অড়বড়ই নানা গুণে ভরা ছোট টক স্বাদের ফলের গাছ

ফল

অড়বড়ই

বৈজ্ঞানিক নাম: Phyllanthus acidus. সমনাম: Averrhoa acida L. (1753), Cicca disticha L. (1767), Cicca acidissima Blanco (1837), Phyllanthus acidissimus (Blanco) Muell.-Arg. (1863), Phyllanthus distichus (L.) Muell.-Arg. (1866), Cicca acida (L.) Merr. (1917). ইংরেজি নাম: Star Gooseberry, The Country Gooseberry. স্থানীয় নাম: অড়বড়ই, আমলা, হারবড়ি, হারিফুল, লোদা, নোয়ারি, অরবড়ি।
জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস 
জগৎ/রাজ্য: Plantae বিভাগ: Angiosperms অবিন্যাসিত: Eudicots অবিন্যাসিত: Rosids বর্গ: Rosales পরিবার: Elantinaceae গণ: Phyllanthus. প্রজাতি: Phyllanthus acidus. (L).

বর্ণনা: অড়বরই রোমশবিহীন পর্ণমোচী বৃক্ষ, প্রায় ১০ মিটার পর্যন্ত উঁচু, শাখা দৃঢ়, পত্র বিহীন, প্রান্তের ক্ষুদ্র শাখা পত্রবহুল, পর্ণমোচী। পত্র একান্তর, উপপত্র ভল্লাকার, ১ মিমি লম্বা, বৃন্ত ২-৩ মিমি লম্বা, দ্বিসারী পত্র ফলক ডিম্বাকার থেকে ডিম্বাকৃতি-ভল্লাকার, ৩-৮ x ১-৪ সেমি, শীর্ষ সূক্ষাগ্র বা দীর্ঘা, মূলীয় অংশ গোলাকার, রোমশ বিহীন, নিচের পৃষ্ঠ ফ্যাকাশে। পুষ্প ক্ষুদ্র লাল, পত্র কক্ষে রেসিম সদৃশ মঞ্জরীতে গুচ্ছাকারে বিন্যস্ত বা কান্ড বা শাখায় হ্রাসপ্রাপ্ত গুটিকাকার শাখার ন্যায় জন্মে। পুংপুষ্প: বৃন্ত সরু, ১-৩ মিমি লম্বা, বৃত্যংশ ৪টি, বর্তুলাকার, ১ মিমি লম্বা, চাকতি গ্রন্থি সাধারণত ৪টি, পুংকেশর ৪টি, মুক্ত, ২টি ক্ষুদ্রতর। স্ত্রীপুষ্প: স্বল্প সংখ্যক, বৃত্যংশ ৪টি, ১.৫ মিমি লম্বা, চাকতি গ্রন্থি ৪টি, বৃক্কাকার, বন্ধ্যা পুংকেশর সাধারণত উপস্থিত, গর্ভাশয় ৩-৪ কোষী, রোমশ বিহীন, গর্ভদন্ড ৪টি, মুক্ত, দ্বিখন্ডিত, বক্র। ফল ড্রপ, চাপা গোলাকার, ১.০-১.৫ x ১.৫-২.২ সেমি, ৬-৮ খন্ডিত, সবুজাভ হলুদ থেকে সাদাটে। ক্রোমোসোম সংখ্যা: 2n = ২৮

চাষাবাদ ও বংশ বিস্তার:  অড়বড়ই গ্রামের ঘন ঝোপ ও চাষাবাদকৃত গাছ। এদের ফুল ও ফল ধারণ মার্চ থেকে জুন মাস। বীজ থেকে বংশ বিস্তার হয়।

বিস্তৃতি: ভারত, মাদাগাস্কার, মায়ানমার ও পাকিস্তান। আদিনিবাস ব্রাজিল। বাংলাদেশের সর্বত্র চাষাবাদ হয়।

অর্থনৈতিক ব্যবহার/গুরুত্ব/ক্ষতিকর দিক: ফল অতিশয় কটু এটি সঙ্কোচক, ক্ষুধা উদ্রেককারী যকৃতের টনিক কোষ্ঠ কাঠিন্য, পিত্তসংক্রান্ত রোগ ও অর্শ রোগে ভাল কাজ করে। ফলে সুস্বাদু আচার তৈরি হয়। মূল ও বীজ রেচক। মূলের বাকল ট্যানিন, সেপোনিন, গ্যালিক এসিড সমৃদ্ধ।

আরো পড়ুন:  কাউফল বাংলাদেশের অপ্রচলিত এবং এশিয়ার চিরসবুজ ফলদায়ী বৃক্ষ

জাতিতাত্বিক ব্যবহার: ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে সবুজ পাতা। সবজিরূপে ব্যবহৃত।

অন্যান্য তথ্য: বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষের ৭ম খণ্ডে  (আগস্ট ২০১০)  অড়বড়ই প্রজাতিটির সম্পর্কে বলা হয়েছে যে, এদের শীঘ্র কোনো সংকটের কারণ দেখা যায় না এবং বাংলাদেশে এটি আশঙ্কামুক্ত হিসেবে বিবেচিত। বাংলাদেশে অড়বড়ই সংরক্ষণের জন্য কোনো পদক্ষেপ গৃহীত হয়নি। প্রজাতিটি সম্পর্কে প্রস্তাব করা হয়েছে যে এই প্রজাতিটির বর্তমানে সংরক্ষণের প্রয়োজন নেই।   

তথ্যসূত্র:

১. রহমান, এম অলিউর (আগস্ট ২০১০)। “অ্যানজিওস্পার্মস ডাইকটিলিডনস”  আহমেদ, জিয়া উদ্দিন; হাসান, মো আবুল; বেগম, জেড এন তাহমিদা; খন্দকার মনিরুজ্জামান। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ। (১ সংস্করণ)। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। পৃষ্ঠা ৪৭৪। আইএসবিএন 984-30000-0286-0

Leave a Comment

error: Content is protected !!