আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > Posts tagged "গীতিকার"

হেমেন্দ্রকুমার রায় আধুনিক বাংলা গানের গীতিকার

হেমেন্দ্রকুমার রায় জন্মেছেন কলকাতার পাথুরিয়াঘাটায়। প্রকৃত নাম প্রসাদ রায়। ভারতী’ পত্রিকায় লেখেন হেমেন্দ্রকুমার নামে। প্রথমে লিখতেন কবিতা। প্রথম বই ‘যৌবনের গান’ গান ও কবিতার সংকলন ছিলো এটি। পরে পুরোপুরি গীত-সংকলন ‘সুর-লেখা’ বেরোয় ১৯৩১ সালে। আরো পড়ুন

হীরেন বসু আধুনিক বাংলা গানের গীতকার

হীরেন বসু গীতকার, সঙ্গীতকার, কণ্ঠশিল্পী, গল্পকার ও ঔপন্যাসিক ছিলেন। তাঁর জন্মেছেন ১৯০৩ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর, কলকাতায়। ছোটবেলা থেকেই ভালো গান গাইতে পারতেন। আরো পড়ুন

সলিল চৌধুরী আধুনিক বাংলার বিখ্যাত গীতিকার

সলিল চৌধুরী (নভেম্বর ১৯, ১৯২৫ – সেপ্টেম্বর ৬, ১৯৯৫) একজন ভারতীয় সঙ্গীত পরিচালক, গীতিকার, সুরকার এবং গল্পকার। তিনি জন্মেছেন ১৯২৩ সালের ১৯ নভেম্বর সোনারপুরে। সলিল চৌধুরীর বাবা জ্ঞানেন্দ্র চৌধুরী ছিলেন বৃত্তিতে চিকিৎসক কিন্তু তার ধ্যানজ্ঞান ছিল গান। আরো পড়ুন

সৌরীন্দ্রমোহন মুখোপাধ্যায় আধুনিক বাংলা গানের গীতিকার

সৌরীন্দ্রমোহন মুখোপাধ্যায় (৯ জানুয়ারি ১৮৮৪ – ১৯ মে ১৯৬৬) ছিলেন বিশিষ্ট লেখক ও অনুবাদক। তিনি জন্মেছেন ১৮৮৪ সালের ৯ জানুয়ারি ২৪ পরগনার ইছাপুর-বারাকপুরে। পিতামহ ছিলেন হাইকোর্টের ব্যবহারজীবী কিন্তু মাতামহ ছিলেন বাংলা রঙ্গমঞ্চের পুরোধাপুরুষ আরো পড়ুন

সুবোধ পুরকায়স্থ আধুনিক বাংলা গানের গীতিকার

সুবোধ পুরকায়স্থ জন্মেছেন ১৯০৭ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ত্রিপুরার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। আদিবাড়ি ও জমিদারি ছিল শ্রীহট্টে। শৈশব থেকেই বাড়িতে পেয়েছিলেন গানের পরিবেশ। লেখাপড়া করেন কুমিল্লা জেলা স্কুল ও কলকাতার সেন্ট পলস কলেজে। আরো পড়ুন

বাণীকুমার আধুনিক বাঙালি গীতিকার ও শিল্পী

বাণীকুমারের জন্ম ১৯০৭ সালের ২৩ নভেম্বর মাতুলালয় হাওড়া জেলার কানপুর গ্রামে। পিতৃদত্ত নাম বৈদ্যনাথ ভট্টাচার্য। হাওড়া জিলা স্কুল থেকে প্রবেশিকা, প্রেসিডেন্সি কলেজের ইংরেজি সাম্মানিক স্নাতক। আরো পড়ুন

বিনয় রায় আধুনিক বাংলা গানের গীতিকার

বিনয় রায় (৮ সেপ্টেম্বর ১৯১৮ – ৩ জুলাই ১৯৭৫) ছিলেন গীতিকার, রচয়িতা, রাজনৈতিক কর্মী। তিনি জন্মেছেন ১৯১৮ সালের ৮ সেপ্টেম্বর রংপুরে। তাঁর আদি বাড়ি পাবনা জেলায়। দেশ বিভাগের পরে চলে আসেন কলকাতায়। আরো পড়ুন

রজনীকান্ত সেন প্রখ্যাত বাঙালি গীতিকার

রজনীকান্ত সেন প্রখ্যাত কবি, গীতিকার এবং সুরকার হিসেবে বাঙালি শিক্ষা-সংস্কৃতিতে চিরস্মরণীয় হয়ে আছেন। তাঁর জন্ম ১৮৬৫ সালের ২৬ জুলাই বাংলাদেশের সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি উপজেলার ভাঙাবাড়ি গ্রামে এক ধর্মনিষ্ঠ পরিবারে। তাঁর গীত-সংকলন হচ্ছে: ‘বাণী’, ‘কল্যাণী’, ‘অভয়া’, ‘কান্তবাণী। আরো পড়ুন

সজনীকান্ত দাস আধুনিক বাংলা সাহিত্যের গদ্যলেখক

সজনীকান্ত দাস (২৫ আগস্ট ১৯০০ – ১১ ফেব্রুয়ারি ১৯৬২) ছিলেন বিংশ শতাব্দীর প্রথম ভাগের বাংলা সাহিত্য আন্দোলনের একজন প্রথম সারির ব্যক্তিত্ব। তিনি ছিলেন বাঙালি সাহিত্যিক, সম্পাদক, গীতিকার, গবেষক। সজনীকান্ত সারাজীবন ছিলেন সাহিত্যের সর্বক্ষণের কর্মী। প্রধানত গদ্যলেখক ও গবেষক হ’লেও কবিতা ও গানরচনায় তার স্বতন্ত্র দক্ষতা স্বীকৃত হয়। আরো পড়ুন

শৈলেন রায় কবি, গায়ক ও চিত্রনাট্যকার

শৈলেন রায় কবি, গায়ক, চিত্রনাট্যকার ছিলেন। ১৯২৭ সালে আব্বাসউদ্দীনই তাঁর গান প্রথম রেকর্ড করেন। তার পরেই গানের বন্যা। নজরুল ও কৃষ্ণচন্দ্র দে তার সবচেয়ে বড় প্রেরণাদাতা। কৃষ্ণচন্দ্রের কণ্ঠে তাঁর বেশ কিছু গান জনাদর পায়; যেমন “মুক্তির মন্দির”, “জাগে হিন্দুস্থান” উল্লেখযোগ্য গান। আরো পড়ুন

Top
You cannot copy content of this page