেখা গেছে বলে ধরা যায়। এর মধ্যে বাংলাদেশ থেকে ১১ প্রজাতির স্তন্যপায়ী প্রাণি গত ২০০ বছরে বিলুপ্ত হয়ে গেছে।(আইইউসিএন, ২০১৫) আরো অনেক প্রজাতির প্রাণি বিলুপ্ত হবার অপেক্ষায় আছে। বাংলাদেশ থেকে

বাংলাদেশের সাপের তালিকা

বাংলাদেশে সরীসৃপ (ইংরেজি: Reptilia) শ্রেণিতে Squamata বর্গে ৭টি পরিবারে ৪৬টি গণে মোট ৯৪টি প্রজাতিকে দেশবাসি সাপ বলে চেনে। বাংলাদেশে Reptilia শ্রেণিতে Squamata বর্গে ৭টি পরিবারে ৪৬টি গণে মোট ৯৪টি প্রজাতির যেগুলোকে দেশবাসি সাপ বলে ডাকে। বাংলাদেশের প্রায় সবগুলো সরীসৃপ ২০১২ সালের বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইনে সংরক্ষিত। অর্থাৎ এসব প্রাণী হত্যা, শিকার, পাচার, বিক্রি ইত্যাদি করলে সর্বোচ্চ ১৫ বছরের জেল ও জরিমানা হতে পারে। বাংলাদেশের ৯৪টি প্রজাতির সাপের পরিবারসহ নামের তালিকা নিম্নে প্রদান করা হলো: আরো পড়ুন

বাংলাদেশের গিরগিটি, টিকটিকি, তক্ষক, অঞ্জন, আচিল ও গুইয়ের তালিকা

বাংলাদেশে সরীসৃপ (ইংরেজি: Reptilia) শ্রেণিতে Squamata বর্গে ১৭টি গণে ৬টি পরিবারের মোট ৩২টি প্রজাতিকে দেশবাসি গিরগিটি, টিকটিকি, তক্ষক, অঞ্জন, আচিল ও গুই নামে চেনে। বাংলাদেশের Squamata বর্গে ১৭টি গণে ৬টি পরিবারে মোট এরক মের মোট ৩২টি প্রজাতি রয়েছে। এছাড়া বাংলাদেশে সরীসৃপ শ্রেণিতে Squamata বর্গে আরো ৭টি পরিবারে ৪৬টি গণে মোট

বাংলাদেশের ব্যাঙের তালিকা

বাংলাদেশে উভচর প্রাণীদের সংখ্যা বেশি নয়। বাংলাদেশে বর্তমানে Anura এবং Apoda বর্গের অধীনে ৭টি পরিবারে ২১টি গণে মোট ৪১টি প্রজাতি অর্ন্তভূক্ত করা হয়েছে। IUCN-বাংলাদেশ ২০০০ এর রিপোর্ট অনুযায়ী ৮টি প্রজাতির অবস্থা ঝুঁকিপূর্ণ হলেও বর্তমানে অন্তত ২৫টি প্রজাতি ঝুঁকিপূর্ণ বা বিপন্ন অবস্থায় রয়েছে। বাংলাদেশের প্রায় সবগুলো উভচর  ২০১২ সালের বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ

বাংলাদেশের উভচর ও সরীসৃপের তালিকা

বাংলাদেশে উভচর প্রাণীদের সংখ্যা বেশি নয়। বাংলাদেশে বর্তমানে Anura বর্গের অধীনে ৭টি পরিবারে ২১টি গণে মোট ৪১টি প্রজাতি অর্ন্তভূক্ত করা হয়েছে। IUCN-বাংলাদেশ ২০০০ এর রিপোর্ট অনুযায়ী ৮টি প্রজাতির অবস্থা ঝুঁকিপূর্ণ হলেও বর্তমানে অন্তত ২৫টি প্রজাতি ঝুঁকিপূর্ণ বা বিপন্ন অবস্থায় রয়েছে। বাংলাদেশের প্রায় সবগুলো উভচর ও সরীসৃপ ২০১২ সালের বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ

বাংলাদেশের ঔষধি উদ্ভিদের তালিকা

মানুষ আদিকাল হতে তাদের বিভিন্ন রোগের চিকিৎসায় ভেষজ উদ্ভিদ ব্যবহার করে আসছে। ভেষজ উদ্ভিদের ব্যবহার সারা বিশ্বে দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। উদ্ভিদ হতে মানুষ ঔষধসহ প্রসাধন তৈরী করছে। বাণিজ্যিক স্বার্থে বাংলাদেশও এর ব্যতিক্রম নয়। বাংলাদেশের শতকরা ৮০ জন লোক গ্রামে বাস করে। গ্রামে বাস করা লোকজন তাদের প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরিচর্যায়

List of Medicinal Plants of Bangladesh

People are using medicinal plants to treat their different diseases since ancient times. The use of herbal plants is increasing day by day. People are preparing cosmetics including medicines from plants. Bangladesh is no exception to commercial interests on this issues. More than 80 percent of Bangladeshi people live in

Medicinal Plants of Bangladesh.

Anup Sadi Poet & Author, Bangladesh December- 2012 Preface Research became my favorite job in the last 4 years. I have worked on the fruit plants in 2008 and after that research work, I started working on the medicinal plants of Bangladesh. Doing research work on important and critical issues of the society is

Top