লম্বা ক্ষেত পাপড়া বহুবর্ষজীবী বীরুৎ

লম্বা ক্ষেত পাপড়া

বৈজ্ঞানিক নাম: Hedyotis verticillata (L.) Lamk., Tab. Encycl. 1: 271 (1792). সমনাম: Oldenlandia verticillata L. (1767), Hedyotis hispida Retz. (1786), Oldenlandia hispida (Retz.) Lamk. (1798), Hedyotis crataeogonum Spreng. (1815), Scleromitrion hispidum (Retz.) Korth. (1851). ইংরেজি নাম: জানা নেই। স্থানীয় নাম: লম্বা ক্ষেত পাপড়া।
জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস 
জগৎ/রাজ্য: Plantae. বিভাগ: Angiosperms. অবিন্যাসিত: Eudicots. বর্গ: Gentianales. পরিবার: Rubiaceae. গণ: Hedyotis প্রজাতির নাম: Hedyotis verticillata

ভূমিকা: লম্বা ক্ষেত পাপড়া (বৈজ্ঞানিক নাম: Hedyotis verticillata) হচ্ছে রুবিয়াসি পরিবারের হেডিয়োটিস গণের এক প্রকারের বৃক্ষ। এই প্রজাতিটি দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মায়।

লম্বা ক্ষেত পাপড়া-এর বর্ণনা:

লম্বা ক্ষেত পাপড়া বর্ষজীবী বা বহুবর্ষজীবী বীরুৎ। যা কাষ্ঠল মৌল কাণ্ড বিশিষ্ট। এদের কাণ্ড ৫০ সেমি পর্যন্ত লম্বা, শায়িত। পাতা উপপত্রযুক্ত এবং বৃন্তক, রেখাকার-বল্লমাকার বা উপবৃত্তাকার-বল্লমাকার, উপপত্র পেয়ালাকার, ৩-৪ মিমি চওড়া, পত্রবৃন্ত ১ মিমি পর্যন্ত লম্বা, কন্টক রোমশ, পত্রফলক ৩-৭ × ০.৬-১.৫ সেমি, রৈখিক-বল্লমাকার বা উপবৃত্তাকার-বল্লমাকার, শীর্ষ সূক্ষ্মাগ্র, দীর্ঘাগ্র, গোড়া পত্রবৃন্তের দিকে সরু, পাতলা চর্মবৎ।

সাইম কাক্ষিক, মঞ্জরীপত্র ২ মিমি পর্যন্ত লম্বা, পুষ্পবৃন্ত ১ মিমি পর্যন্ত লম্বা। পুষ্প ৮-১০ মিমি লম্বা, হাইপ্যান্থিয়াম ডিম্বাকার বা অর্ধগোলাকার। বৃতি ফলক ০.৭ মিমি পর্যন্ত লম্বা, খন্ডক ৪টি, ডিম্বাকার-বল্লমাকার থেকে ত্রিকোণাকার, ২.০-২.৫ ০ ০.৮- ১.০ মিমি, উপরিভাগ ঘনভাবে কন্টক রোমাবৃত। পাপড়ি ৪ মিমি পর্যন্ত লম্বা, নল ৪ মিমি পর্যন্ত লম্বা, মসৃণ, খন্ডক ৪টি, ৪ মিমি পর্যন্ত লম্বা, রেখাকার-বল্লমাকার, শীষ ভেতরের দিকে বক্র।

পুংদন্ড ৪.৫ মিমি পর্যন্ত লম্বা, পরাগধানী আয়তাকার, বহির্মুখী। গর্ভদন্ড ৯ মিমি পর্যন্ত লম্বা, গর্ভমুন্ড দ্বিখন্ডিত, অর্ধগোলাকার, নিম্নভাগ স্ফীত, গর্ভাশয় ১.২ মিমি পর্যন্ত লম্বা, ডিম্বক অনেক। ক্যাপসিউল গোলাকার বা অর্ধগোলাকার, ২.৫-৩.০ × ২.৫-৩.০ মিমি। বীজ অসংখ্য, ত্রিকোণাকার।

ক্রোমোসোম সংখ্যা : 2n = ৩২ (Kumar and Subramaniam, 1986).

আরো পড়ুন:  শিলারস এশিয়ার দেশসমূহে জন্মানো ভেষজ প্রজাতি

আবাসস্থল ও বংশ বিস্তার :

কর্দমাক্ত আর্দ্র মৃত্তিকা, বনের মধ্যকার পরিস্কৃত জমি। ফুল ও ফল ধারণ সময়কাল জুলাই-এপ্রিল। বীজ থেকে বংশ বিস্তার হয়।

বিস্তৃতি :

ভারত, থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, ইন্দো-চীন, চীন, ভিয়েতনাম এবং ফিলিপাইন। বাংলাদেশের সর্বত্র বিস্তৃত।

অন্যান্য তথ্য:

বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষের  ১০ম খণ্ডে (আগস্ট ২০১০) লম্বা ক্ষেত পাপড়া প্রজাতিটির সম্পর্কে বলা হয়েছে যে, বন ধ্বংসের কারণে বাংলাদেশের এটি সংকটাপন্ন। বাংলাদেশে লম্বা ক্ষেত পাপড়া সংরক্ষণের কোন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি। প্রজাতিটি সম্পর্কে প্রস্তাব করা হয়েছে বর্তমানে সংরক্ষণের প্রয়োজন নেই।

তথ্যসূত্র:

১. এম আতিকুর রহমান এবং এস সি দাস (আগস্ট ২০১০) “অ্যানজিওস্পার্মস ডাইকটিলিডনস” আহমেদ, জিয়া উদ্দিন; হাসান, মো আবুল; বেগম, জেড এন তাহমিদা; খন্দকার মনিরুজ্জামান। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ (১ সংস্করণ)। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। খন্ড ১০ম, পৃষ্ঠা ৭৪-৭৫ আইএসবিএন 984-30000-0286-0

Leave a Comment

error: Content is protected !!