গংধ কচু পার্বত্যঞ্চলে জন্মানো বহুজীবী বীরুৎ

ভূমিকা: গংধ কচু (বৈজ্ঞানিক নাম: Homalomena aromatica) হচ্ছে এরাসাই পরিবারের হোমালোমেনা গণের এক প্রকারের বিরুৎ। এই প্রজাতিটি দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মায়। গংধ কচু-এর বর্ণনা: গংধ কচু চিরহরিৎ বহুজীবী বীরুৎ। আকারে ১০-৩০ × ২-৪ সেমি , গ্রন্থিকন্দ অশাখ ও  সুগন্ধি। পাতা ১৫-৩০ × ১০-২৫ সেমি, প্রশস্ত, ডিম্বাকার, দীর্ঘাগ্র, মূলীয় খন্ড সাধারণত দূরাপুলারী, ডিম্বাকার, স্থূলাগ্র, উপরের খন্ডের এক-তৃতীয়াংশ … Read more

ঝাউয়া বাংলাদেশের পার্বত্যঞ্চলে জন্মানো উপকারী বৃক্ষ

ভূমিকা: ঝাউয়া (বৈজ্ঞানিক নাম: Holigarna longifolia) হচ্ছে অনাকারদিয়াসেই পরিবারের হোলিগারনা গণের এক প্রকারের বৃক্ষ। এই প্রজাতিটি দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মায়। ঝাউয়া-এর বর্ণনা : ঝাউয়া মসৃণ ছাই-বর্ণ বাকলবিশিষ্ট লম্বা বৃক্ষ। বাহির থেকে আঘাতের ফলে অতিশয় কটু লাক্ষা ক্ষরিত হয়। পত্র ২৮-৪৫ × ৬.৫- ৮.০ সেমি, সংকীর্ণভাবে অর্ধ-বল্লমাকার, দীর্ঘাগ্র, মধ্যাংশের উপর হতে কীলকাকার নিম্নাংশের দিকে ক্রমান্বয়ে সরু, মসৃণ, … Read more

রাম ভেন্ডি বাংলাদেশে জন্মানো উপকারী বীরুৎ

ভূমিকা: রাম ভেন্ডি (বৈজ্ঞানিক নাম: Hibiscus surattensis) হচ্ছে ম্যালভেসিয়া পরিবারের হিবিসকাস গণের এক প্রকারের বিরুৎ। এই প্রজাতিটি দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মায়। রাম ভেন্ডি-এর বর্ণনা : রাম ভেন্ডি নরম কান্ডবিশিষ্ট বর্ষজীবী বীরুৎ। এরা উচ্চতায় ৩ মিটার পর্যন্ত লম্বা হয়। প্রথমে ঋজু পরে লতানো হয়। এদের কান্ড, পত্রবৃন্ত, পুষ্পবৃত্তি কা এবং পত্রশিরা নরম সাধারণ রোম এবং নিম্নদিকে বাঁকানো … Read more

ঝুমকা জবা উষ্ণমন্ডলীয় অঞ্চলের আলঙ্কারিক গুল্ম

ভূমিকা: ঝুমকা জবা (বৈজ্ঞানিক নাম: Hibiscus schizopetalus) হচ্ছে ম্যালভেসিয়া পরিবারের হিবিসকাস গণের এক প্রকারের গুল্ম। এই প্রজাতিটি দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মায়। ঝুমকা জবা-এর বর্ণনা : ঝুমকা জবা গুল আকৃতির প্রজাতি। এদের উচ্চতা ২-৪ মিটার। কান্ড দেখতে কাষ্ঠল, সরু, শাখাগুলো ছড়ানো, কখনও ঝুলন্ত, মসৃণ। পাতা ০.৫- ২.০ সেমি লম্বা বৃন্তযুক্ত, ফলক ২-৭ × ১-৫ সেমি, ডিম্বাকার-উপবৃত্তাকার থেকে … Read more

স্থল পদ্ম গ্রীষ্মমন্ডলে জন্মানো ভেষজ উদ্ভিদ

ভূমিকা: স্থল পদ্ম (বৈজ্ঞানিক নাম: Hibiscus mutabilis) হচ্ছে ম্যালভেসিয়া পরিবারের হিবিসকাস গণের এক প্রকারের গুল্ম। এই প্রজাতিটি দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মায়। স্থল পদ্ম-এর বর্ণনা : স্থল পদ্ম ঋজু ও বলিষ্ট গুল্ম। গাছটি উচ্চতায় ৫ মিটার পর্যন্ত হয়। দেখতে ঝোপাকার, কচি অংশ ধূসর বর্ণের তারকাকৃতি রোম এবং ক্ষুদ্রাকৃতির গ্রন্থিল রোমের মিশ্রনে ঘণভাবে আবৃত। পাতা ৫-১৫ সেমি লম্বা … Read more

