অপেক্ষা

একদিন তোমার প্রান্তে পৌঁছব বলে গেঁথে রাখছিলাম স্মৃতি
কিন্তু তোমাকে এখনো বুঝতে পারলাম না;
কিশোরে যে মন বারবার ডাকত তোমার কাছে
যৌবনে পাল্টেছে তার রং।

বেঁচে থাকার মানে এখন বুঝতে শিখেছি
তাই বিকেলের নরম রোদ আর ভালো লাগেনা,
তোমার সীমানার কাঁটা তাকিয়ে দেখে আমার বুক,
আমি শুধু নিজেকে আড়াল করি।

নিঃশব্দ রাতে সীমান্তে বিশ্ব বন্ধনের প্রত্যাশায়
বসে কত সাত-পাঁচ ভাবছি আর কূলের রেখা আঁকছি ,
এখানে ধবধবে কুয়াশা রূপালি জ্যোস্নাকে চাদর মুড়িয়ে রাখে,
ফ্যাকাসে ঘাসে শিশির বিন্দু বরফ হয়ে জমে।

সশব্দ পদচারনা নিয়ে আমি থেকে আমরা অপেক্ষামান—
অসীম ভালবাসা,শক্তি,প্রেমের প্রতিশ্রুতিতে।

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৪
ময়মনসিংহ

চিত্রের ইতিহাস: কবিতায় ব্যবহৃত অংকিত চিত্রটি ভিনসেন্ট ভ্যান গগ (৩০ মার্চ ১৮৫৩ – ২৯ জুলাই ১৮৯০) আঁকা চিত্র আর্লেতে পার্কের দরজা (Entrance to the Public Gardens in Arle)। শিল্পী চিত্রটি আঁকেন মার্চ ১৮৮৮ সালে।

বিশেষ দ্রষ্টব্য: কবিতাটি আমার [দোলন প্রভা] রচিত মনন পাবলিকেশন ঢাকা থেকে ২০১৭ সালে প্রকাশিত স্বপ্নের পাখিরা ওড়ে যৌথ খামারে  কবিতাগ্রন্থের ৩৫ পৃষ্ঠা থেকে নেয়া হয়েছে এবং রোদ্দুরেতে প্রকাশ করা হলো।

আরো পড়ুন:  হিংসে

Leave a Comment

error: Content is protected !!