আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > প্রাণ > উদ্ভিদ > বীরুৎ > বোতামফুল বাংলাদেশের শোভাবর্ধক উদ্ভিদ

বোতামফুল বাংলাদেশের শোভাবর্ধক উদ্ভিদ

বোতাম-ফুল

[otw_shortcode_info_box border_type=”bordered” border_color_class=”otw-red-border” border_style=”bordered” rounded_corners=”rounded-5″]বৈজ্ঞানিক নাম: Gomphrena globosa L., Sp. Pl. 1: 224 (1753). সমনাম: জানা নেই। ইংরেজি নাম: Globe Amaranth, Button Flower. স্থানীয় নাম: গুল-মখমল, গোলকমল, বোতামফুল। জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস জগৎ/রাজ্য: Plantae বিভাগ: Angiosperms অবিন্যাসিত: Eudicots অবিন্যাসিত: Core eudicots বর্গ: Caryophyllales পরিবার: Amaranthaceae গণ: Gomphrena প্রজাতি : Gomphrena globosa[/otw_shortcode_info_box]

ভূমিকা: বোতামফুল ( বৈজ্ঞানিক নাম: Gomphrena globosa, ইংরেজি নাম: Globe Amaranth, Button Flower ) হচ্ছে Amaranthaceae পরিবারের Gomphrena গণের একটি সপুষ্পক বীরুৎ। এটিকে বাংলাদেশে আলংকারিক উদ্ভিদ হিসেবে বাগানে বা গৃহে চাষাবাদ করা হয়। বাড়ির টবে বা বাগানের শোভাবর্ধন করে।  এটি আকারে ছোট।

বর্ণনা: বোতামফুল ঋজু বা ঊর্ধ্বগ একবর্ষজীবী বীরুৎ। এটি ৫০ সেমি পর্যন্ত দীর্ঘ হয়, নিম্নাংশ এবং উপর হতে শাখাযুক্ত, সরেখ বা দৈর্ঘ্য বরাবর খাঁজকাটা, সাধারণত পুরু পর্ববিশিষ্ট।

পাতার দৈর্ঘ্য ৩.১ থেকে ৮.৫ প্রস্থ ১.১ থেকে ২.৫ সেমি, উপবৃত্তাকার, বিডিম্বাকার-আয়তাকার বা স্পষ্টতঃ বল্লমাকার, নিম্নাংশ ক্রমান্বয়ে সরু, শীর্ষ সূক্ষ্মাগ্র, চর্মবৎ বা অর্ধ-চর্মবৎ, পৃষ্ঠীয় পার্শ্ব তারকাকার কিন্তু মধ্যশিরা রেশমী, অঙ্কীয়দেশ রোমাবৃত, হালকাভাবে গোলাপি আভাময় সবৃন্তক।

পুষ্পবিন্যাস সবচেয়ে উপরের পত্রযুগলের ঊর্ধ্বাংশে অবৃন্তক, সাধারণত একল বৃহৎ গোলীয় শীর্ষ, রক্তবর্ণ, ব্যাস ১-২ সেমি, মঞ্জরী পত্রাবরন সূক্ষ্মাগ্র, ০.৫-২.০ সেমি দীর্ঘ । মঞ্জরীপত্র ডিম্বাকার বা ব-দ্বীপ সদৃশ-ডিম্বাকার, অল্প বহিঃধাবন্ত মধ্যশিরা বিশিষ্ট উদগ্রশিখর, ৩-৫ মিমি দীর্ঘ, মঞ্জরীপত্রিকা দৃঢ়ভাবে পার্শ্বীয়ভাবে চাপা, অত্যন্ত স্পষ্টভাবে দর-ক্রকচ পৃষ্ঠীয় ঝুঁটি, মঞ্জরীপত্র অপেক্ষা অধিক বর্ধিত, বহিঃধাবন্ত মধ্যশিরা দ্বারা উদগ্রশিখর, গাঢ় রক্তবর্ণ, ৭-১২ x ২.০-৩.৪ সেমি । পুষ্পপুটাংশ সংকীর্ণভাবে বল্লমাকার, বাইরের ৩টি কম বেশি সমতল, শিরা পুরু এবং নিম্নে সবুজাভ, ভেতরের ২টি পার্শ্বীয়ভাবে বক্র এবং শীর্ষের প্রায় নিকটে ঘনভাবে রেশমী।

