ফোঁটা

ভাই আমাকে বকুক ঝকুক

       দিগ কে যতই খোঁটা—

যমের দুয়োরে কাঁটা দিচ্ছি,

       ভাইয়ের কপালে ফোঁটা।

 

ভাইয়ের সঙ্গে আড়ি আমার,

      ভাইয়ের সঙ্গে ভাব

সেলাই করি তারই মাপে

      রাজার কিংখাব ।

 

কাঠ কুড়োচ্ছি বনে,

ভাই রয়েছে রণে—

নিজের হাতে বেঁধে দিয়েছি

     তরোয়ালের খাপ।

 

ভাইয়ের হাতে সেই সে অসি

     ঝলমল করে ?

অন্ধকারের সিংহাসন যে

     টলমল করে।

দিনের স্মৃতি বুকে রেখেছি,

    স্বপ্ন চোখের কোলে—

কখন যে ভাই ঘরে ফিরবে

    ঘুমে পড়ছি ঢ’লে।

 

ফুল তুলেছি বনে,

দেখে রেখেছি কনে—

হাত পুড়িয়ে রেধে রেখেছি

ভাইকে দেব ব’লে।

 

শেকলগুলো ভাঙছে কোথায়

ঝন্ ঝন্ করে!

নিশান ওড়ে, রথের চাকা

বন্ বন্ ঘোরে!

 

ভাই এনেছে লক্ষ্মীর ঝাপি,

      খুলে ফেলেছে তালা—

দেখ ও ভাই, তোমার জন্যে

      গেঁথে রেখেছি মালা।

 

ভাই আমাকে নাই বা দেখুক,

       মারুক লাথি ঝাঁটা—

ভাইয়ের কপালে দিলাম ফোঁটা,

      যমের দুয়োরে কাঁটা।।

আরো পড়ুন:  ফেরাই

Leave a Comment

error: Content is protected !!