গোথা কর্মসূচির সমালোচনা – জার্মান শ্রমিক পার্টির কর্মসূচির ওপর পার্শ্বটিকা

গোথা কর্মসূচির সমালোচনা

১. ‘শ্রমই সকল সম্পদ ও সকল সংস্কৃতির উৎস এবং যেহেতু কার্যকর শ্রম একমাত্র সমাজের ও সমাজের মাধ্যমেই সম্ভব, সেহেতু সমাজের সকল সদস্য সমান অধিকার বলে অটুট পরিমাণে শ্রমফলের মালিক।’ অনুচ্ছেদের প্রথম অংশ : ‘শ্রমই সকল সম্পদ ও সকল সংস্কৃতির উৎস।’ শ্রম সকল সম্পদের উৎস নয়। আরো পড়ুন

দ্বন্দ্ববাদের উদাহরণ

বিশ্লেষণ বোঝা হচ্ছে দ্বন্দ্ববাদ

বিশ্লেষণ বোঝা হচ্ছে দ্বন্দ্ববাদ বোঝা। লেলিন বলেন, দ্বন্দ্ববাদকে বিপরীতের একত্বের মতবাদ হিসেবে সার সংকলিত করা য়ায়। এটা যখন সত্য, দ্বন্দ্ববাদের সারকে তড়িত আঁকড়ে ধরা যেতে পারে। কিন্তু এই মতবাদকে ব্যাখ্যা ও বিকশিত করা প্রয়োজন। বিপরীতের একত্ব হচ্ছে শর্তসাপেক্ষ, অস্থায়ী, উতক্রমনমূলক,আপেক্ষিক ও পারস্পরিক বিপরীতধর্মী। আরো পড়ুন

শ্রমজীবী মানুষের আন্তর্জাতিক সমিতির সাধারণ নিয়মাবলি

অর্থনীতিবাদ নয়

যেহেতু শ্রমিক শ্রেণির মুক্তি শ্রমিক শ্রেণিকেই জয় করে নিতে হবে; শ্রমিক শ্রেণির মুক্তির জন্য যে সংগ্রাম, তার অর্থ শ্রেণিগত সুবিধা ও একচেটিয়া অধিকারের জন্য সংগ্রাম নয়, সমান অধিকার ও কর্তব্যের জন্য এবং সমস্ত শ্রেণি আধিপত্যের উচ্ছেদের জন্য সংগ্রাম। শ্রম করে যে মানুষ, শ্রম উপায়ের অর্থাৎ জীবনধারণের বিভিন্ন উৎসের একচেটিয়া মালিকের কাছে আরো পড়ুন

মার্কসবাদ ও অভ্যুত্থান

রাশিয়া সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক শ্রমিক পার্টি (বলশেভিক) কেন্দ্রিয় কমিটির নিকট চিঠি

প্রভাবশালী ‘সমাজতান্ত্রিক’ পার্টিগুলি মার্কসবাদের যেসব বিদ্বেষপূর্ণ ও প্রায় বহু-প্রচারিত বিকৃতি ঘটিয়েছে তার মধ্যে এই সুবিধাবাদী মিথ্যাটি অন্তর্গত, যথা: অভ্যুত্থানের প্রস্তুতিকে, সাধারণভাবে অভ্যুত্থানকেই একটা শিল্পকলা হিসেবে দেখা নাকি ‘ব্লাঙ্কিবাদ’। সুবিধাবাদের নেতা বার্নস্টাইন মার্কসবাদকে ব্লাঙ্কিবাদে অভিযুক্ত করে আগেই এক শোচনীয় খ্যাতি অর্জন করেছিলেন, বর্তমানের সুবিধাবাদীরা ব্লাঙ্কিবাদের সোরগোল তুলে বার্নস্টাইনের রিক্ত ‘ভাবনাকে’ একবিন্দু নবায়িতও করে নি, ‘সমৃদ্ধ’ও করে নি। আরো পড়ুন

