আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > প্রাণ > উদ্ভিদ > গুল্ম > সারস লিলি লনের চারদিকে শোভাবর্ধক বহুবর্ষজীবী সপুষ্পক উদ্ভিদ

সারস লিলি লনের চারদিকে শোভাবর্ধক বহুবর্ষজীবী সপুষ্পক উদ্ভিদ

আলংকারিক ফুলের প্রজাতি

সারস লিলি

বৈজ্ঞানিক নাম: Strelitzia reginae Aiton, Hort. Kew. t. 2. 1: 285 (1789). সমনাম: Strelitzia parvifolia Dryand. (18101813). ইংরেজী নাম: Bird of Paradise, Crane Lily. স্থানীয় নাম: সারস লিলি বা সারস ফুল, বেহেশতের বুলবুলি, স্বর্গের পাখি।
জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্য: Plants; অবিন্যাসিত: Angiosperms; শ্রেণী: Monocots; উপশ্রেণি: Commelinids; বর্গ:  Zingiberales; পরিবার: Strelitziaceae; গণ: Strelitzia; প্রজাতি: Strelitzia reginae

বর্ণনা: সারস লিলি বা সারস ফুল বা বেহেশতের বুলবুলি বা স্বর্গের পাখি (বৈজ্ঞানিক নাম: Strelitzia reginae) হচ্ছে স্ট্রেলিটজিয়াসি পরিবারের স্ট্রেলিটজিয়া গণের বহুবর্ষজীবী ছোট, খাড়া বীরুৎ জাতীয় সপুষ্পক উদ্ভিদ। এরা প্রায় ৬০ সেমি উঁচু, দেহকান্ডহীন, ভূনিম্নস্থ কান্ড (গ্রন্থিকান্ড) থেকে উৎপন্ন শক্ত পত্রের ক্লাম্প দ্বারা আবৃত। পত্র সরল, দ্বিসারি, ১৫-৩০ X ৫.৫-৯.০ সেমি, উপপত্রহীন, পত্রবৃন্ত ২৫ সেমি লম্বা, গোড়ার সীথ খাটো, পত্রফলক ডিম্বাকার-বল্লমাকার থেকে বল্লমাকার, সূক্ষ্মাগ্র, অখন্ড, মধ্যশিরা সুস্পষ্ট, চর্মবৎ, মসৃণ।

সারস লিলিদের পুষ্পমঞ্জরী নৌকা আকৃতির বা ভৌম পুষ্পদন্ডসহ প্রান্তীয়, মঞ্জরীপত্র দ্বিসারি, ১০ সেমি লম্বা, লম্বা ভৌম পুষ্পদন্ডের উপর অনুভূমিক, সবুজ এবং লালাভ নৌকা আকৃতির মঞ্জরীপত্র থেকে পুষ্প উৎপন্ন হয়, ভৌম পুষ্পদন্ড লালাভ সবুজ, পুষ্পবৃন্তিকা ১ সেমি লম্বা, মসৃণ, মঞ্জরীপত্রযুক্ত, মঞ্জরীপত্র ১৫ সেমি লম্বা, লালাভ কিনারাসহ সবুজ, উভলিঙ্গ, সম্পূর্ণ, স্পষ্টভাবে অনিয়মিত, একপ্রতিসম, গর্ভশীর্ষপুস্পী, গাঢ় নীল জিহ্বসহ কমলা বা হলুদ, প্রতি মঞ্জরীপত্রে কিছু সংখ্যক। পুষ্পপুটাংশ ৬টি, ২টি চক্রে বিন্যস্ত, বৃত্যংশ এবং পাপড়ি পৃথকযোগ্য। বৃত্যংশ ৩টি, মুক্ত, প্রায় সমান, ৭.৫-৮.০ x ০.৬-১.০ সেমি, কমলা, বল্লমাকার, মসৃণ। পাপড়ি ৩টি, স্পষ্টভাবে অসমান, পার্শ্বীয় পাপড়ি অসমান এবং সংযুক্ত হয়ে দ্বিপার্শ্বীয়ভাবে সমান, তীর আকৃতির অঙ্গ তৈরি করে যা গর্ভদন্ড এবং পুংদন্ডকে আবৃত করে রাখে, একটি পার্শ্বীয় পাপড়ি প্রায় ৪ সেমি লম্বা এবং অন্যটি প্রায় ৩.৭ সেমি লম্বা, মধ্য পাপড়িটি প্রায় ১.৭x১.০ সেমি, পুষ্পের গোড়ায় স্থাপিত, উজ্জ্বল নীল, মসৃণ। পুংকেশর ৫টি, সবগুলো উর্বর, অন্তর্মুখী, আকৃতিতে সমান, পুংদন্ড খাটো, ১.৬ সেমি লম্বা, পরাগধানী ২-কোষবিশিষ্ট, রৈখিক, শীর্ষ তীক্ষ্ণাগ্র, ৩.৬ সেমি লম্বা, হলুদ। গর্ভপত্র ৩টি, যুক্ত গর্ভপত্রী, গর্ভাশয় ৩-কোষবিশিষ্ট, অধোগর্ভ, প্রস্থে ০.৩ সেমি, প্রতি কোষে ডিম্বক অসংখ্য, অমরাবিন্যাস অক্ষীয়, গর্ভদন্ড ১টি, প্রান্তীয়, ৫.৬ সেমি লম্বা, বাইরের দিকে প্রসারিত, গর্ভমুণ্ড ৩টি, মুক্ত, ২ সেমি লম্বা, আঠালো। ফল ক্যাপসিউল, ৩-কোষবিশিষ্ট। বীজ অসংখ্য। ফুল ধারণ ঘটে ফেব্রুয়ারি থেকে মে পর্যন্ত।

