আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > খবর > বিএসএফ-এর গণহত্যার প্রতিবাদে হ্যাকাররা ভারতের ২৬০০ ওয়েবসাইট হ্যাক করেছে

বিএসএফ-এর গণহত্যার প্রতিবাদে হ্যাকাররা ভারতের ২৬০০ ওয়েবসাইট হ্যাক করেছে

বিএসএফ বা বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সকৃত গণহত্যার প্রতিবাদে বাংলাদেশের হ্যাকাররা জানুয়ারি মাসে ভারতের ২৬০০ ওয়েবসাইট হ্যাক করেছে। ৭ জানুয়ারি, ২০১৩ ছিলো ফেলানীর দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী। এ উপলক্ষে বাংলাদেশের হ্যাকাররা প্রায় ২৬০০ ভারতীয় ওয়েবসাইট হ্যাক করে প্রতিবাদ জানিয়েছে। বাংলাদেশের হ্যাকাররা ভারতীয় ওয়েবসাইট হ্যাক করে দেখিয়েছে কিভাবে প্রতিবাদ করতে হয়।  উল্লেখ্য যে বাংলাদেশের কন্যা ফেলানি হচ্ছে ভারতীয় বিস্তারবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের এক প্রতীক। ফেলানীর পুরো নাম ফেলানি খাতুন। ২০১২ সালের ৭ জানুয়ারি ফেলানিকে গুলি করে হত্যা করে ভারতের খুনি সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফ।

বাংলাদেশের হ্যাকারদের কাছে হ্যাকিং হয়ে উঠছে প্রতিবাদের ভাষা। হ্যাক হওয়া ওয়েবসাইটের তালিকায় রয়েছে রেলওয়ে এজেন্টস, (http://railwayagents.in) পাঞ্জাব হেডলাইন (http://www.punjabheadline.in) ডট কম, ডট নেট ছাড়াও রয়েছে শতাধিক স্থানীয় বিভিন্ন সাইট। সোমবার রাতের এই হ্যাকিং যুদ্ধে বাংলাদেশ থেকে আলাদা আলাদা বাংলাদেশ সাইবার আর্মি এবং বাংলাদেশ গ্রে হ্যাট হ্যাকারস অংশ গ্রহণ করে। টেকপ্রিয় ডট কম [১] মঙ্গলবার বিকেল চারটায় এই খবর প্রকাশ করে। যদিও আমরা গত রাতেই এই খবর দেশবাসিকে জানিয়েছিলাম।

উল্লেখ্য পাঞ্জাব হেডলাইনের লিংক টিতে গিয়ে রাত ৭ জানুয়ারি, ২০১৩ দিবাগত রাত সোয়া ১২টার সময় ফেলানির সেই ঝুলন্ত বিখ্যাত ছবিটি দেখা গেছে। ছবির নিছে লেখা রয়েছে “Felani, We didn’t Forget you, We never do”. ছবিটির উপরে লেখা রয়েছে Hacked By DemoniaC AxioM.

বাংলাদেশের হ্যাকাররা হ্যাকিংকে প্রতিবাদের ভাষা হিসেবে উল্লেখ করেছেন। উল্লেখ্য গত বছর ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১২ সালে বাংলাদেশের হ্যাকাররা ভারতের বিরুদ্ধে সাইবার যুদ্ধ ঘোষণা করে এবং সে সময় ২৫০০০ ওয়েবসাইট হ্যাক করে। 

তথ্যসূত্র:

১ টেকপ্রিয় ডেস্ক, বাংলাদেশ এবং ভারতীয় হ্যাকারদের সাইবার যুদ্ধ শুরু!, ৮ জানুয়ারি, ২০১৩, ইউআরএলঃ https://www.priyo.com/news/security/2013/01/08/7820.html

আরো পড়ুন:  সীমান্তে সাড়ে চার দশকে দেড় হাজারের অধিক নিরপরাধ বাংলাদেশী হত্যা
Anup Sadi
অনুপ সাদির প্রথম কবিতার বই “পৃথিবীর রাষ্ট্রনীতি আর তোমাদের বংশবাতি” প্রকাশিত হয় ২০০৪ সালে। তাঁর মোট প্রকাশিত গ্রন্থ ১০টি। সাম্প্রতিক সময়ে প্রকাশিত তাঁর “সমাজতন্ত্র” ও “মার্কসবাদ” গ্রন্থ দুটি পাঠকমহলে ব্যাপকভাবে সমাদৃত হয়েছে। ২০১০ সালে সম্পাদনা করেন “বাঙালির গণতান্ত্রিক চিন্তাধারা” নামের একটি প্রবন্ধগ্রন্থ। জন্ম ১৬ জুন, ১৯৭৭। তিনি লেখাপড়া করেছেন ঢাকা কলেজ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। ২০০০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি সাহিত্যে এম এ পাস করেন।

Leave a Reply

Top
You cannot copy content of this page