আপনি যা পড়ছেন
মূলপাতা > প্রাণ > উদ্ভিদ > বৃক্ষ > বোগাসেরা কান্তা বা বিসকপরা বাংলাদেশের পার্বত্যাঞ্চলে জন্মানো বৃক্ষ

বোগাসেরা কান্তা বা বিসকপরা বাংলাদেশের পার্বত্যাঞ্চলে জন্মানো বৃক্ষ

বৃক্ষ

বোগাসেরা কান্তা

বৈজ্ঞানিক নাম:Caesalpinia cucullata Roxb., Fl. Ind. ed. 2, 2: 358 (1832). সমনাম: Mezoneuron cucullatum (Roxb.) Wight & Arn. (1834), Mezoneuron cucullatum Wight & Arn. var. robustum Craib (1928). ইংরেজি নাম: Sahyadri Thorn, Hooded-flowered brasiletto স্থানীয় নাম: বোগাসেরা কান্তা, বিসকপরা।
জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস 
জগৎ/রাজ্য: Plantae. বিভাগ: Angiosperms. অবিন্যাসিত: Edicots. বর্গ: Vitales. পরিবার: Caesalpiniaceae. গণ: Caesalpinia প্রজাতির নাম: Caesalpinia cucullata

ভূমিকা: বোগাসেরা কান্তা (বৈজ্ঞানিক নাম: Caesalpinia cucullata) এক প্রকারের ভেষজ বৃক্ষ। বাংলাদেশসহ উষ্ণাঞ্চল ও দক্ষিণ এশিয়ার দেশে জন্মে।

বোগাসেরা কান্তা-এর বর্ণনা:

কাষ্ঠল আরোহী বা ছোট বৃক্ষ, পশ্চাদমূখী বক্র। গাত্রকন্ট যুক্ত। পত্র যৌগিক, অনুপপত্রী, পত্রক অক্ষ ১২-৩০ সেমি লম্বা, পক্ষ ২-৫ জোড়া, ৭-১৫ সেমি লম্বা, দূরস্থ, পত্রক ৪-৫ জোড়া, ৪.৫-১০.০ x১.৫-৬.০ সেমি,

প্রতিমুখ, ডিম্বক-উপবৃত্তাকার, ভোতা দীর্ঘাগ্র, মূলীয় অংশ গোলাকার – এবং অসম, পাতলা চর্মবৎ, উপরিভাগ চকচকে, বৃন্ত ৩-৫ মিমি লম্বা।

পুষ্পবিন্যাস সরল অক্ষীয় বা শার্ষীয় প্যানিকল, ১৫-৩০ সেমি লম্বা, রোম বিহীন, প্রায়শ পুরাতন কান্ড থেকে উথিত। পুষ্প উজ্জ্বল হলদে, সহপত্রী, মঞ্জরীপত্র আশুপাতী, বৃন্ত ০.৬-১.২ সেমি লম্বা, রোম বিহীন।

বৃতি ১ সেমি লম্বা, গভীর খন্ডিত, বৃত্যংশ ৫ টি, রোম বিহীন, সর্ব নিম্নটির শীর্ষ ফণা সদৃশ এবং বাকী ৪ টি বৃত্যংশ থেকে বৃহত্তর।
পাপড়ি ৫ টি, উজ্জ্বল হলদে, ধ্বজক বেগুনি লাল, দ্বিখন্ডিত, প্রজাপতি আকৃতি বিশিষ্ট, ২.০-২.৫ সেমি লম্বা, দলবৃন্ত ৬.০-৭.৫ মিমি লম্বা।

পুংকেশর ১০ টি, একটি পুংদন্ড অপরগুলি থেকে দীর্ঘতর, ৫ টি খাটো এবং মূলীয় অংশ রোমশ, পরাগধানী লাল। গর্ভাশয় রোম বিহীন, ১-২ টি ডিম্বকযুক্ত।

ফল পড, ৮-১২ x ২.৫-৩.৫ সেমি, ৫-৭ মিমি প্রশস্ত, পাতলা লালাভ বাদামী, উপরের সন্ধি রেখা বরাবর কাগজবৎ পক্ষল, বৃন্ত ২-৪ সেমি লম্বা, পুষ্পধার স্থায়ী। বীজ প্রতিটি পডের মধ্যস্থলে ১-২ টি।

আরো পড়ুন:  কুচিলা বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ায় জন্মানো ভেষজ বৃক্ষ

ক্রোমোসোম সংখ্যা: 2n = ২২ (Kumar and Subramaniam, 1986).

আবাসস্থল ও বংশ বিস্তার:

চিরহরিৎ অরণ্য, জলাশয়ের পার্শ্ব, খালের নিকটবর্তী অঞ্চল। ফুল ও ফল ধারণ জানুয়ারি-মার্চ মাসে। বংশ বিস্তার হয় বীজে বংশ বিস্তার

বোগাসেরা কান্তা-এর বিস্তৃতি:

ভুটান, কম্বোডিয়া, চীন, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, লাওস, মায়ানমার, মালয় পেনিনসুলা, নেপাল, ফিলিপাইন, থাইল্যান্ড ও ভিয়েতনাম। বাংলাদেশের পার্বত্য চট্টগ্রাম, কক্সবাজার ও সিলেট জেলায় জন্মে।

অন্যান্য তথ্য:

বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষের ৭ম খণ্ডে (আগস্ট ২০১০) বোগাসেরা কান্তা প্রজাতিটির সম্পর্কে বলা হয়েছে যে, উদ্ভিদের মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহারের কারণ বাংলাদেশে এটি সংকটাপন্ন হিসেবে বিবেচিত।

বাংলাদেশে বোগাসেরা কান্তা সংরক্ষণের জন্য কোনো পদক্ষেপ গৃহীত হয়নি। প্রজাতিটি সম্পর্কে প্রস্তাব করা হয়েছে যে এই প্রজাতিটির বর্তমানে সংরক্ষণের প্রয়োজন নেই।

তথ্যসূত্র:

১. বি এম রিজিয়া খাতুন (আগস্ট ২০১০)। “অ্যানজিওস্পার্মস ডাইকটিলিডনস” আহমেদ, জিয়া উদ্দিন; হাসান, মো আবুল; বেগম, জেড এন তাহমিদা; খন্দকার মনিরুজ্জামান। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ। ৭ম (১ সংস্করণ)। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। পৃষ্ঠা ১০৮-১০৯। আইএসবিএন 984-30000-0286-0

বি. দ্র: ব্যবহৃত ছবি উইকিমিডিয়া কমন্স থেকে নেওয়া হয়েছে। আলোকচিত্রীর নাম: Vinayaraj

Dolon Prova
জন্ম ৮ জানুয়ারি ১৯৮৯। বাংলাদেশের ময়মনসিংহে আনন্দমোহন কলেজ থেকে বিএ সম্মান ও এমএ পাশ করেছেন। তাঁর প্রকাশিত প্রথম কবিতাগ্রন্থ “স্বপ্নের পাখিরা ওড়ে যৌথ খামারে”। বিভিন্ন সাময়িকীতে তাঁর কবিতা প্রকাশিত হয়েছে। এছাড়া শিক্ষা জীবনের বিভিন্ন সময় রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক কাজের সাথে যুক্ত ছিলেন। বর্তমানে রোদ্দুরে ডট কমের সম্পাদক।

Leave a Reply

Top
You cannot copy content of this page