ব্রাউসোনেশিয়া হচ্ছে তুঁত পরিবারের উদ্ভিদের একটি গণের নাম

গণের বৈজ্ঞানিক নাম: Broussonetia.

বাংলা নাম: নেই,

Broussonetia papyrifera, মাইমালাইংয়ের ফুল ও ফল, আলোকচিত্র: Yug

জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস

জগৎ/রাজ্য: Plantae – Plants

উপরাজ্য: Angiosperms

বিভাগ: Eudicots

শ্রেণী: Rosids

বর্গ: Rosales

পরিবার: Moraceae

গণ: Broussonetia L’Herit. ex Vent., Tabl. Regn. Veg. 3: 547 (1799).

বিবরণ: ব্রাউসোনেশিয়া হচ্ছে মোরাসি বা তুঁত পরিবারের একটি গণের নাম। এরা বৃক্ষ, গুল্ম বা আরোহী। পাতা সর্পিলাকারে সজ্জিত, প্রতিমুখ বা দ্বি-সারী, অণুপর্ণী, উপপত্র ডিম্বাকার, ভল্লাকার, আশুপাতী, পত্রফলক সরল থেকে করতলাকারে খন্ডিত, কিনারা দস্তুর থেকে অখন্ড, ঝিল্লিময়।

পুং পুষ্পমঞ্জরী কাক্ষিক, অনিয়তাকার পুষ্পমঞ্জরী বা মঞ্জরী, বহু পুষ্পবিশিষ্ট। পুং পুষ্পের বৃতি ৪-খন্ডিত, প্রান্তস্পর্শী, পুংদন্ড ৪টি, মুকুল অবস্থায় অধোমুখী, বন্ধ্যা গর্ভকেশর মঞ্জরী সদৃশ। স্ত্রী পুষ্পমঞ্জরী ঘন মুণ্ডাকার থেকে প্রলম্বিত, মঞ্জরীপত্র মুষলাকৃতি, স্থায়ী। স্ত্রী পুষ্পের বৃতির খন্ডগুলো যমক এবং একটি নল গঠন করে, অগ্রভাগ অখন্ড বা ৩-৪ খন্ডিত, স্থায়ী, গর্ভাশয় অবৃন্তক বা ফলে পরিণত হলে বৃন্তক, গর্ভদন্ড ১টি, পার্শ্বীয়, গর্ভমুণ্ড রৈখিক, প্রায়ক্ষেত্রেই নিম্নপ্রান্তে দ্বিতীয় একটি লুপ্তপ্রায় খন্ডক বর্তমান। ফল ঘনভাবে পুঞ্জীভূত একটি গোলকাকার সিনকার্প, সিনকার্প পরিপক্ক হলে কমলা লাল, ফলত্বক ঝিল্লিময়, প্রলম্বিত, বহি:ত্বক সরস।

ব্রাউসোনেশিয়া গণে মোট প্রজাতি আছে চারটি। সেগুলো হচ্ছে ১. Broussonetia kaempferi ২. Broussonetia kazinoki ৩. Broussonetia kurzii ৪. Broussonetia papyrifera. বাংলাদেশে এই গণে আছে ১টি প্রজাতি যেটি হচ্ছে Broussonetia papyrifera যার বাংলা নাম মালাইং

Leave a Comment

error: Content is protected !!