বিশ্বজুড়ে মার্কসবাদ, মুক্তি কোন পথে

মার্কসবাদের উদ্ভব উনিশ শতকে হলেও বিশ শতকে এই মতবাদের প্রায়োগিক দিক জাজ্বল্যমানরূপে দেখা দেয়। ১৯১৭ সালের রুশ বিপ্লবের পর একে একে ষোলটি রাষ্ট্র, পৃথিবীর জনসংখ্যার প্রায় এক তৃতীয়াংশ মার্কসবাদী বিশ্বের বাস্তব উদাহরণ হয়ে ওঠে।আরো পড়ুন

সাম্যবাদ মানুষের সর্বাঙ্গীণ বিকাশের সর্বোচ্চ সামাজিক স্তর

মার্কস ও এঙ্গেলস সমাজতন্ত্র ও সাম্যবাদের স্পষ্ট পার্থক্যরেখা আঁকেননি, এমনকি তাঁরা সমাজতন্ত্র ও সাম্যবাদের জন্য কোনো রকমের কল্পনারও আশ্রয় নেননি। তাঁরা সমাজতন্ত্রকে বহুক্ষেত্রে সাম্যবাদ হিসেবেই দেখেছেন।আরো পড়ুন

মার্কস এঙ্গেলস মার্কসবাদ গ্রন্থের সূচিপত্র

 কার্ল মার্কস ফ্রিডরিখ এঙ্গেলস মার্কসবাদের তিনটি উৎস ও তিনটি অঙ্গ ল. কুগোলমানের নিকট ক. মার্কসের লেখা পত্রাবলীর রুশ অনুবাদের ভূমিকা “ফ্রিদরিখ আ., জরগে ও অন্যান্যদের নিকট ইয়োহান বেক্কের, ইয়োসেফ দিৎসগেন, ফ্রিডরিখ এঙ্গেলস, কাল মাকস প্রভৃতির চিঠি” বইটির রুশ অনুবাদের ভূমিকা মার্কসবাদ এবং শোধনবাদ ‘বস্তুবাদ ও অভিজ্ঞতাবাদী সমালোচনা’ বই থেকেধর্ম প্রসঙ্গে শ্রমিক পার্টির মনোভাবইউরোপে শ্রমিক আন্দোলনে … Read more

শ্রেণি উদ্ভব-এর কারণ ও বিলুপ্তি প্রসঙ্গে মার্কসবাদ

শ্রেণি উদ্ভব বা সামাজিক শ্রেণি কী এবং কেমন করে তার উদ্ভব হলো, এ নিয়ে মানুষে ভেবেছে অনেক আগে থেকেই। শোষকেরা প্রচার করে যে শ্রেণি সর্বদাই ছিলো এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। এইসব ভাববাদী কথা বলেই শোষকেরা জনগণকে দাবিয়ে রাখতে চায়।আরো পড়ুন

সমাজ হচ্ছে মানুষের পারস্পরিক ক্রিয়াকলাপের উৎপাদন

মার্কসবাদকে কেন্দ্র করে মার্কসীয় সমাজতত্ত্ব বিকশিত হয়েছে। উনবিংশ শতাব্দীর শেষভাগ হতে এখন পর্যন্ত বহু মার্কসীয় তাত্ত্বিক মার্কসবাদকে একটি স্বতন্ত্র সমাজতাত্ত্বিক ধারা বলে আখ্যায়িত করেছেন। মার্কস তাঁর জার্মান ভাবাদর্শ গ্রন্থে উৎপাদনের পদ্ধতি বা ধরন (ইংরেজি Mode of Production) এবং ইকোনমিক এন্ড ফিলোজফিক ম্যানুস্ক্রিপ্টস গ্রন্থে ‘the creation of man by human labour’ তত্ত্বের মধ্য দিয়ে সমাজ বিকাশের বিকল্প রূপরেখা উপস্থিত করেছেন। আরো পড়ুন

error: Content is protected !!