পাটুলি গাছ-এর ছাল ও মূলে আছে নানা ভেষজ গুণাগুণ

মাঝারি ঝাড়দার গাছ । সাধারণতঃ ৩০/৪০ হাত উচু হয়ে থাকে। ভারতের উষ্ণপ্রধান অঞ্চলে এটি জন্মায়। সমগ্র ভারতে এই গণের মাত্র দুটি প্রজাতি পাওয়া যায়। গাছের কান্ড খুব মোটা হয়। ছাল চিক্কণ ও ধূসর বর্ণের। পাতা ৩-৮ ইঞ্চি লম্বা, হৃৎপিণ্ডাকৃতি, অগ্রভাগ ক্রমশঃ সরু। পাতার উপরিভাগ কোমল, রোমশ ও সবুজ, তিনটি শিরা বিশিষ্ট। ডালের উভয় দিকে পত্র থাকে। বসন্তকালে পাতা ঝরে যায়। পুং পুষ্প হালকা সবুজ ও স্ত্রী পুষ্প পীত বর্ণের। মার্চ মাসে ফুল হয় এবং মে-জুন মাসে ফল পাকে। পাকা ফলের মাড়ি সুস্বাদু ও লোকে খায়। ফল খসখসে ও গোলাকার।

পাটুলি গাছ-এর অন্যান্য নাম:

এটি পিটুলী নামে এবং সংস্কৃতে পিণ্ডার, কুরঙ্গ প্রভৃতি নামে বিশেষভাবে পরিচিত। হিন্দী ভাষাভাষী অঞ্চলে পিণ্ডার, তুশ্রী, পিণ্ডারা নামে খ্যাত। এর বোটানিক্যাল নাম Trewia nudiflora Linn. পরিবার Euphorbiaceae. পূর্বে এটি যেসব নামে পরিচিত হয়েছিল, সেগুলি হচ্ছে—Trewia macrophylla Roth., T. macrostachya Klotzsch., Rottlera indica Willd., Tetragastsis ossea Gartn. প্রভৃতি।

পাটুলি গাছ-এর কারুকাজে ব্যবহার:

এর কাঠ হালকা। প্যাকিং বাক্স, চায়ের বাক্স, দেশলাই-এর কাঠি, ড্রাম, ব্যারেল, শ্লেট ও ছবি বাঁধানোর ফ্রেম, পেন্সিল, খেলনা প্রভৃতি তৈরীর জন্য এই গাছের কাঠ ব্যবহৃত হয়।

ঔষধ হিসাবে প্রয়োগ:

ঔষধার্থে ব্যবহার্য অংশ—মূল ও গাছের ছাল । কোথাও কোথাও গাম্ভারী ছালের পরিবর্তে এটি ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

গাছ— শরীরের কোথাও ফুলে গেলে, পিত্ত ও কফনিঃসরণে ব্যবহৃত হয়। চারা গাছের ক্বাথ পেটফাঁপা নিবারক এবং ফোলাতে ব্যবহার্য।

মূল— মূলের ক্বাথ বায়ুনাশক এবং বাতের যন্ত্রণায় মালিশ করা হয়। গেঁটেবাত ও আমবাতে যন্ত্রণা ও ফোলা কমানোর জন্য মূল বেটে প্রলেপ দিলে কাজ হয়। মূল স্বাদে কটু ও কষায়।

CHEMICAL COMPOSITION

Trewia nudiflora Linn. Wood contains: moisture 4.45, potassium 21.16%, and ash 2.4%. Root contains: resinous matter and fat. Bark contains: taraxerone and B-sitosterol. Leaves contain: calcium 3.05%, carbon 44.3%, nitrogen 2% and alkaloid (nudiflorine). Fruit contains: moisture 81.38%, crude protein 1.41%, carbohydrates 15.8%, calcium 0.03%, phosphorus 0.06%, iron 1.8%, copper1.15% and manganese 0.79%. Seeds contain: pale-yellow fatty oil 21.6%, unsaponifiable matter 0.2% and fatty acids (linoleic 25.1%, X-elaeostearic 39.5%, oleic and saturated acids 35.37%).

আরো পড়ুন:  A full Checklist of the Medicinal Plants of Bangladesh

সতর্কীকরণ: ঘরে প্রস্তুতকৃত যে কোনো ভেষজ ওষুধ নিজ দায়িত্বে ব্যবহার করুন।

তথ্যসূত্রঃ

১. আয়ুর্বেদাচার্য শিবকালী ভট্টাচার্য: চিরঞ্জীব বনৌষধি খন্ড ৯, আনন্দ পাবলিশার্স প্রাইভেট লিমিটেড, কলকাতা, তৃতীয় মুদ্রণ ১৪০৫, পৃষ্ঠা, ১৯৩-১৯৫।

বি. দ্র: ব্যবহৃত ছবি উইকিমিডিয়া কমন্স থেকে নেওয়া হয়েছে। আলোকচিত্রীর নাম: Tabish

Leave a Comment

error: Content is protected !!