ভবিষ্যবাদ বিশ শতকের প্রথম দিকে ইতালিতে উত্থিত একটি শিল্প ও সামাজিক আন্দোলন

ভবিষ্যবাদ (ইতালীয়: Futurismo) একটি শিল্পসংক্রান্ত ও সামাজিক আন্দোলন যা বিশ শতকের প্রথম দিকে ইতালিতে উত্থিত হয়েছিল। এটি গতি, প্রযুক্তি, তারুণ্য, সহিংসতা, এবং গাড়ী, বিমান, এবং শিল্প শহরের উপর জোর দিয়েছিল। এটি আধুনিকতাকে গৌরবান্বিত করেছিল এবং ইতালিকে অতীতের চাপ থেকে মুক্ত করার সংকল্প গ্রহণ করেছিল।

ফিউচারিজমের মধ্যে দুটি দিক আছে। একদিকে এতে দেখা যায় রুশ বিপ্লবের প্রভাব ও ধারা এবং অন্যদিকে দেখা যায় ফ্যাসিবাদের প্রভাব। যেহেতু মায়াকোভস্কি রুশ বিপ্লবের ফল এবং মারিনেতী ফ্যাসিবাদের অনুরাগী—ফিউচারিজম এমন একটি আধুনিক আন্দোলন, যাকে অগ্রদূতের (ইংরেজি: Avant garde) বিশিষ্টতার চিহ্ন বলে মনে করা যায়।[১]

অগ্রদূতের ‘আধুনিকতা’ মূলত বুর্জোয়া ভিন্নমতাবলন্বী হলেও ভবিষ্যবাদ যেহেতু দুধারায় বয়েছিল—বুর্জোয়া নৈরাজ্যবাদ এবং বৈপ্লবিক অনুপ্রেরণা, একই আন্দোলনের মধ্যে ধরা হয় কেন তা একটা বিস্ময়কর প্রশ্ন। প্রশ্নটা শুধু এখানেই শেষ নয়। এর সঙ্গে আধুনিক যন্ত্রসভ্যতার টাকার ঘূর্ণনও এসে পড়ে। এই প্রসঙ্গে Battleship Potenkin-এর বিখ্যাত জাহাজের কলকজার ঘূর্ণন, মায়াকোভস্কির বৈপ্লবিক উত্তেজনা আর মারিনেতির স্পিড ইমেজ মিশে যায়।[১]

ইতালীয় ভবিষ্যবাদ

১৯০৯-১১ সালে ইতালির কবি ফিলিপ্পো টমাস মারিনেত্তি (১৮৭৬-১৯৪৪) শিল্প এবং সাহিত্যে ‘যন্ত্রই সব’ এরূপ একটি নতুন ধারা প্রবর্তনের চেষ্টা করেন। মারিনেত্তি তাঁর ‘মেনিফেস্টো দাল ফিউচারিজমো’ নামক গ্রন্থে ঘোষণা করেন: ‘যন্ত্রই আমাদের অরাধ্য। যন্ত্রকে আমরা শীর্ষে স্থাপন করব। আমরা যন্ত্রের গুণ কীর্তন করব’। শিল্পবোধে নতুনত্ব আমদানি করে মারিনেত্তি বলেনঃ একটা বিদ্যুৎগতি মোটর গাড়ি একটি তথাকথিত সুন্দর ভাস্কর মূর্তির চেয়ে আমাদের নিকট অনেক বেশী সুন্দর।

১৯১১ সালে মারিনেত্তি ইতালির পাঁচজন তরুণ শিল্পীর একটি চিত্রপ্রদর্শনী সংগঠিত করেন। এই শিল্পীগণ তাঁদের ঘোষণাপত্রে নিজেদের বিপ্লবী ঘোষণা করে বলেন যে, প্রতিষ্ঠিত শিল্পবোধের তাঁরা বিরোধী। ‘আমরা গতির শিল্পী। গতিকে আমরা মূর্ত করে তলব। চিত্রকলা আর ইন্দ্রিয়ানুভূতি আচ্ছেদ্য। একটি খণ্ডকে অঙ্কন করা যথেষ্ট নয়। যেটা আবশ্যক সে হচ্ছে সেই বস্তুর মধ্যে যে গতি আছে তাকে অঙ্কন করা’। কবি মারিনেত্তির এ ধারাটি খুব দীর্ঘস্থায়ী হয় নি। কিন্তু স্বল্পকাল স্থায়ী এই ধারাটির মধ্যে অতীতের বিরুদ্ধে একটা প্রতিক্রিয়ার এবং আধুনিক যন্ত্র-সভ্যতার যন্ত্রশক্তির অনিবার্য প্রভাবের সচেতন স্বীকৃতির একটা প্রয়াস দেখা যায়।

আরো পড়ুন:  আধুনিকতাবাদী সাহিত্য হচ্ছে সাম্রাজ্যবাদী দেশসমূহে নিরীক্ষামূলক কিছু করার প্রবণতা

মারিনেত্তির অনুপ্রেরণা ছিল Italian ফ্যাসিবাদ। First Futurist Manifesto-তে তিনি বলেছেন_”Upto now literature has exalted a pensive immobility, ecstasy and sleep. We intend to exalt aggressive action, a feverish insomnia. the racer’s stride, the mortal leap, the punch and the slap.

