পাহাড়ি চন্দ্রকেতু বাংলাদেশের পার্বত্যঞ্চলে জন্মানো গুল্ম

গুল্ম

চন্দ্রকেতু

বৈজ্ঞানিক নাম: Dracaena terniflora Roxb., Fl. Ind. 2: 159 (1832). সমনাম : Pleomele terniflora.  ইংরেজি নাম: Dwarf Dracaena, Wild dracaena। স্থানীয় নাম: পাহাড়ি চন্দ্রকেতু।
জীববৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ/রাজ্য: Plantae. বিভাগ: Angiosperms. অবিন্যাসিত: Monocots. বর্গ:  Asparagales. পরিবার: Asparagaceae. গণ: Dracaena প্রজাতির নাম: Dracaena terniflora.

ভূমিকা: পাহাড়ি চন্দ্রকেতু (বৈজ্ঞানিক নাম: Dracaena terniflora) এক প্রকারের ভেষজ উদ্ভিদ। দক্ষিণ এশিয়ার বিভিন্ন দেশে পাওয়া গেলেও বাংলাদেশে পার্বত্যঞ্চলে জন্মে।

পাহাড়ি চন্দ্রকেতু-এর বর্ণনা:

খর্ব, ভূশায়ী, সরু গুল্ম, ১.০-২.৬ মিটার উঁচু। পাতা ১৫-২৫ x ২.৫-৫.০ সেমি, সবৃন্তক, উপবৃত্তাকার বা ভলৱাকার, সুক্ষ্মাগ্র, বৃন্ত ২.৫-১৪.৫ সেমি লম্বা। পুষ্পবিন্যাস অনিয়ত বা যৌগিক মঞ্জরী, পত্রাধিক লম্বা। পুষ্প ২-৩ টি, ক্ষুদ্র বৃন্তক, বৃন্তশীর্ষে সন্ধিযুক্ত। পুষ্পপুট সরু, ২ সেমি এর কাছাকাছি, সবুজাভ সাদা, খন্ড রৈখিক, প্রান্তস্পর্শী। পুংকেশর ৫ টি, পুষ্পপুট পাদলগ্ন, পুংদণ্ড সূত্রাকার, পরাগধানী সর্বমুখ। গর্ভপত্র ৩ টি, গর্ভাশয় ৩ প্রকোষ্ঠীয়, প্রতিপ্রকোষ্ঠে ১ টি ডিম্বক, গর্ভদন্ড সূত্রাকার, গর্ভমুণ্ড মুণ্ডাকার। ফল বেরি, চেরি সদৃশ লাল, ৩ প্রকোষ্ঠীয়। বীজ গোলাকার, ক্ষুদ্র।

ক্রোমোসোম সংখ্যা : 2n = ৮০ (Kumar and Subramaniam, 1986)

আবাসস্থল ও বংশ বিস্তার: বাগান বা বনভূমির ছায়াযুক্ত সেঁতসেঁতে স্থান। ফুল ও ফল ধারণ সময়কাল জানুয়ারী-ডিসেম্বর। বীজের সাহায্যে বংশ বিস্তার হয়।

বিস্তৃতি: ভারত (খাসিয়া পাহাড়), থাইল্যান্ড, মায়ানমার, মালয়েশিয়া। বাংলাদেশে সিলেট ও চট্টগ্রাম জেলায় জন্মে।

অন্যান্য তথ্য:

বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষের ১১ খণ্ডে (আগস্ট ২০১০) পাহাড়ি চন্দ্রকেতু প্রজাতিটির সম্পর্কে বলা হয়েছে যে, বাংলাদেশে এটি আশংকামুক্ত হিসেবে বিবেচিত। বাংলাদেশে পাহাড়ি চন্দ্রকেতু সংরক্ষণের জন্য কোনো পদক্ষেপ গৃহীত হয়নি। প্রজাতিটি সম্পর্কে প্রস্তাব করা হয়েছে যে এই প্রজাতিটি বাগানে চাষ করা প্রয়োজন।

তথ্যসূত্র:

১. এবিএম এনায়েত হোসেন ও এবিএম রবিউল ইসলাম(আগস্ট ২০১০)। “অ্যানজিওস্পার্মস ডাইকটিলিডনস” আহমেদ, জিয়া উদ্দিন; হাসান, মো আবুল; বেগম, জেড এন তাহমিদা; খন্দকার মনিরুজ্জামান। বাংলাদেশ উদ্ভিদ ও প্রাণী জ্ঞানকোষ। ১১ (১ সংস্করণ)। ঢাকা: বাংলাদেশ এশিয়াটিক সোসাইটি। পৃষ্ঠা ৬-৭। আইএসবিএন 984-30000-0286-0

আরো পড়ুন:  চীনাবাদাম পুষ্টিগুণসম্পন্ন সহজলভ্য ভেষজ বিরুৎ

বি. দ্র: ব্যবহৃত ছবি www.flowersofindia.net থেকে নেওয়া হয়েছে। আলোকচিত্রীর নাম: Dinesh Valke

Leave a Comment

error: Content is protected !!