সখা হে

থামাও রথ, কেশব !
দিয়েছ আমায় তত্ত্বজ্ঞান যেসব
ফুরিয়ে গেছে
      দিন তার !
নারকী এই কুরুক্ষেত্র ছেড়ে

চাই এবার
      পায়ের নিচে মাটি

রাজ্যলোভ, রক্ত, কাটাকাটি
আর নয়।
নরোত্তম, তোমার হাত ধ’রে
ভুবন ভ’রে
দর্শন দিক
      সমন্বয়,
          সুখশান্তি,
             যোগক্ষেম,
                    প্রেম।

কুরুক্ষেত্রে জন্ম নিক
সখা হে,
আজ এই পুণ্যাহে
দুঃখহরণ চপলচরণ
হৃদয়-বৃন্দাবন।

থামাও রথ, কেশব !
আমায় তুমি দিয়ে এসেছ
          তত্ত্বজ্ঞান যেসব
ফুরিয়ে গেছে দিন তার।
পদ্মাআঁখি !
তাকিয়ে দেখ নতুন পথ
       খুলে গিয়েছে চিন্তার ।।

সরিয়ে ফেলে পাঞ্চজন্য।
ওষ্ঠে নাও বাঁশি
ফোটাও মুখে আবার ভুবন-
        ভোলানো সেই হাসি,
             জীবন হওক ধন্য।

আরো পড়ুন:  ফি বাৎসরিক ভুল ফল অথবা গণ্ডার

Leave a Comment

error: Content is protected !!