‘আধুনিক মানুষের ধারাবাহিক গল্প’ কাব্যগ্রন্থের উৎসর্গ ও সূচিপত্র

জ্ঞান অনুসরণ

রথম প্রকাশঃ ১৯ ডিসেম্বর, ২০০৬; ই-বই সংস্করণঃ ১৪ আগস্ট, ২০১৩, উৎসর্গ, ১৯৪৭ সালে বাংলা ভাগের ফলে যে সব মানুষ নিঃস্ব রিক্ত সহায় সম্বলহীন হয়ে দুই বাংলাতেই অবর্ণনীয় দুঃখ কষ্টে নিপতিত হয়েছেন তাদের এবং বাঙলা ভাগের যন্ত্রণায় সর্বাপেক্ষা দগ্ধ বাঙলা চলচ্চিত্রের সর্বশ্রেষ্ঠ পরিচালক ঋত্বিক ঘটকের মহান স্মৃতির উদ্দেশ্যে সূচিপত্র আরো পড়ুন

এই মৃত্যু উপত্যকা আমার দেশ না

আমার দেশ না

যে পিতা সন্তানের লাশ সনাক্ত করতে ভয় পায় আমি তাকে ঘৃণা করি- যে ভাই এখনও নির্লজ্জ স্বাভাবিক হয়ে আছে আমি তাকে ঘৃণা করি— যে শিক্ষক বুদ্ধিজীবী কবি ও কেরাণী প্রকাশ্য পথে এই হত্যার প্রতিশোধ চায় না আমি তাকে ঘৃণা করি- আটজন মৃতদেহ চেতনার পথ জুড়ে শুয়ে আছে আমি অপ্রকৃতিস্থ হয়ে যাচ্ছি আট জোড়া খোলা চোখ আমাকে ঘুমের মধ্যে দেখে আরো পড়ুন

আমার খবর

আমি সেই মানুষ যার কাঁধের ওপর সূর্য ডুবে যাবে। বুকের বোতামগুলো নেই বহুরাত কলারটা তোলা ধুলো ফ্যা ফ্যা আস্তিন হাওয়াতে চুল উড়িয়ে পকেট থেকে আধখানা সিগারেট বার করে বলব দাদা একটু ম্যাচিসটা দেবেন? লোকটা যদি বেশি ভদ্র হয় সিগারেট হাতে রেখে এগিয়ে দেবে দেশলাই আরো পড়ুন

একটা ফুলকির জন্যে

একটা কথায় ফুলকি উড়ে শুকনো ঘাসে পড়বে কবে সারা শহর উথাল পাথাল, ভীষণ রাগে যুদ্ধ হবে কাটবে চিবুক চিড় খাবে বুক লাগাম কেড়ে ছুটবে নাটক শুকনো কুয়োয় ঝাঁপ দেবে সুখ জেলখানাতে স্বপ্ন আটক একটা ব্যথা বর্শা হয়ে মৌচাকেতে বিঁধবে কবে ছিঁড়বে মুখোশ আগ্নেয় রোষ আরো পড়ুন

তোমার জন্যই

— গণতন্ত্রের জন্য যুদ্ধ, — জীবনের জন্য ঘাম, — সর্বহারার রাজত্ব কায়েম, — স্বপ্নের জন্য বিপ্লব, — আগুনের কৃষ্ণচূড়া গাছ, — অস্তিত্বের জন্য সংগ্রাম, — কবিতার নামে শব্দের মিছিল, — একটি সুন্দর গোলাপের হাসি, এতোসব প্রয়োজনীয় আয়োজন আরো পড়ুন

দাদামশাইয়ের বৈঠকখানা

এক্কা দোক্কা তিন তেরেক্কা/ মা গিয়েছে দক্ষিণেশ্বর/ মামা গেছে ফারাক্কা/ চোখ পিটপিট, গা কুটকুট/ কুড়র মুড়র ঝাল বিস্কুট/ কার পকেটে/ কান পেতে শোন টক্কা টরে/ দরজাতে কে শব্দ করে/ তেরে কেটে তাক তেরে কেটে/ চোর না পুলিশ/ দেখে খুলিস। আরো পড়ুন

দেয়ালের লিখন

বাবু হয়ে ব’সে গদিতে।/ ভুলে গেছে ভুয়ে পা দিতে।/ দেশের লোকের ছাড়ছে নাড়ি।/ বাড়ছে দলের গাড়ি বাড়ি।।/ মন্ত্রী মশাই, করেন কী ?/ পরের ধনে পোদ্দারি।/ হাকিমসাহেব, করেন কী ?/ খোদার ওপর খোদারি।/ আহা আহা, করেন কী ?/ ঢের হয়েছে, গোটান এবার/ পাততাড়ি।। আরো পড়ুন

এখন কে যায়?

ফুলকপি শেষ হয়ে আসছে/ উঠবে উঠবে করছে নতুন পটল/ দূর ! এখন কে যায় ?/ তোমার কথা মনে হলেই/ মাটির তলা দিয়ে তলা দিয়ে/ ঠেলে উঠব।/ এ-মুড়া থেকে ও-মুড়োয়/ দুদিকের দুই সুড়ঙ্গ/ শুধু জুড়তে যা সময়।/ মাঝগঙ্গায় আর একটু শুধু ফাঁক/ বাড়ানো দুহাত এক করতে পারলেই/ ওপারে আমার মেজো মেয়েকে দেখে আরো পড়ুন

কিংবদন্তী

শেষ করেছে পেয়ালা।/ বুড়োর এখন দেয়ালা।।/ হেঁড়ে গলা, মুখ গোমরা।/ নিশ্চয় কোনো হোমরা-চোমরা ॥/ ওঠবার জন্যে মই।/ পড়বার জন্যে বই।।/ সকলেই ভেড়ের ভেড়ে,/ সকলেই এক রা।/ তাতে গণতন্ত্রের/ থাকে নাকো ফ্যাকড়া।। আরো পড়ুন

উড়ো চিঠি

বসে রয়েছি পা ছড়িয়ে/ খরায়/ স্মৃতির নৌকো আটকে আছে/ হাঁটুজলের চড়ায়/ শুকনো ডালে হলদে পাতার/ মাটিতে চোখ/ যেখানে রক্ত, ছিন্নভিন্ন/ পাখির পালক/ / হৃদয়ের লাল ডাকবাক্‌সে/ ফেলা চিঠিতে আরো পড়ুন

error: Content is protected !!