চীনা ও আমেরিকান জিনসেং-এর নানাবিধ ভেষজ গুণাগুণ

এই প্রজাতিটি Araliaceae পরিবারের Panax গনের দু’টি প্রজাতি। চীন-জাপান-কোরিয়া এবং তৎসন্নিহিত অন্য দেশ সমূহে কম-বেশি যে Ginseng পাওয়া যায়, সেটির পরিচিতি Panax schinseng Nees (পূর্বে এটির নাম ছিল Panax ginseng Mey.) নামে, চলতি নাম Asiatic or Chinese ginseng, এক কাথায় জিনসেং। অন্য আর একটি প্রজাতি জন্মে আমেরিকা, কানাডা প্রভৃতি অঞ্চলে, তার নাম- Panax quinquefolium Linn., এটি American ginseng নামে পরিচিত।

চীনা ও আমেরিকান জিনসেং-এর ভেষজ গুণাগুণ:

(Panax schinseng & Panax quinquefolium) চীনা ও আমেরিকান জিনসেং-এর ব্যবহার একরূপ ।

১. বিবিধ রোগ সারাতে: উত্তেকি, বলকারক, স্নিগ্ধভাকারক, নষ্ট স্বাস্থ্য পুনরুদ্ধারকারক, কামোদ্দীপক, অবসাদক ও মস্তিষ্কের প্রশান্তিদায়ক, পরিবর্তন-সাধক, পরিপাক শক্তিবর্ধক, বায়ু ও বমননাশক, জ্বরঘ্ন, কফ নিঃসারক, অস্থিরতাহারক প্রভৃতি গুণ-সম্পন্ন।

২. জীবদেহের জন্য ব্যবহার: জীবদেহের রাসায়নিক রূপান্তরে গভীরভাবে (deep influence on metabolism) সাহায্য করে।

৩. রক্তচাপ উঠা-নামায়: রক্তচাপ বৃদ্ধিকে কমাতে এবং রক্তচাপ হ্রাসকে বাড়াতে পারে, যার ফলে এটি যেমন উত্তেজনা কমায়, তেমনি মৃতপ্রায় ব্যক্তির উত্তেজনা বাড়াতেও সাহায্য করে ।

৪. পিটুইটারী গ্রন্থির সমস্যায়: পিটুইটারী গ্লাণ্ডের উপর উত্তেজক হিসেবে কাজ করে, যার ফলে স্ত্রী ও পুরুষের ডিম্বাশয় এবং মুষ্কের (অণ্ড) উপর প্রভাব পড়ে এবং তাতে দু’টি গ্রন্থির শক্তি ও ক্রিয়া বৃদ্ধি পায়। এর দ্বারা স্ত্রী ও পুরুষ উভয়েরই কামশক্তি এবং সন্তানোৎপাদনের শক্তি বাড়ে ।

৫. শ্বাস-প্রশ্বাসের সমস্যায়: মস্তিষ্ক ও অন্যান্য দেহাংশের মধ্যে আবেগাদি পরিবাহী শিরা ও স্নায়ুকে উদ্দীপিত এবং শ্বাস-প্রশ্বাসের কষ্ট লাঘব করে। এটি নষ্ট স্বাস্থ্য পুনরুদ্ধারে এবং পুনর্যৌবন লাভে ( restorative & rejuvenation) সহায়ক।

৬. রক্তের কোলেস্টেরল কমাতে পারে।

রাসায়নিক গঠন:

Panaxoside A & B glucosides, Vit. B-Complex, Steroid hormone, choline প্রভৃতি এর মধ্যে বিদ্যমান থাকায় মূলটি শরীরের উপর নানা ভাবে কাজ করে ।

সাধারণভাবে মূলটিতে যেসব উপাদান পাওয়া যায়, তা হলো— Vitamins & Minerals (Vit. A, B1, B2, B6, B12, C, E, Carotene, Chloraphylla & b, Niacin, Pantothenic acid, Folic acid, Biotin, Para-amino – benzoic acid, Incitol, Calcium, Phosphorus, Iodine, Magnesium, Iron, Zinc, Copper), Amino acid (Lusine, Histidine, Arginine, Aspartic acid, Threonine, Serine, Glutamic acid, Proline, Glycine, Alanine, Custine, Valine, Methionine, Isoleucine, Leucine, Tyrosine, Phenylalanine, Ornithine, Tryptophan ), Volatile oil (terpene, Panacer), Fatty acid, Glucosides, Alkaloides প্রভৃতি ।

আরো পড়ুন:  হস্তিদাঁতী বাংলাদেশের পাহাড়িঞ্চলে জন্মানো ভেষজ উদ্ভিদ

সতর্কীকরণ: ঘরে প্রস্তুতকৃত যে কোনো ভেষজ ওষুধ নিজ দায়িত্বে ব্যবহার করুন।

তথ্যসূত্র:

১. আয়ুর্বেদাচার্য শিবকালী ভট্টাচার্য: চিরঞ্জীব বনৌষধি খন্ড ১১, আনন্দ পাবলিশার্স প্রাইভেট লিমিটেড, কলকাতা, সপ্তম মুদ্রণ ১৪২৬, পৃষ্ঠা, ২৭-২৯

বি. দ্র: ব্যবহৃত ছবি উইকিমিডিয়া কমন্স থেকে নেওয়া হয়েছে। আলোকচিত্রীর নাম: Pittillo, Dan J.

Leave a Comment

error: Content is protected !!