জবা বাংলাদেশের সর্বত্রে জন্মানো ভেষজ গুল্ম

ভূমিকা: জবা (বৈজ্ঞানিক নাম: Hibiscus rosa-sinensis) হচ্ছে ম্যালভেসিয়া পরিবারের হিবিসকাস গণের এক প্রকারের গুল্ম। এই প্রজাতিটি দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মায়। জবা- এর বর্ণনা : জবা গুল্ম বিশেষ। এটি ৪ মিটার পর্যন্ত উঁচু হয়। এদের কান্ড বহুল শাখান্বিত, কাষ্ঠল, মসৃণ। পাতা ২-৫ সেমি লম্বা বৃন্তযুক্ত, মসৃণ অথবা কিছু তারকাকার এবং সাধারণ রোমের মিশ্রণে রোমাবৃত, ফলক ২-১০ × … Read more

অনন্তমূল দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মানো ভেষজ লতা

ভূমিকা: অনন্তমূল (বৈজ্ঞানিক নাম: Hemidesmus indicus) হচ্ছে এ্যাপোনেসিয়াসিস পরিবারের হেমিডেসমাস গণের এক প্রকারের গুল্ম। এই প্রজাতিটি দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মায়। অনন্তমূল-এর বর্ণনা : অনন্তমূল সুগন্ধী মূল বিশিষ্ট, মাটিতে লুটিয়ে থাকে বা সামান্য প্যাঁচানো বহুবর্ষজীবী ছোট গুল্ম বিশেষ। ভাঙলে দুধের মতো ক্ষীর বের হয়। এদের কাণ্ড ও শাখা সরু, প্রস্থচ্ছেদ গোলাকার ও মসৃণ। পাতা কিছুটা সবৃন্তক, পত্রবৃন্ত … Read more

সাদা ঢেকিয়া ভেষজ গুণসম্পন্ন ফার্ন

ভূমিকা: সাদা ঢেকিয়া (বৈজ্ঞানিক নাম: Helminthostachys zeylanica) হচ্ছে ওফিওগ্লোসেসি পরিবারের হেলমিন্টোস্টাচিস গণের এক প্রকারের ফার্ন। এই প্রজাতিটি দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মায়। সাদা ঢেকিয়া-এর বর্ণনা: সাদা ঢেকিয়া একটি স্থলজ ফার্ন। যার গ্রন্থিকন্দ সরস, অসংখ্য সরস মূলবহনকারী, স্টাইপ সরস, সবুজ অথবা ধূসর বর্ণের, প্রায় ২০-৩০ সেমি লম্বা। পাতা খাড়া উর্বর স্পাইকসহ ত্রিপক্ষীয় ফলক (ল্যামিনা) দ্বারা গঠিত। ফলক প্রায় … Read more

লম্বা ক্ষেত পাপড়া বহুবর্ষজীবী বীরুৎ

ভূমিকা: লম্বা ক্ষেত পাপড়া (বৈজ্ঞানিক নাম: Hedyotis verticillata) হচ্ছে রুবিয়াসি পরিবারের হেডিয়োটিস গণের এক প্রকারের বৃক্ষ। এই প্রজাতিটি দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মায়। লম্বা ক্ষেত পাপড়া-এর বর্ণনা: লম্বা ক্ষেত পাপড়া বর্ষজীবী বা বহুবর্ষজীবী বীরুৎ। যা কাষ্ঠল মৌল কাণ্ড বিশিষ্ট। এদের কাণ্ড ৫০ সেমি পর্যন্ত লম্বা, শায়িত। পাতা উপপত্রযুক্ত এবং বৃন্তক, রেখাকার-বল্লমাকার বা উপবৃত্তাকার-বল্লমাকার, উপপত্র পেয়ালাকার, ৩-৪ মিমি … Read more

হরপুল্লি বাংলাদেশে পার্বত্যঞ্চলে জন্মানো বৃক্ষ

ভূমিকা: হরপুল্লি (বৈজ্ঞানিক নাম: Harpullia cupanioides) হচ্ছে সাপেন্ডেসিয়া পরিবারের হারপুলিয়া গণের এক প্রকারের বৃক্ষ। এই প্রজাতিটি দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মায়। হরপুল্লি-এর বর্ণনা: হারপুল্লি প্রায় ৩০ মিটার পর্যন্ত উঁচু হতে পার বৃক্ষ প্রজাতি। এদের পাতা ৩-৬ জোড় পত্রক, পত্রবৃন্ত ২০ সেমি পর্যন্ত লম্বা, পত্রকবৃন্ত ৫-১০ মিমি লম্বা, রোমহীন, পত্রক ডিম্বাকার, উপবৃত্তাকার থেকে বিডিম্বাকার, ৫-২০ × ২-১০ সেমি, … Read more

error: Content is protected !!