আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > আন্তর্জাতিক > পাকিস্তান সাম্রাজ্যবাদ নিপীড়িত জাতিদম্ভী পুঁজিবাদ অনুসারী শোষণমূলক রাষ্ট্র

পাকিস্তান সাম্রাজ্যবাদ নিপীড়িত জাতিদম্ভী পুঁজিবাদ অনুসারী শোষণমূলক রাষ্ট্র

দক্ষিণ এশিয়ায় অবস্থিত পাকিস্তান সাম্রাজ্যবাদ দ্বারা নিপীড়িত জাতিদম্ভী পুঁজিবাদ অনুসারী শোষণমূলক রাষ্ট্র। পাকিস্তানের অফিসিয়াল নাম হচ্ছে পাকিস্তান ইসলামি প্রজাতন্ত্র (ইংরেজি: Islamic Republic of Pakistan)। আফগানিস্তান, ইরান ও ভারতের মধ্যস্থলে পাকিস্তান সিন্ধু উপত্যকায় অবস্থিত। তার দক্ষিণ উপকূল আরব সাগর বিধৌত।

পাকিস্তানের আয়তন ৮ লক্ষ বর্গকিলােমিটার; দেশটি পর্বত ও সমতল মালভূমির দেশ এবং তার আবহাওয়া উষ্ণ, শুষ্ক ও গাছপালা অর্ধমরুর ও মরুর বৈশিষ্ট্যচিহ্নিত। অবশ্য সিন্ধু উপত্যকা এর ব্যতিক্রম। নদীসিঞ্চিত এই উপত্যকাটি কৃষিপ্রধান অঞ্চল এবং দেশের সর্বাধিক জনবহুল এলাকা।

পাকিস্তানের জনসংখ্যা ১৭ কোটির মতাে এবং এখানে পাঞ্জাবী, সিন্ধী, বালুচ, পাঠান ও অন্যান্য জাতির বাস। দেশের রাজধানী ইসলামাবাদ। করাচির শহরতলী সহ লোকসংখ্যা ৪০ লক্ষাধিক। করাচী দেশের বৃহত্তম শিল্পকেন্দ্র ও বন্দর।

পাকিস্তানের অধিকাংশ মানুষই কৃষিজীবী এবং কৃষিই অর্থনীতির প্রধান অবলম্বন। ফসলের মধ্যে গম ও তুলাই প্রধান। দুধ ও মাংসের জন্য এখানে গবাদি পশু পালন প্রচলিত। পাকিস্তান খাদ্যে স্বনির্ভর নয়। সাম্প্রতিক বছরগুলিতে অবশ্য আমদানিকৃত খাদ্যের উপর তার নির্ভরতা অনেকটা হ্রাস পেয়েছে।

কিছুকাল আগেও পাকিস্তানের কোনো আধুনিক শিল্প ছিল না। গত কয়েক বছরে সেখানে কয়েকটি শিল্পসংস্থা গড়ে উঠেছে। দেশটি এখন তার নিজস্ব হালকা শিল্প, খাদ্যশিল্প এবং ইঞ্জিনিয়রিং, রাসায়নিক ও অন্যান্য শিল্প গড়ে তুলছে। শিল্পের রাষ্ট্রীয় খাতগঠন এবং কৃষিসংস্কার প্রবর্তনের কল্যাণে দেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নের বুনিয়াদ গড়ে উঠছে। তবে ব্যক্তিগত খাতই অর্থনীতিতে প্রধান ভূমিকাসীন এবং চষাজমি প্রধানত জমিদার ও ধনী কৃষকদের হাতে কেন্দ্রীভূত।

পাকিস্তানের ক্রমবর্ধমান বহিস্থ অর্থনৈতিক সংযােগের মধ্যে সমাজতান্ত্রিক দেশগুলিও অন্তর্ভুক্ত ছিল। কিন্তু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের সঙ্গে জোট বাঁধার ফলে দেশটির স্বাধীন বিকাশের প্রক্রিয়াটি ব্যাহত হয়েছে। এদের প্রভাবে পাকিস্তান এখন সাম্রাজ্যবাদী আগ্রাসনের একটি ঘাঁটি হয়ে উঠেছে।

তথ্যসূত্র:

১. কনস্তানতিন স্পিদচেঙ্কো, অনুবাদ: দ্বিজেন শর্মা: বিশ্বের অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক ভূগোল, প্রগতি প্রকাশন, মস্কো, বাংলা অনুবাদ ১৯৮২, পৃ: ১৩৩-১৩৪।

আরো পড়ুন:  ইরান সাম্রাজ্যবাদ দ্বারা নিপীড়িত পুঁজিবাদ অনুসারী দেশ
Anup Sadi
অনুপ সাদির প্রথম কবিতার বই “পৃথিবীর রাষ্ট্রনীতি আর তোমাদের বংশবাতি” প্রকাশিত হয় ২০০৪ সালে। তাঁর মোট প্রকাশিত গ্রন্থ ১১টি। সাম্প্রতিক সময়ে প্রকাশিত তাঁর “সমাজতন্ত্র” ও “মার্কসবাদ” গ্রন্থ দুটি পাঠকমহলে ব্যাপকভাবে সমাদৃত হয়েছে। ২০১০ সালে সম্পাদনা করেন “বাঙালির গণতান্ত্রিক চিন্তাধারা” নামের একটি প্রবন্ধগ্রন্থ। জন্ম ১৬ জুন, ১৯৭৭। তিনি লেখাপড়া করেছেন ঢাকা কলেজ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। ২০০০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে এম এ পাস করেন।

Leave a Reply

Top
You cannot copy content of this page