ঢেকিয়া শাক বাংলাদেশের সর্বত্রে জন্মানো জনপ্রিয় শাক

ঢেকিয়া শাক (বৈজ্ঞানিক নাম: Diplazium esculentum) এক প্রকারের ভেষজ উদ্ভিদ। দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশে পাওয়া গেলেও বাংলাদেশে সর্বত্রে জন্মে। ভারত, চীন, তাইওয়ান, মালয়েশিয়া, ফিলিপাইন এবং নিউগিনি। বাংলাদেশে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, রাজশাহী, রংপুর এবং সিলেট জেলাসমূহে এই প্রজাতি পাওয়া যায়। (Mirza and Rahman, 1997)আরো পড়ুন

বথুয়া শাক বাংলাদেশে জন্মানো সহজলভ্য ও ভেষজ প্রজাতি

বথুয়া

খাড়া নিগন্ধি বর্ষজীবী বীরুৎ, প্রায় ১ মিটার উঁচু। কান্ড সাদাটে সবুজ বা লাল, কোণাকার, খাজাযুক্ত। সরল, একান্তর, ডিম্বাকার হ্যেকে ভিমাকৃতি হীরককার১.৫-১৫.০ X ০.৫-১৪.০ সেমি, সাধারণত অসম সন্ত যুক্ত,আরো পড়ুন

মহিচরণ শাক দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মানো ভেষজ শাক

ইহার জলীয় নির্যাস গ্রাম-নেগেটিভ ব্যাকটেরিয়া Aeromonas hydrophilia এর বিরুদ্ধে কার্যকর। উদ্ভিদটি বলকারক, ক্ষত নিরাময়ক হিসাবে কাজ করে। এছাড়াও, স্কার্ভি নিরাময়ক হিসেবে ব্যবহৃত হয়। ক্ষত দ্রুত নিরাময়ে ইহার পাতা গরম করে লাগিয়ে দেয়া হয় (Sinha, 1996)।আরো পড়ুন

বাংলাদেশের শাক হচ্ছে প্রায় শতাধিক মানব ভক্ষণযোগ্য উদ্ভিদের তালিকা

শাক

শাক হচ্ছে সেসব সবজি যেগুলোর লতা, পাতা, ফল, মূল, বীজ ও কন্দ মানুষের জন্য ভক্ষণযোগ্য, এজন্য শাকের অন্য আরেক নাম পাতা সবজি। বাংলাদেশের শাক প্রায় শতাধিক প্রজাতির, যেগুলোর বেশিরভাগ অনাবাদি এবং কিছু আবাদি। নিচে ৫৫ প্রজাতির শাকের নাম উল্লেখ করা হলো: ১. মোরগ শাক, ২. ইছা শাক, ৩. তেলাকুচা, ৪. খুইরা কাটা, ৫. হেঞ্চি শাক, … Read more

পাট শাক বা পাট পাতা বহুবিধ পুষ্টিগুণ, খাদ্যমান ও চাষ পদ্ধতি

পাট শাক বা নাইল্যা শাক বা পাট পাতা বাংলাদেশের মানুষের একটি প্রধান শাক যা এখন বাণিজ্যিক ভিত্তিতে চাষ করা হয়। দেশি পাটশাক সামান্য তিতা তবে তোষা বা বগী পাটশাক খেতে বেশ সুস্বাদু। পুষ্টির দিক থেকে দেশী পাটশাক কিছুটা এগিয়ে। ডালের সঙ্গে কচি পাটশাক খেতে দারুণ। আরো পড়ুন

চালকুমড়া এশিয়া ও দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার একটি জনপ্রিয় শাক ও সবজি

চালকুমড়া বা চালকুমরা বা জালিকুমড়া বা জালি (বৈজ্ঞানিক নাম: Benincasa hispida) কিউকারবিটাসি পরিবারের বেনিনকাসা গণের একটি লতানো সপুষ্পক উদ্ভিদ প্রজাতি। এদের কাঁচা ও পাকা জনপ্রিয় সবজিরূপে খাওয়া হয়। মোরব্বা তৈরির জন্যও এটি জনপ্রিয়, তবে মোরব্বায় একটু বেশি পরিপক্ক ফলের ব্যবহার হয়। আরো পড়ুন

ধনে বা ধনিয়া এশিয়ার একটি সুগন্ধি ঔষধি উদ্ভিদ

শুধু বাংলায় নয়, ভারতের সব প্রদেশের লোকেই ধনিয়া বা ধনে বললেই চিনতে পারে। এটি একটি বর্ষজীবী ছোট ক্ষুপ বা গুল্ম উদ্ভিদ। আরো পড়ুন

পানি কর্পূর দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার বর্ষজীবী উদ্ভিদ

পানি কর্পূর, বৈজ্ঞানিক নাম: Limnophila aromatica সমনাম: Limnophila aromaticoides Yang & Yen; Limnophila chinensis subsp. aromatica (Lam.) T. Yamaz. সাধারণ নাম: rice paddy herb বাংলা নাম: পানি কর্পূর, অন্যান্য নাম: জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস জগৎ/রাজ্য: Plantae বিভাগ: Angiosperms অবিন্যাসিত: Eudicots অবিন্যাসিত: Asterids বর্গ: Lamiales পরিবার: Plantaginaceae গণ:  Limnophila প্রজাতি: Limnophila aromatica (Lam.) Merr. পরিচিতি: পানি কর্পূর বর্ষজীবী, … Read more

ধনিয়া বা ধনে পাতার দশটি কার্যকরী ঔষধি ব্যবহার

ধনে বা ধনিয়া হচ্ছে এক ধরনের মসলা জাতীয় সবজি। এদের ঔষধ হিসাবে ব্যবহার করা হয়। নিম্নে সেগুলোর কয়েকটি উল্লেখ করা হলো। এটির প্রধান কাজ রসবহ ও রক্তবহ স্রোতে, পিত্তবিকারজনিত রোগগুলির উপর প্রধানভাবে কাজ করে। আরো পড়ুন

error: Content is protected !!