পালিশ

রঙিন চশমা দিয়ে ওপাশ দেখছি,
এপাশে নেই অনেক কিছুই,
হাঁড়ি শুষে যে প্রাণশক্তি তারা নিয়েছে,
তার উপহার হিসেবে পেয়েছি একটি পালিশ করা দিন,
ওপাশে ছটফটে প্রাণ;— এপাশে শূন্য হাঁড়ি।

টাকা যে রং ছড়ায় আমরাও তা মাখি,
মলিন দেহ রঙিন করে টাকার রং তুলি,
যুগের সত্যকে ভুলিয়ে দিবে যদি গা ঘেঁষে থাকো,
যন্ত্রণা আজ মালিশ হবে পালিশ দিন দিয়ে।

তাই নিজের জমি চাষ করি সাম্যের ফুল ফোঁটাতে,
কষ্ট হলেও তবু আমরা স্বপ্ন দেখতে ভালবাসি,
তোমার জলে ভিজব যদি আমায় ডুবাও,
পথ নাচাব রুগ্ন মুখে যদি আবির মাখাও।

১৩ এপ্রিল, ২০১৭
নুরজাহান রোড,মোহাম্মদপুর, ঢাকা

চিত্রের ইতিহাস: কবিতায় ব্যবহৃত অংকিত চিত্রটি ভিনসেন্ট ভ্যান গগ (৩০ মার্চ ১৮৫৩ – ২৯ জুলাই ১৮৯০) আঁকা চিত্র আর্লের এভিনিউ ( Les Alyscamps, Avenue in Arles)। শিল্পী চিত্রটি আঁকেন অক্টোবর ১৮৮৮ সালে।

বিশেষ দ্রষ্টব্য: কবিতাটি আমার [দোলন প্রভা] রচিত মনন পাবলিকেশন ঢাকা থেকে ২০১৭ সালে প্রকাশিত স্বপ্নের পাখিরা ওড়ে যৌথ খামারে  কবিতাগ্রন্থের ৫৯ পৃষ্ঠা থেকে নেয়া হয়েছে এবং রোদ্দুরেতে প্রকাশ করা হলো।

আরো পড়ুন:  ব্রহ্মশৈলী

Leave a Comment

error: Content is protected !!