আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > প্রাণ > প্রাণী > উভচর > মার্বেল কুনো ব্যাঙ বাংলাদেশের ন্যুনতম বিপদগ্রস্ত এবং এশিয়ার ব্যাঙের প্রজাতি

মার্বেল কুনো ব্যাঙ বাংলাদেশের ন্যুনতম বিপদগ্রস্ত এবং এশিয়ার ব্যাঙের প্রজাতি

ব্যাঙের প্রজাতি

মার্বেল কুনো ব্যাঙ

বাংলা নাম: মার্বেল কুনো ব্যাঙ, ইংরেজি নাম: Indian marbled toad, Assam toad, Indus Valley toad, বা marbled toad, বৈজ্ঞানিক নাম/Scientific Name: Bufo stomaticus,
জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্য: Animalia, বিভাগ/Phylum: Chordata, শ্রেণী/Class: Amphibia, বর্গ/Order: Anura, পরিবার/Family:Bufonidae, গণ/Genus: Bufo, প্রজাতি/Species Name: Bufo stomaticus, Lütken, 1864

বর্ণনা: বাংলাদেশের ব্যাঙের তালিকায় মার্বেল কুনো ব্যাঙ বাংলাদেশের এক প্রজাতির ব্যাঙ। এই প্রজাতির ব্যাঙের দেহ মাঝারি ধরনের বড়; তুন্ডের শীর্ষ থেকে পায়ু পর্যন্ত দেহের দৈর্ঘ্য ৭৫ মিলিমিটার। মাথার দৈর্ঘ্যের চেয়ে প্রস্থ বেশি, মাথার খাঁজ অনুপস্থিত। তুণ্ড ভোঁতা এবং অবতল।

স্বভাব ও আবাসস্থল: এই প্রজাতির ব্যাঙ সমতলভূমি, তৃণভূমি, বনাঞ্চল, কৃষিজ জমি, স্বাদু পানি, গ্রাম অঞ্চলের বাগান, পুকুর এবং শহরে এবং মানুষের আবাসস্থলসহ সর্বত্র ব্যাপকভাবে বিস্তৃত।

বিস্তার: এই প্রজাতির ব্যাঙ এদেরকে এশিয়ার ইরান, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, ভারত, নেপাল, বাংলাদেশ অতিক্রম করে ভারতীয় পেনিনসুলার সমভূমি থেকে ১৮০০ মিটার উচ্চতায় পাওয়া যায়। এটি বিশেষভাবে ভারতীয় উপত্যকায় দেখা যায়।

অবস্থান: এই প্রজাতির ব্যাঙ বাংলাদেশে কদাচিৎ পাওয়া যায়। এদেরকে আইইউসিএন ন্যুনতম বিপদগ্রস্ত প্রজাতি হিসেবে ঘোষণা করেছে।

আরো পড়ুন:  রঙিন ভেনপু ব্যাঙ বিশ্বে বিপদমুক্ত এবং বাংলাদেশের অপ্রতুল তথ্যশ্রেণির ব্যাঙ
Anup Sadi
অনুপ সাদির প্রথম কবিতার বই “পৃথিবীর রাষ্ট্রনীতি আর তোমাদের বংশবাতি” প্রকাশিত হয় ২০০৪ সালে। তাঁর মোট প্রকাশিত গ্রন্থ ১১টি। সাম্প্রতিক সময়ে প্রকাশিত তাঁর “সমাজতন্ত্র” ও “মার্কসবাদ” গ্রন্থ দুটি পাঠকমহলে ব্যাপকভাবে সমাদৃত হয়েছে। ২০১০ সালে সম্পাদনা করেন “বাঙালির গণতান্ত্রিক চিন্তাধারা” নামের একটি প্রবন্ধগ্রন্থ। জন্ম ১৬ জুন, ১৯৭৭। তিনি লেখাপড়া করেছেন ঢাকা কলেজ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। ২০০০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে এম এ পাস করেন।

Leave a Reply

Top
You cannot copy content of this page