আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > জীবনী > হীরেন বসু আধুনিক বাংলা গানের গীতকার

হীরেন বসু আধুনিক বাংলা গানের গীতকার

হীরেন বসু গীতকার, সঙ্গীতকার, কণ্ঠশিল্পী, গল্পকার ও ঔপন্যাসিক ছিলেন।  তাঁর জন্মেছেন ১৯০৩ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর, কলকাতায়। ছোটবেলা থেকেই ভালো গান গাইতে পারতেন। প্রথমে ধ্রুপদ শেখেন রাজেন ঘোষের কাছে, পদে খেয়াল শেখেন নগেন দত্তের কাছে। গানের পরিমার্জনা পান ওস্তাদ জমিরুদ্দিনের কাছেও।

প্রথম প্রথম রবীন্দ্রনাথ, দ্বিজেন্দ্রলালরজনীকান্তের গান গাইতেন, পরে নিজে গান লিখে সুর দিয়ে গাইতে থাকেন। জোর বরাত ছবিতে নেপথ্য শিল্পীরূপে কণ্ঠ প্রদান করেন। নাট্যাভিনয় ও নৃত্যেও কৃতবিদ্য। প্রবেশিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হবার পর সংস্কৃত কলেজ থেকে বিদ্যাভূষণ বিদ্যারত্ন উপাধি পান হীরেন বসু। ১৯২৯ সালে ‘সুরের ডালি’ নামে এক গীত-সংকলন প্রকাশিত হয়।

কলকাতা বেতারের আদিপর্ব থেকে যোগাযোগ ছিল গায়ক ও প্রযোজক রূপে। চলচ্চিত্র পরিচালনা ও অভিনয় দুয়েরই অভিজ্ঞতা আছে। অর্ধশতাধিক গান লিখেছেন তিনি। তার মধ্যে অনেকগুলি গান তাঁর সুরেই জনপ্রিয় হয়েছে। ‘শেফালি তোমার আঁচলখানি’ ও ‘শঙ্খে শঙ্খে মঙ্গল গাও’ বিশেষ উল্লেখ্য। এই রেকর্ডেই প্রথম অর্কেস্ট্রা ব্যবহৃত হয়। সুইনহো স্ট্রীটের নিজবাড়িতে হীরেন বসু আশির দশকেও বেশ সক্রিয় ও উদ্যমী ছিলেন। গান রচনা ও সুর-সংযোগের কাজ চালিয়েছেন সারা জীবন।

তথ্যসূত্র:

১. সুধীর চক্রবর্তী সম্পাদিত আধুনিক বাংলা গান, প্যাপিরাস, কলকাতা, প্রথম প্রকাশ ১ বৈশাখ ১৩৯৪, পৃষ্ঠা, ১৮৫।

আরো পড়ুন:  বিমলচন্দ্র ঘোষ ছিলেন বামপন্থী কবি ও গীতিকার
Dolon Prova
জন্ম ৮ জানুয়ারি ১৯৮৯। বাংলাদেশের ময়মনসিংহে আনন্দমোহন কলেজ থেকে বিএ সম্মান ও এমএ পাশ করেছেন। তাঁর প্রকাশিত প্রথম কবিতাগ্রন্থ “স্বপ্নের পাখিরা ওড়ে যৌথ খামারে”। বিভিন্ন সাময়িকীতে তাঁর কবিতা প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়া শিক্ষা জীবনের বিভিন্ন সময় রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক কাজের সাথে যুক্ত ছিলেন। বর্তমানে রোদ্দুরে ডট কমের সম্পাদক।

Leave a Reply

Top
You cannot copy content of this page