You cannot copy content of this page
আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > Posts tagged "দার্শনিক"

ইবনে সিনা ছিলেন দার্শনিক, চিকিৎসাবিদ, পদার্থবিজ্ঞানী এবং কবি

মধ্য এশিয়ার বুখারার আবু আলী ইবনে সিনা (ইংরেজি: Ibn Sina বা Abu Ali Sina বা Pur Sina বা Avicenna; ৯৮০ – জুন ১০৩৭ খ্রি.) ইউরোপে দার্শনিক আভিসেনা নামে পরিচিত। দার্শনিক, চিকিৎসাবিদ, পদার্থবিজ্ঞানী এবং কবি ইবনে সিনার জীবন ছিল বিপুল জ্ঞানরাশিতে সমৃদ্ধ ও ঘটনায় বিচিত্র। অতি অল্প বয়সে তাঁর বুদ্ধির আশ্চর্য দীপ্তি

ইবনে রুশদ ছিলেন আরব সভ্যতার বিখ্যাত দার্শনিক ও বৈজ্ঞানিক

ইবনে রুশদ (ইংরেজি: Ibn Rushd বা Averroes; ১১৬২- ১১ ডিসেম্বর ১১৯৮ খ্রি.) ছিলেন আরব সভ্যতার বিখ্যাত দার্শনিক ও বৈজ্ঞানিক। ইউরোপে তিনি ‘আভারস’ নামে পরিচিত। জন্ম মুসলিম সাম্রাজ্যভুক্ত স্পেনের কর্ডোভা শহরে। আইন, ধর্মতত্ত্ব, অংকশাস্ত্র, চিকিৎসাবিজ্ঞান এবং দর্শন অর্থাৎ জ্ঞানের বিভিন্ন ক্ষেত্রেই তাঁর অগাধ প্রগাঢ় পান্ডিত্য ছিল। ইবনে রুশদের দার্শনিক চিন্তার বৈশিষ্ট্য

ইবনে খালদুন আরব সভ্যতার ঐতিহাসিক, সমাজতাত্ত্বিক এবং ইতিহাসের দার্শনিক

আরব সভ্যতার ঐতিহাসিক, সমাজতাত্ত্বিক এবং ইতিহাসের দার্শনিক হিসাবে ইবনে খালদুন-(ইংরেজি: Ibn Khaldun; ২৭ মে ১৩৩২ – ১৭ মার্চ ১৪০৬ খ্রি.) এর নাম সুবিখ্যাত। উত্তর আফ্রিকার তিউনিসে তাঁর জন্ম। তাঁর শিক্ষাগত ও রাজনৈতিক জীবনের বিচিত্র কর্মকান্ডের কেন্দ্র প্রধানত উত্তর আফ্রিকা। মাত্র বিশ বছর বয়সে দেশের সুলতানের অধীনে গুরুত্বপূর্ণ পদে তিনি নিযুক্ত

ডেভিড হিউম ছিলেন ইংরেজ ভাববাদী দার্শনিক

ডেভিড হিউম (ইংরেজী: David Hume; ৭ মে ১৭১১ – ২৫ আগস্ট ১৭৬৬ খৃ.) ছিলেন ইংরেজ ভাববাদী দার্শনিক যিনি মনোবিজ্ঞানী এবং ঐতিহাসিক হিসেবে খ্যাত ছিলেন। জ্ঞানের সমস্যার যে ব্যাখ্যা হিউম উপস্থাপিত করেন তা পরবর্তীতে ভাববাদী দর্শনকে বিপুলভাবে প্রভাবিত করেন। ‘জ্ঞানের মূল হচ্ছে ভাব’- এ তত্ত্ব দুটি ধারার সৃষ্টি করে। জন লক বলেছেন,

সুন জু প্রাচীন চীনের একজন বস্তুবাদী দার্শনিক ছিলেন

সুন জু (ইংরেজি: Hsun Tzu বা Xunzi বা বা Xun Kuang; ৩১০-২২০ খৃ.পূ) প্রাচীন চীনের একজন বস্তুবাদী দার্শনিক ছিলেন। তাঁর সময়কার প্রচলিত চিন্তাধারার তিনি ছিলেন বিরোধী। সমগ্র বিশ্বকে বস্তু হিসেবে ব্যাখ্যা করার তিনি চেষ্টা করেন। বিশ্বের কোনো স্রষ্টা আছে-এ কথা তিনি বিশ্বাস করতেন না। তিনি প্রকৃতির ক্ষেত্রে দুটি শক্তি অস্তি

