You cannot copy content of this page
আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > Posts tagged "কমব্রেটাসি"

ফিলিপিনো হলুদ বাদাম দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার বৃক্ষ

ভূমিকা: ফিলিপিনো হলুদ বাদাম হচ্ছে কমব্রেটাসি পরিবারের টারমিনালিয়া গণের একটি সপুষ্পক বৃক্ষ। বর্ণনা: ফিলিপিনো হলুদ বাদাম মধ্যম থেকে বৃহৎ আকৃতির বৃক্ষ, প্রায় ২৫ সেমি ঘের বিশিষ্ট, চূড়া সমতল, অধিমূল ছােট। পত্র চর্মবৎ বা অর্ধচর্মবৎ, ক্রমশ সরু হয়ে পত্রবৃন্তে পরিণত বা সরু বিডিম্বাকার থেকে সরু উপবৃত্তাকার, ৮-১৩ x ৩-৫ সেমি, মসৃণ, দীর্ঘা,

আসাল বাংলাদেশের বিরল বৃহৎ পর্ণমোচী বৃক্ষ

বর্ণনা: আসাল, আসনা, হাসনা, সাজ, সাই কমব্রেটাসি পরিবারের টারমিনালিয়া গণের একটি সপুষ্পক উদ্ভিদ। এরা বৃহৎ পর্ণমােচী বৃক্ষ। এরা ৩০ মিটার পর্যন্ত উঁচু, বাকল অমসৃণ, কালাে, গভীর চিড়যুক্ত, সারকাঠ শক্ত, গাঢ় লালচে বাদামী, বিটপ, তরুণপত্র ও পুষ্পবিন্যাস মরচে রােমশ। এদের পত্র চমবৎ, দীর্ঘায়ত থেকে ডিম্বাকার-দীর্ঘায়ত, বৃন্ত ০.৬২.০ সেমি লম্বা, মসৃণ, পত্র

টারমিনালিয়া কমব্রেটাসি পরিবারের একটি গণ

বিবরণ: টারমিনালিয়া কমব্রেটাসি পরিবারের একটি গণের নাম। এরা পর্ণমোচী বা অর্ধচিরহরিৎ বৃক্ষ। এদের দেহকান্ড অধিমূলযুক্ত। পত্র একান্তর, অর্ধ-প্রতিমুখ বা সর্পিলাকারে বিন্যস্ত, প্রায়শ ক্ষুদ্র শাখার প্রান্তে সমাকীর্ণ, প্রান্ত অখণ্ড বা সামান্য গোলাকার দন্ত যুক্ত, রোমশ বা মসৃণ, প্রায়শ ক্ষুদ্র আঁচিলযুক্ত, বৃন্ত বা অঙ্কীয় তলের মধ্যশিরায় মূলীয় অংশে ১ জোড়া গ্রন্থি বিদ্যমান।

মাধুরী লতা দক্ষিণ ও দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার আরোহী গুল্ম

ভূমিকা: মাধুরী লতা (বৈজ্ঞানিক নাম: Combretum indicum ইংরেজি: Rangoon Creeper, Chinese Honey Suckle) এটি কমব্রেটাসিস পরিবারের কমব্রেটাম গণের লতানো গুল্ম। বর্ণনা: মাধুরী লতা আরোহী গুল্ম, মসৃণ, তরুণ শাখা রোমশ। পাতা কাগজের মতো, উপবৃত্তাকার বা দীর্ঘারত ৫ থেকে ১১ X ২.০ থেকে ৫.৫ সেমি, শীর্ষ দীর্ঘাগ্র, মূলীয় অংশ গোলাকার বা অর্ধমুলাকার, প্রান্ত অখন্ড,

বহেড়া এশিয়ার ঔষধি বৃক্ষ

পরিচিতি: বহেড়া বৃক্ষ ৬০ থেকে ১০০ ফুট পর্যন্ত উচু হতে দেখা যায়, গাছের গুড়িও বেশ লম্বা, অবশ্য ছাল খুব বেশি পুরু হয় না, পাতা ৩ থেকে ৭ বা ৮ ইঞ্চি লম্বা হয়; দেখতে অনেকটা ছোট আকারের বট পাতার মতো, শীতকালে গাছের পাতা পড়ে যায়, বসন্তকালে আবার নতুন পাতা গজায়। পাতার

হরিতকীর ১৪টি ভেষজ গুণ

বাংলাদেশ ও ভারতে এর আদি নিবাস। বাকল গাঢ় বাদামি। বাকলে লম্বা ফাটল থাকে।  ঔষধি গুণে সম্পুন্ন হরিতকী ত্রিফলার মধ্যে একটি। এর বৈজ্ঞানিক নাম Terminalia chebula ও পরিবার Combretaceae. বিভিন্ন রোগের প্রতিকারে: ১. অর্শরোগ: হরিতকীর চূর্ণ ৩ থেকে ৫ গ্রাম (কোষ্ঠকাঠিন্যের অবস্থাভেদে) মাত্রায় ঘোলের সঙ্গে একটু, সৈন্ধব লবণ মিশিয়ে খেলে উপশম হয়ে থাকে। ২.

অর্জুন একটি মহা উপকারি ঔষধি বৃক্ষ

ভূমিকা: অর্জুন কমব্রেটাসি পরিবারের টারমিনালিয়া গণের একটি গুরুত্বপূর্ণ ঔষধি বৃক্ষ। পরিণত বয়সে গাছ ১০ থেকে ১৫ মিটার পর্যন্ত লম্বা হয়ে থাকে। এছাড়া এই গাছের উচ্চতা ১৫ থেকে ২০ মিটার পর্যন্ত হয়ে থাকে। এই বিশালাকৃতির পত্রমোচী বৃক্ষের গোড়া কখনও খুঁজযুক্ত হয়। গাছটির মাথার ছড়ানো, ডালগুলি নিচের দিকে ঝুলন্ত অবস্থায় থাকে। বাকল

কাঠ বাদাম বহুগুণের আলংকারিক বৃক্ষ

পরিচিতি: কাঠ বাদাম কমব্রেটাসি পরিবারের উষ্ণমণ্ডলীয় অঞ্চলের একটি বৃক্ষ। এই গাছের ফলটি খাবারের যোগ্য, তাই একে একটি ফলদ বৃক্ষ বলা হয়। এদের অনেকগুলো নাম রয়েছে। বিভিন্ন স্থানে একে যেসব নামে ডাকা হয় সেগুলো হচ্ছে: বাংলা আখরোট, সিঙ্গাপুর আখরোট, ইবেলবো, মালাবার আখরোট, নিরক্ষীয় আখরোট, সমুদ্র আখরোট, ছাতা গাছ, আব্রোফো নকাটি, জানমান্দি

Top