দৃশ্যত

রাস্তা দিয়ে যেই যায়, খোলা জানলা, উঁকি মেরে দেখে –

কে একজন সারাক্ষণ গদি-আঁটা কাঠের চেয়ারে

টেবিলে দু-ঠ্যাং তুলে গালে হাত দিয়ে বসে থাকে।

                            

চুলগুলো খোঁচা খোঁচা, ভাঙা গাল, দেখতেও চোয়াড়ে,

মাঝখানে সামান্য ভুঁড়ি, যে রকম হয় ভারি ট্যাঁকে—

বেড়া ভেঙে ভাবনা ঢুকলে সম্ভবত দেয় সে খোঁয়াড়ে।

 

চোখে যদি চশমা থাকত, হাতে যদি ধরা থাকত বই

কিছুটা আন্দাজ করা যেত হয়ত লোকটার স্বভাব

বাইরে থেকে কে কী বুঝবে ? কার সাধ্য পাবে তার থই ?

 

গড়গড়ার নল হাতে থাকলে তবু দেখাত নবাব

পাছে ধরা পড়ে যায়, রাখে না সে কোথাও টিপসই

তবে কি নিজের সঙ্গে চলে তার সওয়াল জবাব ?

 

সে খোঁজ রাখে না কেউ, লোকচক্ষে সে শুধু দৃশ্যই।।

আরো পড়ুন:  দেয়ালের লিখন

Leave a Comment

error: Content is protected !!