আরো পড়ুন:  দোপাটি ফুল বাগান বা গৃহের আলংকারিক বর্ষজীবী বীরুৎ

ক্রোমোসোম সংখ্যা: 2n = ১৪ (Fedorov, 1969).

চাষ পদ্ধতি ও গুরুত্ব: সারস লিলি উর্বর দো-আঁশ মাটি পছন্দ করে। এরা বংশ বিস্তার করে ক্লাম্পের বিভাজন দ্বারা এবং বীজ দ্বারা। সাধারণভাবে কাটিং ফুল হিসেবে ব্যবহৃত হয়। বাগানে এবং লনের চারদিকে শোভাবর্ধক উদ্ভিদ হিসেবে আবাদ করা হয়।

বিস্তৃতি: দক্ষিণ আফ্রিকা, অস্ট্রেলিয়া এবং ফ্লোরিডা। বাংলাদেশে প্রজাতিটি ঢাকা শহরের কিছু বাগানে আবাদ করা হয়।

অন্যান্য তথ্য: বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষের ১২শ খণ্ডে (আগস্ট ২০১০) সারস লিলি প্রজাতিটির সম্পর্কে বলা হয়েছে যে, এদের বর্তমান অবস্থা জানা নেই এবং প্রজাতিটি অতি সম্প্রতি প্রবতির্ত হয়ছে এবং এখনও বিরল মনে হয়। সংরক্ষণের জন্য কোনো পদক্ষেপ গৃহীত হয়নি, কিন্তু কিছু উদ্ভিদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বোটানিক্যাল গার্ডেনে সংরক্ষণ করা হয়েছে এবং প্রস্তাব করা হয়েছে যে বাগানে আবাদ সম্প্রসারণ করতে হবে।

তথ্যসূত্র:

১. এম এ হাসান এবং নাহিদ সুলতানা, (আগস্ট ২০১০)। “অ্যানজিওস্পার্মস ডাইকটিলিডনস”  আহমেদ, জিয়া উদ্দিন; হাসান, মো আবুল; বেগম, জেড এন তাহমিদা; খন্দকার মনিরুজ্জামান। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ ১২ (১ সংস্করণ)। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। পৃষ্ঠা ৪৩২-৪৩৩। আইএসবিএন 984-30000-0286-0

Anup Sadi
অনুপ সাদির প্রথম কবিতার বই “পৃথিবীর রাষ্ট্রনীতি আর তোমাদের বংশবাতি” প্রকাশিত হয় ২০০৪ সালে। তাঁর মোট প্রকাশিত গ্রন্থ ১১টি। সাম্প্রতিক সময়ে প্রকাশিত তাঁর “সমাজতন্ত্র” ও “মার্কসবাদ” গ্রন্থ দুটি পাঠকমহলে ব্যাপকভাবে সমাদৃত হয়েছে। ২০১০ সালে সম্পাদনা করেন “বাঙালির গণতান্ত্রিক চিন্তাধারা” নামের একটি প্রবন্ধগ্রন্থ। জন্ম ১৬ জুন, ১৯৭৭। তিনি লেখাপড়া করেছেন ঢাকা কলেজ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। ২০০০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে এম এ পাস করেন।

Leave a Reply

Top
You cannot copy content of this page