ছাপ

কেউ দেয় নিকো উলু
কেউ বাজায়নি শাঁখ,
কিছু মুখ কিছু ফুল
দিয়েছিল পিছুডাক।

পরনে ছিল না চেলি
গলায় দোলে নি হার;
মাটিতে রঙীন আশা
পেতেছিল সংসার।

আকাশের নীল গায়ে
শপথের ইস্পাত;
দরজায় পিঠ দিয়ে
বাইরে গভীর রাত।

সারা বাড়ি থমথমে
সিঁড়ি একদম চুপ
দেয়ালে নাচায় ধোঁয়া
জানালায় রাখা ধূপ!

মুঠো মুঠো তারা নিয়ে
কড়ি খেলছিল মেঘ;
ভুলে গেছে বুঝি হাওয়া
ঝড়ঝঞ্ঝার বেগ!

হঠাৎ যে কোথা থেকে
ছুটে এসেছিল ঝড়;
ঢেউয়ের চূড়ায় উঠে
দুলে উঠেছিল ঘর।

দু-জোড়া বন্ধ ঠোঁটে
থেমে গিয়েছিল গান।
চোখে রেখেছিল হাত
টেবিলের বাতিদান।

জীবনের হ্রদে স্মৃতি
চোখ বুঁজে দিল ঝাঁপ;
ভিজিয়ে সে জলছবি
তুলে নিল এই ছাপ॥

আরো পড়ুন:  পৃথিবীর কামরায়

Leave a Comment

error: Content is protected !!