আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > Posts tagged "দারুবৃক্ষ"

খিরনি বা খিরখেজুর বৃহৎ চিরহরিৎ শুষ্ক অঞ্চলের উদ্ভিদ

ভূমিকা: খিরনি বা খির খেজুর বা খিলুনি (বৈজ্ঞানিক নাম: Manilkara hexandra) হচ্ছে সাপোটাসি পরিবারের মানিলকারা গণের সপুষ্পক একটি বৃক্ষ। এটি ফলজ উদ্ভিদ হিসাবে বাগানে, পুকুরের পাড়ে, রাস্তার ধারে লাগানো হয়ে থাকে।   বর্ণনা: খিরনি বৃহৎ চিরহরিৎ বৃক্ষ, দুধসদৃশ আঠাযুক্ত, বাকল ধূসর-বাদামী, অগ্রস্থ অংশ ছড়ানো। পত্র সরল, একান্তর, বৃন্তক, শাখাপ্রশাখার শেষ প্রান্তে

তেন্দু বাংলাদেশ ভারত শ্রীলংকার অর্থকরী দারুবৃক্ষ

বৈজ্ঞানিক নাম: Diospyros melanoxylon Roxb., সমনাম: Diospyros tupru Buch.-Ham. (1827), Diospyros dubia Wall. ex A. DC. (1848), Diospyros esculpta Beddome (1871). ইংরেজি নাম: Indian Ebony, Ebony Persimmon. স্থানীয় নাম: তেন্দু, বিড়িপাতা, টেন্ডু। জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস জগৎ/রাজ্য: Plantae - Plants  শ্রেণী: Eudicots উপশ্রেণি: Asterids বর্গ:  Ericales পরিবার: গণ: Diospyros প্রজাতি: Diospyros melanoxylon Roxb., PI. Corom. 1: 36 (1795). বর্ণনা: তেন্দু এবিনাসি পরিবারের ডিয়োসপিরোস গণের সপুষ্পক উদ্ভিদের

দেশি গাব দক্ষিণ ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার ভেষজ ফলদ বৃক্ষ

বৈজ্ঞানিক নাম: Diospyros malabarica Diospyros (Desr.) Kostel., Allg. Med.-Pharm. Fl. 3: 1099 (1834). সমনাম: Diospyros embryopteris Pers. (1807), Diospyros peregrina Guerke (1891). ইংরেজি নাম: Indian Persimmon, River Ebony, Malabar Ebony, Wild Mangosteen. স্থানীয় নাম: গাব, দেশি গাব, মাকুর কোন্দি, কালা-তেন্দু। জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস জগৎ/রাজ্য: Plantae - Plants  শ্রেণী: Eudicots উপশ্রেণি: Asterids বর্গ:  Ericales পরিবার: গণ: Diospyros প্রজাতি: Diospyros malabarica Diospyros (Desr.) Kostel., বর্ণনা: দেশি গাব

মালয় পাতি এবোনি দক্ষিণ ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দারুবৃক্ষ

বৈজ্ঞানিক নাম: Diospyros lanceifolia Roxb. সমনাম: Diospyros pachyphylla C. B. Clarke (1832), Diospyros lucida Wall. ex A. DC. (1844), Diospyros clavigera C. B. Clarke var: pachyphylla (Clarke) Ridl. (1923). ইংরেজি নাম: Common Malayan Ebony স্থানীয় নাম: মালয় পাতি এবোনি। স্থানীয় নাম: কালো এবোনি। জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস জগৎ/রাজ্য: Plantae - Plants  শ্রেণী: Eudicots উপশ্রেণি: Asterids বর্গ:  Ericales পরিবার: গণ: Diospyros প্রজাতি: Diospyros lanceifolia Roxb., Fl. Ind.

চাপালিশ মোরাসি পরিবারের আর্টোকারপাস গণের একটি বৃহৎ বৃক্ষ

বৈজ্ঞানিক নাম: Artocarpus chama Buch.-Ham. ex Wall. Cat. 4657 (1814). বাংলা নাম: চাপালিশ, চাম্বল, চাম্বুল, চাম, কাঁঠালি চাম, টোপোনি (মগ), ছহ্রাম বা বলস্রাম (গারো)। সমনাম: Artocarpus chaplasha Roxb. (1832). ইংরেজি নাম: Monkey Jack. জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস জগৎ/রাজ্য: Plantae - Plants উপরাজ্য: Angiosperms বিভাগ: Eudicots শ্রেণী: Rosids বর্গ: Rosales পরিবার: Moraceae গণ: Artocarpus প্রজাতি: Artocarpus chama Buch.-Ham. ex Wall. Cat. 4657 (1814). বর্ণনা: চাপালিশ মোরাসি বা

