স্তালিন সোসাইটি বাংলাদেশ কমরেড স্তালিনের তত্ত্ব ও দিকনির্দেশনাগুলো তুলে ধরার লক্ষ্যে গঠিত

কমরেড জোসেফ স্তালিনের রাজনৈতিক তত্ত্ব ও দিকনির্দেশনাগুলো তুলে ধরার লক্ষ্যে স্তালিন সোসাইটি বাংলাদেশ গঠিত হয়েছে। গতকাল ১৯ জুলাই ২০১৯ তারিখে লেখক মনজুরুল হক-কে আহবায়ক করে “স্তালিন সোসাইটি বাংলাদেশ” এর ১৭ সদস্যের আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে।  গতকাল বাংলাদেশের ঢাকার সংস্কৃতি বিকাশ কেন্দ্রে এই উপলক্ষে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকটি সঞ্চালনা করেন আহমেদ তালাত তাহজীব।

সভায় সর্বসম্মতিক্রমে সদস্য হয়েছেন রাজনীতিবিদ বেলাল চৌধুরী, লেখক ও গীতিকার হাসান ফকরী, প্রাবন্ধিক অনুপ সাদি, রোদ্দুরের সম্পাদক দোলন প্রভা, মাহাবুব হাসান, ইফতেখার আহমেদ বাবু, আহমেদ তালাত তাহজীব, ফকির ইউসুফ, হাসান মাসুদ, আতাউর রহমান, আতিক চৌধুরী, ফয়সাল আহমেদ বাপ্পা, মনির ইউসুফ, শেখ মেহদী, জাকি সুমন, হাসান সিদ্দিকী।

এই কমিটি যত দ্রুত সম্ভব বিভিন্ন প্রগতিশীল মহলে এবং বিভিন্ন কমিউনিস্ট পার্টি স্তরে যোগাযোগ করে দুই থেকে তিন মাসের মধ্যে বড় পরিসরে সম্মেলন বা সমাবেশ করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করবে। স্তালিন সোসাইটির সদস্যদের অন্যতম কাজ হবে স্তালিন বিরোধী কুৎসার সমুচিত জবাব দেওয়া, কমরেড স্তালিনের রাজনৈতিক, তাত্ত্বিক, দ্বান্দ্বিক তত্ত্ব ও দিকনির্দেশনাগুলো তুলে ধরা। সেই সাথে সারা বিশ্বের সর্বহারা শ্রেণির মহান নেতা জোসেফ স্তালিনের কর্মজীবন ও ব্যক্তিজীবনের সব কিছু তুলে ধরা, যাতে করে আমাদের দেশের বিপ্লবাকাঙ্খী জনসাধারণ স্তালিনের ‘ম্যাজিক ছোঁয়ায়’ উজ্জীবীত হতে পারেন। যাদের মূল কাজ রাষ্ট্রক্ষমতা দখলের সর্বহারা শ্রেণির রাজনীতিকে মূল লক্ষ্যে রেখে নিরলস কাজ করে যাওয়া।

গতকালের বৈঠকে লেখক মনজুরুল হক জানান, “বেশ কয়েক বছর ধরে উদ্যোগ নিয়েছিলাম বাংলাদেশে ‘স্তালিন সোসাইটি’ গড়ে তোলার। সে লক্ষ্যে বিভিন্ন প্রগতিশীল মহলে যোগোযাগ করেছি। এর মধ্যে প্রগতিশীল কর্মীমহলে মোটামুটি সাড়া পেয়ে আমরা আন্তর্জাতিক পরিসরে স্তালিন সোসাইটিগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ করি। ইত্যবসরে স্তালিন সোসাইটি ইন্ডিয়া আমাদের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বন্ধুপ্রতিম সংগঠন হিসাবে অনুমোদন দেয়। পাশাপাশি আন্তর্জাতিক স্তালিন সোসাইটি এবং স্তালিন সোসাইটি পাকিস্তান তাদের সমর্থনও জানিয়ে দেয়।”

আরো পড়ুন:  বাংলায় কথা বলার ‘অপরাধে’ জেল অসমের রিকশাচালক দম্পতির!

অনুষ্ঠানে অনুপ সাদি তাঁর বক্তৃতায় বলেন স্তালিন মানবেতিহাসের মহত্তম শাসক। তিনি স্তালিনের সময়কালকে মানবেতিহাসের মহত্তম গণতান্ত্রিক সমাজ বলেন মত দেন। তাঁর মতে কমরেড জোসেফ স্তালিন হচ্ছেন বিশ্ব বিপ্লবী সাম্যবাদী আন্দোলনের মূল দিশা। অন্যান্য বক্তাগণ বলেন দুনিয়ায় শ্রেণিহীন সমাজ গঠনের সংগ্রাম যতদিন ধরে চলবে, নিপীড়িত হৃদয়ের প্রতি স্পন্দনে অনুপ্রেরণার স্ফূলিঙ্গ হয়ে রইবেন কমরেড স্তালিন।

আলোকচিত্রের ইতিহাস: ১৯ জুলাই ২০১৯ তারিখ বিকেলে আলোকচিত্রটি তুলেছেন Dolon Prova. আলোকচিত্রটি সিসি-বাই-এসএ-৪.০ এর আওতাভুক্ত। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন কবি ও গীতিকার হাসান ফকরী।

Leave a Comment

error: Content is protected !!