You cannot copy content of this page
আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > Posts tagged "পরিবার"

বিবাহের স্বরূপ ও প্রকারভেদ

বিয়ে সমাজ জীবনের একটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা যার ভিতর দিয়ে পরিবার গড়ে উঠে। বিয়ের ভিতর দিয়ে নারী-পুরুষের দৈহিক চাহিদা পূরণ, মানসিক সাহচর্য এবং সামাজিক সম্পর্ক স্থাপন সম্ভব হয়। বিয়ের ভিতর দিয়ে সমাজ পুনরুৎপাদিত হয়। সাম্প্রতিকালে উন্নত বিশ্বে বিয়ে খুব বেশি ভেঙ্গে যাওয়ার ফলে বিয়ের গুরুত্ব কমে যাচ্ছে। মানুষ এখন বিয়ের প্রতি আস্থা হারিয়ে ফেলছে।

পরিবারের শ্রেণীবিভাগ

পরিবার আমাদের অত্যন্ত পরিচিত প্রতিষ্ঠান। আমাদের কাছে মনে হয়, আমাদের চেনা পরিবারই হচ্ছে পরিবারের একমাত্র রূপ এবং অন্য কোনো ধরনের পরিবার ব্যতিক্রম। সমাজবিজ্ঞানীরা লক্ষ্য করেছেন বিভিন্ন সমাজে পরিবারের বিভিন্ন রূপ রয়েছে। সমাজের দ্রুত পরিবর্তনের সাথে সাথে পরিবারের রূপেরও পরিবর্তন ঘটেছে।  সাধারণত: গঠনের দিক থেকে পরিবার চারটি রূপ পরিগ্রহ করতে পারে।  পিতা বা মাতাভিত্তিক পরিবার

পরিবারের কার্যাবলির স্বরূপ

ক্রিয়াবাদী functionalim সমাজ বৈজ্ঞানিক প্যারাডাইম Paradigm পরিবারের কার্যাবলীকে সুনির্দিষ্টভাবে গুরুত্ব দিয়ে থাকে। এ মতের সাথে ভিন্ন মত পোষণ করে অনেক সমাজবিজ্ঞানীরা পরিবারের অপরিহার্য কার্য রয়েছে বলে মনে করেন না। ক্রিয়াবাদী দৃষ্টিকোণ থেকে পরিবারের কিছু কাজকে গুরুত্বপূর্ণ বলে বিবেচনা করা হয়। পিটার মার্ডক  Peter Murdock ২৫০ টি সমাজ বিশ্লেষণ করে দেখিয়েছেন সব সমাজেই পরিবার চারটি

পরিবার কাকে বলে

আমরা পরিবারে বড় হয়ে উঠি এবং আমরা সবাই পরিবারের কথা ভালোভাবেই জানি। পরিবারের ধারণা অত্যন্ত সরল। স্বামী-স্ত্রী ও ছেলে-মেয়েদের নিয়ে একত্রে গৃহে বসবাস করাই পরিবার। এটি একটি অর্থনৈতিক একক এবং ছেলে-মেয়েদের স্নেহ-মমতা দিয়ে রক্ষণাবেক্ষণ করে। আপাতদৃষ্টিতে সরল মনে হলেও, পরিবার সামাজিক জটিল প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি প্রতিষ্ঠান এবং একে সংজ্ঞায়িত করা সহজসাধ্য নয়। এর অন্যতম

পরিবার প্রসঙ্গে

পরিবার  হচ্ছে  স্বামী-স্ত্রী  ও  ছেলে-মেয়েদের  নিয়ে  একত্রে  বসবাস।  সামাজিক  জটিল প্রতিষ্ঠানগুলোর  অন্য̈তম  একটি  প্রতিষ্ঠান  হচ্ছে  পরিবার।  সময়  ও  স্থানের  পরিপ্রেক্ষিতে পরিবারের ধরনে এসেছে বৈচিত্র্য̈ময় পরিবর্তন। সাম্প্রতিক সংজ্ঞায় পরিবার হলো আত্মীয়তার সম্পর্ক বা একই ধরনের ঘনিষ্ঠ বন্ধনে আবদ্ধ একটি জনসমষ্টি যেখানে প্রাপ্ত-বয়স্করা তাদের নিজেদের ও পোষ্য ছেলে-মেয়েদের লালন-পালন করে থাকে।  পরিবারের  কাজ  নিয়ে  সমাজবিজ্ঞানীদের  মধ্যে  মতভেদ  থাকলেও,  অধিকাংশ  সমাজবিজ্ঞানী মনে

এলাপিডি সরীসৃপের স্কুয়ামাটা বর্গের একটি পরিবার

এলাপিডি (ইংরেজি: Elapidae) সরীসৃপের স্কুয়ামাটা বর্গের একটি পরিবার। এই পরিবারে প্রাণীরা শিকারি হয়। এই পরিবারে প্রায় ৫৭টি গণে অনেকগুলো প্রজাতি আছে। তবে বাংলাদেশে পাওয়া যায় মোট ১০টি প্রজাতি। এলাপিডি গােত্রের অন্তর্ভুক্ত প্রজাতির সম্মুখভাগের বিষদাঁত প্রােথিত থাকে, যা সব সময় খাড়া থাকে এবং মুখের তলভাগের স্লটে নিবিদ্ধ থাকে। আরো পড়ুন

ক্রোকডাইলিডি কুমির বর্গের একটি পরিবারের নাম

ভুমিকা: ক্রোকডাইলিডি পরিবারে প্রাণীরা মাংসাশী শিকারি হয়। এদের লেজ পেশীবহুল। এই পরিবারের কুমির প্রজাতিটি অন্তর্গত। এই পরিবারে ১৫টি প্রজাতি আছে। তবে বাংলাদেশে পাওয়া যায় দুটি প্রজাতি একটি মিঠা পানির কুমির অন্যটি নোনা পানির কুমির। আরো পড়ুন

Top