You cannot copy content of this page
আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > Posts tagged "এশিয়ার ঔষধি উদ্ভিদ"

বার সুঙ্গা দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ঔষধি উদ্ভিদ

বার সাঙ্গা, গন্ধাল, করিয়াফুলি, ছোটকামিনী, গিরিনিম (বৈজ্ঞানিক নাম: Murraya koenigii, ইংরেজি নাম: Curry Leaf, Curry Tree) হচ্ছে রুটেসি পরিবারের মুরায়া গণের সপুষ্পক উদ্ভিদ। এই প্রজাতি সাদা রঙের সুগন্ধি ফুল বিশিষ্ট ছোট বৃক্ষ এটি। আরো পড়ুন

কারিপাতা বা বারসুঙ্গার ভেষজ গুণ

কারিপাতা (Murraya koenigii অথবা Bergera koenigii) বা বারসুঙ্গা বা মিষ্টি নিম চিবিয়ে খেলে আমাশয় ভালো হয়। এই পাতা ভারত ও পার্শ্ববর্তী দেশসমূহে নানা ধরনের রান্নায় ব্যবহার করা হয়। অনেকে ঝোল জাতীয় রান্নায় ব্যবহার করে থাকে। কারিপাতা রোপণ করার জন্য বীজকে অবশ্যই পাকা ও সতেজ হতে হবে। শুকনো অথবা কোঁকড়ানো ফল চাষ করার যোগ্য নয়। পুরো ফলটি রোপণ করা যায়, তবে ফলের শাঁস ছাড়িয়ে নিয়ে কোনো স্যাঁতসেঁতে পাত্রে কিন্তু তা যেনো ভেজা না হয় এমন পাত্রে রোপণ করতে পারলে সবচেয়ে ভাল হয়। আরো পড়ুন

বাংলাদেশের ঔষধি উদ্ভিদের তালিকা

মানুষ আদিকাল হতে তাদের বিভিন্ন রোগের চিকিৎসায় ভেষজ উদ্ভিদ ব্যবহার করে আসছে। ভেষজ উদ্ভিদের ব্যবহার সারা বিশ্বে দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। উদ্ভিদ হতে মানুষ ঔষধসহ প্রসাধন তৈরী করছে। বাণিজ্যিক স্বার্থে বাংলাদেশও এর ব্যতিক্রম নয়। বাংলাদেশের শতকরা ৮০ জন লোক গ্রামে বাস করে। গ্রামে বাস করা লোকজন তাদের প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরিচর্যায়

List of Medicinal Plants of Bangladesh

People are using medicinal plants to treat their different diseases since ancient times. The use of herbal plants is increasing day by day. People are preparing cosmetics including medicines from plants. Bangladesh is no exception to commercial interests on this issues. More than 80 percent of Bangladeshi people live in

Diversity of the Medicinal Plants of Bangladesh.

Anup Sadi Poet & Author, Bangladesh December- 2012 Preface Research became my favorite job in the last 4 years. I have worked on the fruit plants in 2008 and after that research work, I started working on the medicinal plants of Bangladesh. Doing research work on important and critical issues of the society is

বালম ক্ষীরা বিশ্বে বিপদমুক্ত এবং বাংলাদেশের দুর্লভ বৃক্ষ

ভূমিকা: বালম ক্ষীরা বা Kigelia africana হচ্ছে Kigelia গণের একমাত্র সপুষ্পক বৃক্ষ। হিন্দিতে এটিকে বলে বালম ক্ষীরা। শসার মতো ফল হয়। বাংলাদেশ সরকারের উচিৎ এই গাছটির সংরক্ষণে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করা৷   এটি দক্ষিণ আফ্রিকা, সেনেগাল, চাদ, ইরিত্রিয়া ও নামিবিয়ায় সহজলভ্য। বর্ণনা:  বালম ক্ষীরা বৃহৎ আকৃতির বিস্তৃত বৃক্ষ, প্রায় ৩০ মিটার উঁচু,

শিরীষ গাছের বিভিন্ন ঔষধি ব্যবহার

পরিচিতি এই গাছটির বোটানিক্যাল নাম Albizzia lebbeck Benth. ফ্যামিলি (Leguminosae.) একে মহীরুহ বলা চলে, রাস্তার ধারে সাধারণত  এ গাছকে লাগানো হয় ছায়াতরু হিসেবে; এই গণের (genus) আরও কয়েকটি প্রজাতি (species) এ দেশে আছে। আয়ুর্বেদে আরও দুই প্রকার শিরীষের নামোল্লেখ দেখা যায় যেমন -কষ্ণশিরীষ, কাঁটা শিরীষ ইত্যাদি। রোগের প্রতিকারে ব্যবহার করা হয় মূল

বহেড়ার ১৪টি ঔষধি গুণ

বহেড়া ঔষধি গাছ। এর বৈজ্ঞানিক নাম Terminalia belerica.  পরিবার Combretaceae.  বহেড়া বৃক্ষ ৬০ থেকে ১০০ ফুট পর্যন্ত উচু হতে দেখা যায়, গাছের গুড়িও বেশ লম্বা, অবশ্য ছাল খুব বেশি পুরু হয় না, পাতা ৩ থেকে ৭ বা ৮ ইঞ্চি লম্বা হয়। বহেড়া সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আরো পড়ুন বহেড়া এশিয়ার ঔষধি বৃক্ষ ঔষধ

হরিতকীর ১৪টি ভেষজ গুণ

বাংলাদেশ ও ভারতে এর আদি নিবাস। বাকল গাঢ় বাদামি। বাকলে লম্বা ফাটল থাকে।  ঔষধি গুণে সম্পুন্ন হরিতকী ত্রিফলার মধ্যে একটি। এর বৈজ্ঞানিক নাম Terminalia chebula ও পরিবার Combretaceae. বিভিন্ন রোগের প্রতিকারে: ১. অর্শরোগ: হরিতকীর চূর্ণ ৩ থেকে ৫ গ্রাম (কোষ্ঠকাঠিন্যের অবস্থাভেদে) মাত্রায় ঘোলের সঙ্গে একটু, সৈন্ধব লবণ মিশিয়ে খেলে উপশম হয়ে থাকে। ২.

রুদ্রাক্ষ এশিয়ার ঔষধি উদ্ভিদ

পরিচিতি: রুদ্রাক্ষ এলিওকারপাসি (Elaeocarpaceae) ফ্যামিলিভুক্ত, সমগ্র পৃথিবীতে এর ৯০টি প্রজাতি (species) আছে; তার মধ্যে ভারতবর্ষে ১৯টি বর্তমান। গাছটি দেখতে অনেকটা আমাদের দেশের মাঝারি ধরণের বকুল (Mimusops elengi) গাছের সঙ্গে সাদশ্য আছে। তার গুচ্ছবদ্ধ ফল আকারে ও বিন্যাসে পিটলি গাছের (Trewia nudiHora) মতো। ফলের শাস টক, এই শাস মৃগী রোগে উপকারী।

Top