বিক্সাসি হচ্ছে সপুষ্পক উদ্ভিদের গুল্ম, বীরুৎ ও বৃক্ষ জাতীয় একটি পরিবারের নাম

ভূমিকা: বিক্সাসি (লাতিন: Bixaceae) হচ্ছে সপুষ্পক উদ্ভিদের গুল্ম, বীরুৎ ও বৃক্ষ জাতীয় একটি পরিবারের নাম। এই পরিবারের অন্তর্গত গনের প্রজাতিগুলো গুল্ম, বীরুৎ, বৃক্ষ হয়। উষ্ণমন্ডলীয় অঞ্চলে এই গোত্রের প্রজাতিগুলোর ফুল উজ্জ্বল রঙের হয়।

জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস জগৎ/রাজ্য: Plantae – Plants অবিন্যাসিত: Angiosperms অবিন্যাসিত: Eudicots অবিন্যাসিত: Rosids বর্গ: Malvales পরিবার: Bixaceae

বিবরণ: বিক্সাসি পরিবারের উদ্ভিদগুলো হয় বৃক্ষ, গুল্ম বা কখনও গ্রন্থিক যুক্ত বীরুৎ বা অর্ধ-গুল্ম। ট্যানিন যুক্ত, লাল বা কমলা বর্ণের ক্ষরণশীল কলা বিদ্যমান, মসৃণ বা রোমশ। পত্র একান্তর, সরল, অখন্ড করতলাকার শিরাবিন্যাস থেকে করতলাকার খন্ডিত, কখনও করতলাকার যৌগিক, উপপত্র লক্ষণীয় বৃদ্ধিপ্রাপ্ত।

এদের পুষ্প বিন্যাস প্যানিকেল বা রেসিম। পুষ্প উভলিঙ্গ, সমাঙ্গ বা সামান্য অসমাঙ্গ, অধিগর্ভ, বৃত্যংশ ৫ টি, মুক্ত, প্রান্ত-আচ্ছাদী, পর্ণমোচী। পাপড়ি ৫ টি, মুক্ত, প্রান্ত-আচ্ছাদী বা সংবর্ত। পুংকেশর অনেক, প্রায়শ আঁটিবদ্ধ, পরাগধানী দ্বিখন্ডী, ছিদ্র বা চিড় বিদারী। গর্ভপত্র ২ থেকে ৫ টি, যুক্ত, গর্ভাশয় যৌগিক, গর্ভদন্ড একল, ডিম্বক অসংখ্য। ফল কোষ্ঠীবিদারী ক্যাপসিউল। বীজ অনেক হয়।

Bixaceae গোত্রে ৩টি গণ ও প্রায় ২২টি প্রজাতি আছে। পৃথিবীর উষ্ণমন্ডলীয় অঞ্চলে বিস্তৃত। বাংলাদেশে এর ১টি গণ ও ১টি প্রজাতি আছে। বাংলাদেশে প্রাপ্ত প্রজাতিটি হচ্ছে দইগোটা

বিক্সা: বিক্সা (লাতিন:Bixa) গণের প্রজাতিগুলো খাটো চিরহরিৎ বৃক্ষ বা গুল্ম, লালাভ রস যুক্ত। পাতা সরল, একান্তর সোপপত্রিক, তাম্বুলাকৃতি-ডিম্বাকার, দীর্ঘা, করতালাকার বা আঙ্গুলাকৃতি শিরাবিন্যাস এবং সামান্য খন্ডিত বা অখন্ডিত, বৃন্ত গুচ্ছাকারে রোমশ।

পুষ্পবিন্যাস শীর্ষীয় প্যানিকেল। পুষ্প বহুপ্রতিসম, উভলিঙ্গ, বৃতি ৫ টি তবে কদাচিৎ ৪ টিও হয়। সুস্পষ্ট, প্রান্ত-আচ্ছাদী, পর্ণমোচী। পাপড়ি ৫ টি, বৃহৎ ও রঙিন, প্রান্ত-আচ্ছাদী, কুড়ি অবস্থায় পাকানো, পুংকেশর অসংখ্য, মুক্ত। গর্ভপত্র ২ টি, গর্ভাশয় অধিগর্ভ, এক প্রকোষ্ঠী বা অমরার বৃদ্ধির কারণে অসম্পূর্ণ দ্বি-প্রকোষ্ঠী, ডিম্বক অনেক, ২ টি গাত্রীয় অমরাবিন্যাসে সন্নিবেশিত। গর্ভদন্ড সরু, বক্র, গর্ভমুন্ড খাজ যুক্ত।

আরো পড়ুন:  রুটেসি হচ্ছে সপুষ্পক উদ্ভিদের সাপিনডালেস বর্গের একটি পরিবারের নাম

এই গণের প্রজাতির ফল কোষ্ঠীবিদারী ক্যাপসিউল। ২ টি কপাটিকা যুক্ত, প্রায়শ কপাটিকা অমরাবিহীন এবং কন্টকিত। বীজ বিডিম্বাকার, অনেক, উজ্জ্বল লাল, বীজ বহিস্তৃক সরস, বীজপত্র চ্যাপ্টা, সস্যল।

তথ্যসূত্র:

১. মাহবুবা খানম (আগস্ট ২০১০)। “অ্যানজিওস্পার্মস ডাইকটিলিডনস” আহমেদ, জিয়া উদ্দিন; হাসান, মো আবুল; বেগম, জেড এন তাহমিদা; খন্দকার মনিরুজ্জামান। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ। ৭ (১ সংস্করণ)। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। পৃষ্ঠা ৩০। আইএসবিএন 984-30000-0286-0

Leave a Comment

error: Content is protected !!