পুংকেশরীয় নল পুষ্পপুটের প্রায় সমান, ৪-৮ মিমি দীর্ঘ, পরাগধানীর প্রায় সমান, পরাগধানী ১-কোষী, আয়তাকার, হলুদাভ। গর্ভাশয় দীর্ঘায়িত-ডিম্বাকার, গর্ভদণ্ড স্পষ্ট, গর্ভমুণ্ড দ্বিখন্ডিত, গর্ভমুণ্ড অপসারী, গর্ভদণ্ডের সমান বা কিছুটা বৃহত্তর।

ফল ক্যাপসিউল, আয়তাকার-ডিম্বাকার, চাপা, ২.০ X ২.৪ মিমি। বীজ চাপা-ডিম্বাকার, বাদামি, উজ্জ্বল, প্রায় মসৃণ, ১.৫-১.৮ X ১.০-১.২ মিমি।

ফুল ও ফল ধারণ:  বোতামফুল জুন থেকে অক্টোবর মাসের মধ্যে ফোটে।

ক্রোমোসোম সংখ্যা: ২n = ৩২ (Fedorov, 1969)।

আবাসস্থল ও  চাষাবাদ:  উদ্যান এবং বাস্তুভিটায় লাগানো হয়।  নরম মাটিতে এটির বীজ লাগালে ভালো হয়। সুর্যের আলো ও পানি ব্যবস্থা থাকলে ভালো ভাবে বাড়তে পারে।

বিস্তৃতি: বাংলাদেশের ইহা প্রায় সকল জেলায় শোভাবর্ধক উদ্ভিদ হিসেবে চাষ করা হয়।

অর্থনৈতিক ব্যবহার ও গুরুত্বের দিক: পাতার ক্বাথ কাশি, ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপে ব্যবহার করা হয়। পুষ্পের রস অলিগুরিয়া (মূত্র স্বল্পতা) এবং ইমপাকোতে ব্যবহৃত হয় (Ghani, 2003)। এটি শোভাবর্ধক উদ্ভিদ হিসেবেও লাগানো হয়।

অন্যান্য তথ্য: বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষের ৭ম খণ্ডে (আগস্ট ২০১০) বোতামফুল প্রজাতিটির সম্পর্কে বলা হয়েছে যে, এদের শীঘ্র কোনো সংকটের কারণ দেখা যায় না এবং বাংলাদেশে এটি আশঙ্কামুক্ত হিসেবে বিবেচিত। বাংলাদেশে বোতামফুল সংরক্ষণের জন্য কোনো পদক্ষেপ গৃহীত হয়নি। প্রজাতিটি সম্পর্কে প্রস্তাব করা হয়েছে যে এই প্রজাতিটির বর্তমানে সংরক্ষণের প্রয়োজন নেই।[১]

তথ্যসূত্র:

১. এ বি এম রবিউল ইসলাম (আগস্ট ২০১০)। “অ্যানজিওস্পার্মস ডাইকটিলিডনস”  আহমেদ, জিয়া উদ্দিন; হাসান, মো আবুল; বেগম, জেড এন তাহমিদা; খন্দকার মনিরুজ্জামান। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ। ৭ (১ সংস্করণ)। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। পৃষ্ঠা ১১০-১১১। আইএসবিএন 984-30000-0286-0

আরো পড়ুন:  বাবলা ফেবাসি পরিবারের ভ্যাসেলিয়া গণের কাঁটাযুক্ত লাল ফুলের দ্রুত বর্ধনশীল বৃক্ষ
Dolon Prova
জন্ম ৮ জানুয়ারি ১৯৮৯। বাংলাদেশের ময়মনসিংহে আনন্দমোহন কলেজ থেকে বিএ সম্মান ও এমএ পাশ করেছেন। তাঁর প্রকাশিত প্রথম কবিতাগ্রন্থ “স্বপ্নের পাখিরা ওড়ে যৌথ খামারে”। বিভিন্ন সাময়িকীতে তাঁর কবিতা প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়া শিক্ষা জীবনের বিভিন্ন সময় রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক কাজের সাথে যুক্ত ছিলেন। বর্তমানে রোদ্দুরে ডট কমের সম্পাদক।

Leave a Reply

Top
You cannot copy content of this page