ড্যাং ড্যাং ক’রে

এক পায়ে ঊর্ধ্ব বাহু হয়ে দাঁড়িয়ে
জটাধারী একটি গাছ
ঝুঁকে প’ড়ে
যত দেখে তত অবাক হয়—

ট্যাঁকে বাচ্চা নিয়ে
এ বাড়ি ও বাড়ি বাসন মাজে
রাত্তিরে গাছতলায় মাদুর বিছিয়ে শোয়
যে মেয়েকে স্বামীও নেয় না
যমেরও অরুচি —

ছি ছি!
আবার তার ছেলে হবে!

জলের কলে
সেই লজ্জাকে ঢাকতে
হাঁটি- হাঁটি পায়ে
মার হাতে ছেঁড়া শাড়িটা এগিয়ে দেয়
লজ্জাকে মাথার মণি করা ছোট্ট একটি জীবন—
ক’দিন আগেও
শানের ওপর যে হামা দিত!

আরো পড়ুন:  শতবর্ষি দুর্ভিক্ষ

Leave a Comment

error: Content is protected !!