আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > আন্তর্জাতিক > এশিয়া > চীন > কুয়োমিনতাং সাম্রাজ্যবাদ চালিত চীনের প্রতিক্রিয়াশীল রাজনৈতিক দল

কুয়োমিনতাং সাম্রাজ্যবাদ চালিত চীনের প্রতিক্রিয়াশীল রাজনৈতিক দল

কুয়োমিনতাং বা চীনের কুয়োমিনতাং বা কেএমটি (ইংরেজি: Kuomintang) ছিলো চীনের প্রতিক্রিয়াশীল প্রধান রাজনৈতিক দল। এটি ছিলো সাম্রাজ্যবাদ দ্বারা চালিত স্বৈরতন্ত্রী গণহত্যাকারী জনগণের শত্রুদের রাজনৈতিক দল।  গণতন্ত্রউদারনৈতিক সমাজতন্ত্রী আন্দোলন গড়ে তােলার উদ্দেশ্যে ১৮৯১ খ্রিস্টাব্দে দলটির প্রতিষ্ঠা করেছিলেন সান ইয়াত সেন (১৮৬৭-১৯২৫)। চীন তখন সামরিক অধিকর্তাদের শাসনাধীন। ১৯১১ ও ১৯১২ খ্রিস্টাব্দে কুয়ােমিনতাং-এর নেতৃত্বে মার্শাল উয়ান শিকাই-এর বিরুদ্ধে পরপর দুবার বিদ্রোহের প্রচেষ্টা নিস্ফল হয়। ১৯১৮-২১ সালের দিকে কুয়ােমিনতাং-এর প্রভাব দক্ষিণ চীনে ক্যানটনকে কেন্দ্র করে সীমাবদ্ধ ছিল। উত্তরাঞ্চল সামন্তবাদী ও সামরিক অধিকর্তাদের শাসনাধীনেই থাকে।

কুড়ির দশকের দ্বিতীয়ার্ধে সােভিয়েত ইউনিয়নের সহযােগিতায় (১৯২২-২৪) কুয়ােমিনতাং নানকিঙ শহর অভিমুখে উত্তরাঞ্চলে সামরিক অভিযান চালায়। নেতৃত্ব দেন ১৯২৫ খ্রি সান ইয়াত সেনের স্থলাভিষিক্ত চিয়াং কাই-শেক। দলের ভিতরে বাম ও দক্ষিণপন্থীদের মধ্যে বিরােধ তখন তুঙ্গে। কমিউনিস্টদের সঙ্গেও বিবাদ ঘটে। দক্ষিণপন্থীদের নেতৃত্বে কুয়ােমিনতাং ১৯২৮ খ্রিস্টাব্দের অক্টোবর মাসে সরকার গঠনে সমর্থ হয়। ক্রমে ১৯৩০ খ্রিস্টাব্দের মধ্যে সমগ্র চীন তাদের শাসনাধীন হয়। ১৯৩১ খ্রিস্টাব্দের মে মাসে একটি সংবিধানও গৃহীত হয়।

ত্রিশের দশকের প্রথমার্ধে শুরু হয় চীনের ভূখণ্ডে আগ্রাসী জাপানি বাহিনীর সঙ্গে দীর্ঘসূত্রী সামরিক সংঘর্ষ। জাপানিদের বিরুদ্ধে সংগ্রামে কুয়ােমিনতাং-এর সঙ্গে চীনের কমিউনিস্টদের ঐক্য গড়ে ওঠে। দ্বিতীয় বিশ্ব-মহাযুদ্ধের সময় চীন ছিল মিত্রশক্তির অন্যতম। যুদ্ধ পরিসমাপ্তির পর কমিউনিস্টদের সঙ্গে কুয়ােমিনতাং সরকারের বিরােধের ফলে তীব্র গৃহযুদ্ধ দেখা দেয় (১৯৪৬-৫০)। অভ্যন্তরীণ কলহ ও দুর্নীতিতে দীর্ণ কুয়ােমিনতাং দল পরিচালিত সরকার মূল ভূখণ্ডে শাসনক্ষমতা হারিয়ে ১৯৫০ খ্রিস্টাব্দে ফরমােসা দ্বীপপুঞ্জে (তাইওয়ান) স্থানান্তরিত হয়। সেই স্থানেই তারা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তায় একচ্ছত্র শাসনক্ষমতায় অধিষ্ঠিত থাকে।

তথ্যসূত্র:

১. গঙ্গোপাধ্যায়, সৌরেন্দ্রমোহন. রাজনীতির অভিধান, আনন্দ পাবলিশার্স প্রা. লি. কলকাতা, তৃতীয় মুদ্রণ, জুলাই ২০১৩, পৃষ্ঠা ৮১।

আরো পড়ুন:  চীনা সমাজের শ্রেণি বিশ্লেষণ
Anup Sadi
অনুপ সাদির প্রথম কবিতার বই “পৃথিবীর রাষ্ট্রনীতি আর তোমাদের বংশবাতি” প্রকাশিত হয় ২০০৪ সালে। তাঁর মোট প্রকাশিত গ্রন্থ ১১টি। সাম্প্রতিক সময়ে প্রকাশিত তাঁর “সমাজতন্ত্র” ও “মার্কসবাদ” গ্রন্থ দুটি পাঠকমহলে ব্যাপকভাবে সমাদৃত হয়েছে। ২০১০ সালে সম্পাদনা করেন “বাঙালির গণতান্ত্রিক চিন্তাধারা” নামের একটি প্রবন্ধগ্রন্থ। জন্ম ১৬ জুন, ১৯৭৭। তিনি লেখাপড়া করেছেন ঢাকা কলেজ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। ২০০০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে এম এ পাস করেন।

Leave a Reply

Top
You cannot copy content of this page