আবারো স্বাগত তোমায় রঙিন মিছিলে

এখন বসন্ত তোমার দুয়ারের কড়া নেড়েই চলে যায়-
তুমি হকার ভেবে এক ধাপও এগিয়ে আসো না,
খবরের কাগজে মুখ গুজে বিশ্বের খোঁজ নাও-
আর নিজের অন্তরের পুষ্পের আবদারকে নুয়ে রাখো।

আমি যখন অভিমানী, তুমি তখন অমনোযোগী,
তুমি যখন অবসরে, আমি তখন কর্মবীর,
আমি যখন আশাবাদী, তুমি তখন উদাসীন,
তুমি যখন কাজে ব্যস্ত, দম ফেলার সময় পাচ্ছো না-
আমি তখন প্রেম নগরের বাসিন্দা-
তোমাকে ডাকছি কোডিং ভাষা ছেড়ে বুকের উষ্ণতা নিতে।

আমরা যতই বলি ‘তোমার মতো অবসর নেই’!
আসলে আমরা উভয়েই চলছি পুঁজির চাকার গতিতে,
দুজনেই কাজ করছি কোডিংয়ের তালে তালে-
আর অনুভূতিগুলো বৃথায় অভিমানে খোঁড়াছে।

আমাদের সময় ছিলো পিচ ঢালা পথে,
একই স্লোগান, মুষ্ঠিবদ্ধ হাত, প্ল্যাকার্ড সাথে নিয়ে-
মুক্তির দাবিতে একই স্বপ্ন গেঁথে,
সত্যি, একদা সময় ছিলো শ্রমিকের অধিকারের পাশে থেকে।

তখন বসন্ত আরো রঙিন হতে হতে কমলা বরন হতো,
চড়ুই পাখির চাঞ্চল্য আরো মধুর হতো,
আমাদের কথাগুলো আরো প্রেমী হতো।

১০.০৩.২০২২
সারদাঘোষ রোড, ময়মনসিংহ

বি. দ্র: ব্যবহৃত ছবি উইকিমিডিয়া কমন্স থেকে নেওয়া হয়েছে। আলোকচিত্রীর নাম: Henna

আরো পড়ুন:  একটা ফুলকি ছুঁয়ে যাক আমাদের শরীর

Leave a Comment

error: Content is protected !!