তরকা মনি নদী বাংলাদেশের পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলার একটি নদী

তরকা মনি নদী বা বড় সিংগীয়া নদী[১] বা বহুবাঁধ নদী বা আলোয়া নদী[২] বা বড়সিংরা নদী (ইংরেজি: Torka Moni River) বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলার একটি নদী। নদীটির দৈর্ঘ্য প্রায় ১২ লোমিটার এবং নদীটির প্রকৃতি সর্পিলাকার। নদীটিতে জোয়ার ভাঁটার প্রভাব থাকে না। তরকা মনি নদী মূলত নাগর নদীর উপনদী যা নাগর নদীর বাম তীরে এসে মিলিত হয়েছে।

প্রবাহ: তরকা মনি নদীটি পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলার তোড়িয়া ইউনিয়নের দানবীর এলাকার নিম্নভূমি থেকে উৎপত্তি লাভ করেছে। এখান থেকে নদীটি ঝলঝলি অঞ্চল, তোড়িয়া, সুখ্যাতি, নিতু পাড়া, বড় সিংগীয়া, বড় সালু পাড়া হয়ে আলোয়াখোয়াতে নাগর নদীতে পতিত হয়েছে।

বড় সিংগীয়া নদীতে সারা বছর পানি প্রবাহ থাকে না, তবে বর্ষা মৌসুমে যথেষ্ট পানি প্রবাহিত হয়। বর্ষায় নদীতে স্রোতধারা বৃদ্ধি পেলেও তীরবর্তী এলাকা যেমন বন্যাকবলিত হয় না, তেমনি ভাঙনের আলামত পরিদৃষ্ট হয় না। শুষ্ক মৌসুমে পানির প্রবাহ মারাত্মক কমে যায়। পলির প্রবাহে এ নদীর তলদেশ ক্রমশ ভরাট হয়ে যাচ্ছে এবং প্রবাহের মাত্রাও অতীতের তুলনায় দিন দিন হ্রাস পাচ্ছে।

এই নদীর তীরে গুঞ্জরমারিহাট এবং বারোঘাটি বাজার অবস্থিত। তোড়িয়া ইউনিয়ন এই নদীর পশ্চিমতীরে অবস্থান করছে। এই নদী অববাহিকায় কোনো সেচ প্রকল্পের জন্য একটি স্লুইস গেট আছে। নদীতে বন্যা নিয়ন্ত্রণের জন্য স্লুইস গেট ব্যবহার করা হয় এবং বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ আছে। নদীর উপর তোড়িয়ায় ২টি, বড় সিংগীয়ায় ১টি বড় সালুপাড়ায় একটি এবং মোহনার দিকে আলোয়াখোয়ায় দুটি ব্রিজ আছে।

আলোকচিত্রের ইতিহাস: বহুবাঁধ এলাকার স্লুইস গেটসহ নদীর এই আলোকচিত্রটি তুলেছেন তুলসী চন্দ্র বর্মণ নামের এক আলোকচিত্রী অক্টোবর ২০১৯ তারিখে।

তথ্যসূত্র

১. হানিফ শেখ, ড. মো. আবু (ফেব্রুয়ারি ২০১৬)। “উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় নদ-নদী”। বাংলাদেশের নদ-নদী ও নদী তীরবর্তী জনপদ (প্রথম সংস্করণ)। ঢাকা: অবসর প্রকাশনা সংস্থা। পৃষ্ঠা ৩৫। আইএসবিএন 978-9848797518।
২. ম ইনামুল হক, বাংলাদেশের নদনদী, অনুশীলন ঢাকা, জুলাই ২০১৭, পৃষ্ঠা ৪৪।

আরো পড়ুন:  ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদী প্রণালী বাংলাদেশ, ভারত ও চীনের নদীপ্রণালীগুলোর অন্যতম

Leave a Comment

error: Content is protected !!