বগুড়ার পোড়াদহ থেকে ৭টি বিপন্ন প্রাণী উদ্ধার, দুই জনের কারাদণ্ড

বাংলাদেশের বগুড়া জেলার গাবতলি থানার ঐতিহ্যবাহী পোড়াদহ মাছের মেলা থেকে ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৪ বিপন্ন প্রজাতির ৭টি বন্যপ্রাণী উদ্ধার করেছে কর্তৃপক্ষ। সেই মেলায় “বিশ্বাস প্রাণী প্রদর্শনী” নামে একটি প্রদর্শনী চলছিল। সেই প্রাণী প্রদর্শনীতে অবৈধভাবে নানা প্রজাতির প্রাণী টিকিটের বিনিময়ে প্রদর্শন করা হচ্ছিল। খাঁচার মধ্যে বিপন্ন পাখি ১টি ছোট মদনটাকসহ ১টি অজগর, ২টি রেসাস বানর, ১টি হনুমান, ১টি মেছোবাঘ, ১টি বনবিড়ালের বাচ্চা এবং কিছু খরগোশ দর্শনার্থীদের জন্য কয়েকদিন ধরে প্রদর্শিত হচ্ছিল।

উদ্ধারকৃত মেছো বিড়াল

এই বিষয়টি ১২ ফেব্রুয়ারি তারিখে বন্যপ্রাণী চিত্রগ্রাহক ফিরোজ আল সাবাহ এর নজরে এলে তিনি তাৎক্ষনিকভাবে বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ রাজশাহী, এর বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোল্লাহ রেজাউল করিমকে জানান। উক্ত কর্মকর্তার পদক্ষেপ অনুযায়ী পরদিন বৃহস্পতিবার সকালে মেলায় গিয়ে প্রাণীগুলো উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ রাজশাহীর বন্যপ্রাণী উদ্ধারকারী টিমের সদস্যবৃন্দ, সিরাজগঞ্জের প্রকৃতিপ্রেমি আব্দুর রাজ্জাক নাসিম, বন্যপ্রাণী চিত্রগ্রাহক নাজমুল ইসলাম বাবু, বগুড়া আজিজুল হক কলেজের প্রকৃতিপ্রেমি সংগঠন TEER-এর সাধারণ সম্পাদক সোহানুর রহমান সবুজসহ প্রায় ১০ জন সদস্য এবং স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন।

এ ব্যাপারে রাজশাহী বনবিভাগীয় কর্মকর্তা মোল্লাহ রেজাউল করিম জানান, অপরাধীদের গ্রেফতার করা হয়েছে এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তিন মাসের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। এরা হলো বজলুর রহমান (৫০) পিতা: ছলিমউদ্দীন, শেরপুর, বগুড়া এবং নাজমুল গাজী (৪০) ফকিরহাট, অভয়নগর, যশোর।

আরো পড়ুন:  নওগাঁর মহাদেবপুর থেকে ৮২টি বিভিন্ন প্রজাতির পাখি উদ্ধার, পাখি ব্যবসায়ীর জেল

Leave a Comment

error: Content is protected !!