আর্টোকারপাস হচ্ছে তুঁত পরিবারের বৃক্ষের একটি গণের নাম

গণের বৈজ্ঞানিক নাম: Artocarpus J.R. and G. Forst. বাংলা নাম: নেই, জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস জগৎ/রাজ্য: Plantae - Plants উপরাজ্য: Angiosperms বিভাগ: Eudicots শ্রেণী: Rosids বর্গ: Rosales পরিবার: Moraceae গণ: Artocarpus J.R. and G. Forst., Char. Gen. Pl.: 101 (1776). বর্ণনা: আর্টোকারপাস হচ্ছে তুঁত বা মোরাসি পরিবারের মাঝারি থেকে বৃহদাকার, চিরহরিৎ অথবা অর্ধপত্রঝরা বৃক্ষ। এদের দুগ্ধবৎ তরুক্ষীর বর্তমান। পাতা সরল, একান্তর, সবৃন্তক, ফলক

মালাইং মাঝারি আকারের পত্রঝরা বৃক্ষ

বৈজ্ঞানিক নাম: Broussonetia papyrifera (L.) সমনাম: Morus papyrifera L. (1753). । ইংরেজি নাম: Paper Mulberry. বাংলা নাম: মাইলাং, জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস জগৎ/রাজ্য: Plantae - Plants উপরাজ্য: Angiosperms বিভাগ: Eudicots শ্রেণী: Rosids বর্গ: Rosales পরিবার: Moraceae গণ: Broussonetia প্রজাতি: Broussonetia papyrifera (L.) L'Herit. ex Vent., Tabl. Regn. Veg. 3: 547 (1799). বর্ণনা: মালাইং মাঝারি আকারের পত্রঝরা বৃক্ষ, ২০ মিটার পর্যন্ত উঁচু, বাকল গাঢ় ধূসর, মসৃণ, উপশাখাসমূহ

টালি বাংলাদেশের রক্ষিত মহাবিপন্ন বৃক্ষ

বিবরণ: টালি মাঝারি থেকে বড় আকারের অনুভূমিকভাবে বিস্তৃত ডালপালা বিশিষ্ট চিরসবুজ বৃক্ষ, উচ্চতায় প্রায় ২০ মিটার পর্যন্ত হয়। এদের  গুঁড়ি বা কাণ্ড সরল, সোজা এবং গোলাকার। বাকল মসৃণ, গাঢ় বাদামি বর্ণের এবং বাকলে রয়েছে দুধ সাদা কষ। টালির পাতা আয়তাকার, লম্বায় ১৫-৩০ সেন্টিমিটার এবং পাতাগুলো ডালপালার মাথায় গুচ্ছবদ্ধভাবে চক্রাকারে সজ্জিত।

তমাল বাংলাদেশের সংরক্ষিত দারুবৃক্ষ

বিবরণ: তমাল এবিনাসি পরিবারের ডিয়োসপিরোস গণের সপুষ্পক উদ্ভিদের একটি ছোট বৃক্ষ। এরা প্রায় ১৫ মিটার উঁচু, কান্ড ও পল্লব কখনও কন্টকিত, বাকল গাঢ় বাদামী।[১]  ই গাছের গুঁড়ি কাণ্ড আঁকাবাঁকা ও আঁকাবাঁকা ডালপালায় বিস্তৃত। বাকল অমসৃণ ও গাঢ় ধূসর বর্ণের এবং বাকলের উপরিভাগের ছোট ছোট আস্তর খসে পড়ে। এদের পাতা সরল, একান্তর,

গামার গাছ বাংলাদেশ ও ক্রান্তীয় অঞ্চলের বৃক্ষ

বৈজ্ঞানিক নাম: Gmelina arborea সমনাম: Gmelina arborea var. canescens Haines; Gmelina arborea var. glaucescens C.B.Clarke; Gmelina rheedei Hook. [Illegitimate]; Gmelina sinuata Link বাংলা নাম: গামার, গামারি, গাম্বার। ইংরেজি নাম: Chandahar Tree, Cashmere Tree, Comb Teak, White Teak. আদিবাসি নাম: গাম্ভার, বল-কোবাক(গারো), রামানি (মগ), রেমেনিবা (মারমা), গামারি গাছ (তঞ্চঙ্গা), আব্বেই(খুমি)। গামারি-ফঙ(মান্দি)। জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস জগৎ/রাজ্য: Plantae -

Top