মার্টিন হাইডেগার ছিলেন জার্মান অস্তিত্ববাদী দার্শনিক

মার্টিন হাইডেগার (ইংরেজি: Martin Heidegger; ২৬ সেপ্টেম্বর ১৮৮৯ - ২৬ মে ১৯৭৬ খ্রি.) জার্মান অস্তিত্ববাদী দার্শনিক। তিনি ফ্যাসিবাদের পোষকতা করে ১৯৩৩ সালে ফ্রাইবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেক্টর নিযুক্ত হন। দ্বিতীয় মহাযুদ্ধে ফ্যাসিবাদের পরাজয়ের পরে উক্ত পদ থেকে তাঁকে অপসারিত করা হয়। অস্তিত্ববাদী চিন্তাধারায় হাইডেগার কিয়ের্কেগার্ডের অনুসারী। তবে কিয়ের্কেগার্ড যেখানে অন্ধবিশ্বাসের হাতে আত্মসমর্পণকে

হেগেল ছিলেন জার্মান দার্শনিক এবং জার্মান ভাববাদের একজন গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র

গেওর্গ ভিলহেল্ম ফ্রিডরিখ হেগেল বা জর্জ উইলহেলম ফ্রিডরিখ হেগেল (ইংরেজি: Georg Wilhelm Friedrich Hegel; ২৭ আগস্ট ১৭৭০-১৪ নভেম্বর ১৮৩১ খ্রি.) ছিলেন একজন জার্মান দার্শনিক এবং জার্মান ভাববাদের এক্জন গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র। তার মধ্যে জার্মান ভাববাদী দর্শনের চরম প্রকাশ ঘটে। ভাবের বাস্তব তত্ত্বের জন্য অনেকে তাঁর দর্শনকে ‘বাস্তব ভাববাদ বলেও আখ্যায়িত করেন।

হরিদাস ভট্টাচার্য ছিলেন অবিভক্ত ভারতের দার্শনিক, অধ্যাপক ও বাগ্মী

হরিদাস ভট্টাচার্য (ইংরেজি:Haridas Bhattacharya; ৭ নভেম্বর ১৮৯১ – ২০ জানুয়ারি ১৯৫৬ খ্রি.) ছিলেন অবিভক্ত ভারতের একজন প্রখ্যাত দার্শনিক, অধ্যাপক ও বাগ্মী। তিনি তুলনামূলক ধর্মতত্ত্বের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথমে অধ্যাপনা শুরু করেন। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে জীবনের প্রথম দিকে অধ্যাপনাকালে হরিদাস ভট্টাচার্য প্রখ্যাত ভারতীয় দার্শনিক আচার্য ব্রজেন্দ্র নাথ শীলের প্রশংসাধন্য

টমাস হিল গ্রীন ছিলেন উনিশ শতকের ইংল্যাণ্ডের শিক্ষাবিদ এবং দার্শনিক

টমাস হিল গ্রীন বা টি. এইচ. গ্রীন (ইংরেজি: Thomas Hill Green; ৭ এপ্রিল ১৮৩৬ – ১৫ মার্চ ১৮৮২ খ্রি.) ছিলেন ঊনবিংশ শতকের ইংল্যাণ্ডের একজন প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ এবং দার্শনিক। টমাস হিল গ্রীন এবং তাঁর সমকালের এবং এই চিন্তার অধিকারী দার্শনিক ব্রাডলে এবং বোসাঙ্কোয়েটকে সাধারণত অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের নব ভাববাদী বলে আখ্যায়িত করা

রবার্ট ফিলমার ছিলেন সপ্তদশ শতকের ইংল্যাণ্ডের একজন রাষ্ট্রচিন্তাবিদ

রবার্ট ফিলমার (ইংরেজি: Robert Filmer; ১৫৮৯- ২৬ মে ১৬৫৩ খ্রি.) সপ্তদশ শতকের ইংল্যাণ্ডের একজন রাষ্ট্রচিন্তাবিদ। রবার্ট ফিলমার অবশ্য অধিক খ্যাতিলাভ করেন তাঁর মৃত্যুর পর। ১৬৪৯-এর গৃহযুদ্ধে পার্লামেন্ট-পক্ষের বিজয় এবং রাজার বিচার ও রাজার শিরচ্ছেদ ঘটলেও ক্রমওয়েলের পার্লামেন্টীয় শাসনের পরে ইংল্যাণ্ডে পুনরায় রাজতন্ত্রের প্রবর্তন ঘটে। সপ্তদশ শতকের সময়কার ইংল্যাণ্ডে রাজা বনাম

Top