পান নাতা বাংলাদেশে জন্মানো বর্ষজীবী ভেষজ বিরুৎ

বিরুৎ

পান নাতা

বৈজ্ঞানিক নাম: Alysicarpus vaginalis DC., Prodr. 2: 353 (1825), সমনাম: Hedysarum vaginale L. (1753), Hedysarum nummularifolium auct. non L. (1802), Hedysarum cylindricum Lamk. (1805). ইংরেজি নাম: Alyce Clove. স্থানীয় নাম: পান নাতা।
জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্য: Plantae, বিভাগ: Tracheophytes. অবিন্যাসিত: Angiosperms. অবিন্যাসিত: Eudicots. বর্গ: Fabales. পরিবার: Fabaceae. গণ: Alysicarpus, প্রজাতি: Alysicarpus vaginalis.

ভূমিকা: পান নাতা (বৈজ্ঞানিক নাম: Alysicarpus vaginalis) হচ্ছে ভারতীয় উপমহাদেশে জন্মানো ভেষজ উদ্ভিদ। তৃণ হিসাবে গবাদি পশুকে খাওয়ানো হয়। এছাড়াও ভেষজ ঔষধদের জন্য ব্যবহৃত হয়।

পান নাতা-এর বর্ণনা:

পান নাতা ব্যাপিত ও বর্ষজীবী বীরুৎ। এদের কান্ড বলিষ্ঠ, ঊর্ধ্বারোহী, প্রায় ১ মিটার লম্বা, রোমহীন বা সামান্য চাপা রোমশ। পত্রক রোমহীন, ১.৫-২.৫ সেমি লম্বা, প্রস্থের দ্বিগুণ লম্বা, সাধারণত আয়তাকার, কদাচিৎ বল্লমাকার, শীর্ষ স্থূলাগ্র, গোড়া হৃৎপিন্ডাকার।

এই প্রজাতির রেসিম দীর্ঘায়িত, ৬-১২ পুষ্পক, ৫-৭ সেমি লম্বা, পুষ্পবৃন্ত বৃতি থেকে খাটো। বৃতি রোমহীন, দন্তক রেখাকার, দৃঢ় রোমাকৃতি, নল ছাড়িয়ে যায়, নিম্নে সামান্য যুক্ত, খন্ডক বর্মপত্রযুক্ত, অসমান, একমাত্র উপরের ২টি শীর্ষের নিকট যুক্ত।

ফুলের পাপড়ি বহির্মুখী, ধ্বজক বিডিম্বাকার বা বর্তুলাকার, সর বৃন্তযুক্ত, পক্ষ তির্যক আয়তাকার, তরীদলের সাথে যুক্ত, তরীদল আংশিক অভ্যন্তরে বক্র, স্থূলাগ্র।

ফুলের পুংকেশর ১০টি, ধ্বজকীয় পুংদন্ড মুক্ত, বাহিরেরটি যুক্ত। ফল পড আকৃতির ও সূক্ষ্ম রোমশযুক্ত, কুঞ্চিত, প্রাক্ত স্থূল।

ক্রোমোসোম সংখ্যা: ২n = 16, 20 (Kumar and Subramaniam, 1986).

আবাসস্থল ও বংশ বিস্তার:

এই বিরুৎ আর্দ্র তৃণভূমির উদ্ভিদ। এদের বংশ বিস্তার হয় বীজ দ্বারা। গাছে ফুল ও ফল ধারণ হয় জুলাই-আগস্ট। বিস্তৃতি: ভারতীয় উপমহাদেশ এই প্রজাতি জন্মে। তবে, বাংলাদেশের সমগ্র এলাকায় বিস্তৃত।

পান নাতা-এর অর্থনৈতিক ব্যবহার ও গুরুত্ব:

মূলত, সবুজ সার, ভূমি ক্ষয়রোধী শস্য এবং গো-খাদ্যরূপে ব্যবহৃত (Purseglove, 1968)। জাতিতাত্বিক ব্যবহার: এছাড়া, ভেষজ চিকিৎসার জন্য জাভার মানুষ মূল সিদ্ধ ক্বাথ কাশির জন্য ব্যববহার করা হয় (Chopra et al., 1956)।

আরো পড়ুন:  সোজা জাতা কানশিরা শোভাবর্ধক ও ভেষজ বিরুৎ

অন্যান্য তথ্য: বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষের  ৮ম খণ্ডে (আগস্ট ২০১০) পান-নাতা প্রজাতিটির সম্পর্কে বলা হয়েছে যে, এদের শীঘ্র কোনো সংকটের কারণ দেখা যায় না এবং বাংলাদেশে এটি আশঙ্কামুক্ত হিসেবে বিবেচিত।

বাংলাদেশে পান-নাতা সংরক্ষণের জন্য কোনো পদক্ষেপ গৃহীত হয়নি। প্রজাতিটি সম্পর্কে প্রস্তাব করা হয়েছে যে এই প্রজাতিটির বর্তমানে সংরক্ষণের প্রয়োজন নেই। 

তথ্যসূত্র:

১. এ টি এম নাদেরুজ্জামান (আগস্ট ২০১০) “অ্যানজিওস্পার্মস ডাইকটিলিডনস” আহমেদ, জিয়া উদ্দিন; হাসান, মো আবুল; বেগম, জেড এন তাহমিদা; খন্দকার মনিরুজ্জামান। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ (১ সংস্করণ)। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। খন্ড ৮ম, পৃষ্ঠা ৮। আইএসবিএন 984-30000-0286-0

বি. দ্র: ব্যবহৃত ছবি উইকিমিডিয়া কমন্স থেকে নেওয়া হয়েছে। আলোকচিত্রীর নাম: Vinayaraj

Leave a Comment

error: Content is protected !!