রুশ ভবিষ্যবাদ

রুশ ভবিষ্যবাদ ছিল একটি সাহিত্য এবং দৃশ্যকলার একটি আন্দোলন। কবি ভ্লাদিমির মায়াকোভস্কি ছিলেন এই আন্দোলনের একজন বিশিষ্ট সদস্য। মায়াকোভস্কির কাব্যের মধ্যে আমরা একটা বিবর্তন লক্ষ করি। A Cloud in Trousers (১৯১৫) ফিউচারিস্ট কবিতা হিসেবে রাশিয়ান কবিতায় আধুনিকতার অনুপ্রবেশ ঘটায়। প্রচলিত কাব্যধারা থেকে বিচ্যুত হয়ে মায়াকোভস্কি বিস্ময়করভাবে যুক্তি ঊর্ধ্ব শব্দ চিত্রকল্প ব্যবহার করেন। সমকালীন ‘ডাডাইস্ট’ আর ফরমালিস্টদের সঙ্গে এর যােগ আছে।

এই প্রসঙ্গে ভেলিমির ক্লেবনিকভের ‘Incantation to Laughter,’-এর উল্লেখ করা যেতে পারে। এই কবিতার কবি রাশিয়ান শব্দ Smekh (হাসি) নিয়ে খেলা করেছেন এমনভাবে, যাতে ভাষার ইতিহাসের ওপর তার দখল এবং একই সঙ্গে ভাষা ব্যবহারের নতুনত্বে traditonal পদ্ধতিকে আঘাত করার পন্থা লক্ষ করি। মায়কোভস্কি Mystery Buffo (১৯১৮) কবিতায় বিপ্লবকে ডেকে আনেন যখন রাশিয়ান রাজনীতিকরা আধুনিকতাকে বর্জন করছিল। The Bedbug (১৯২৯) কবিতায় তিনি সম্ভাব্য নতুন জগৎকে ব্যঙ্গ করেন।[১]

ভবিষ্যবাদের সমালোচনা

যদিও ভবিষ্যবাদ আধুনিক শিল্পজগতের নানা আন্দোলনের মধ্যে এই দিক থেকে একটা গুরুত্বপূর্ণ স্থান অধিকার করে; ভবিষ্যবাদের সীমাবদ্ধতার একটি দিক আছে। যন্ত্রকে একমাত্র আরাধ্য করার মধ্যে এই যন্ত্রের সত্যকার স্রষ্টা যে শ্রমজীবী মানুষ তার গুরুত্বের যেমন স্বীকৃতি নেই, তেমনি এই শ্রমজীবী মানুষের যে দুর্দশা যন্ত্র দ্বারাই অনড় করে রাখার সুকৌশল চেষ্টা চলছে তার উপলব্ধির সাক্ষাৎও ভবিষ্যবাদের প্রবক্তাদের চিন্তায় পাওয়া যায় না। বস্তুত ভবিষ্যবাদ প্রকারান্তরে পুঁজিবাদের সৃষ্টি যান্ত্রিক শক্তিবাদের পরিপোষক।[২]

উপসংহার

রেমন্ড উইলিয়ামস্ The Politics of Modernism গ্রন্থে উল্লেখ করেছেন যে ফিউচারিস্টদের ওপর স্ট্রিন্ডবার্গ এবং নিৎসের প্রভাব ছিল। ফিউচারজমের সঙ্গে সমাজবােধ, রাজনীতি ও ইতিহাসবােধ অঙ্গাঙ্গীভাবে জড়িত। উইলিয়ামস্ স্নেব নিখমভের মধ্যে একসপ্রেশনিস্ট অযৌক্তিকতা (irationalism) লক্ষ করেছেন।

আরো পড়ুন:  অস্তিত্ববাদ আধুনিক দর্শনের একটি চিন্তাধারা

তথ্যসূত্র:
১. অরূপ রুদ্র, বুদ্ধিজীবীর নোটবই, সুধীর চক্রবর্তী সম্পাদিত, “ফিউচারিজম” নবযুগ প্রকাশনী, বাংলাবাজার, ঢাকা, প্রথম সংস্করণ ফেব্রুয়ারি ২০১০, পৃষ্ঠা ৪৩৮-৪৩৯।
২. সরদার ফজলুল করিম; দর্শনকোষ; প্যাপিরাস, ঢাকা; জুলাই, ২০০৬; পৃষ্ঠা ১৭৯।

Leave a Comment

error: Content is protected !!